ইরানের নতুন অস্ত্র ‘রা'দ-৫০০’
প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:৫০
ইরানের নতুন অস্ত্র ‘রা'দ-৫০০’
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

রা’দ-৫০০ মিসাইল লঞ্চার প্রদর্শন করেছেইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র অ্যারোস্পেস ফোর্স। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এই মিসাইল লঞ্চার প্রদর্শন করা হয়।এই লঞ্চারে একই সময়ে দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র বসানো যায়।খবর ইরনার।


ইরানী গণমাধ্যম জানিয়েছে, ‘রাদ-৫০০’ নামের যে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কাজে এই লঞ্চার ব্যবহার করা হয় তা ইরানের গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর একটি। কঠিন জ্বালানির এই ক্ষেপণাস্ত্র চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে উদ্বোধন করেছে আইআরজিসি। এই ক্ষেপণাস্ত্রে ‘যুহাইর’ নামের কম্পোজিট মোটর বসানো হয়েছে।


আর কম্পোজিট মোটরে কার্বন ফাইবার ব্যবহার করা হয়েছে যা তিন হাজার সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত তাপ সহ্য করতে সক্ষম। এই উপাদানের মাধ্যমে মোটর তৈরি করার ফলে এর ওজন অত্যন্ত কম এবং এই মোটর দিয়ে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রের ওজনও হবে তুলনামূলক অনেক কম। ইরানের ফতেহ-১১০ ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে রা’দ-৫০০ ক্ষেপণাস্ত্রের ওজন অর্ধেক, কিন্তু পাল্লা দুইশ’ কিলোমিটার বেশি।


এদিকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ইসরাইলের কাছে কয়েকশ পরমাণু ওয়ারহেড রয়েছে এবং পরমাণু অস্ত্রের এই মজুদ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনের শান্তি এবং নিরাপত্তার জন্য বিশাল হুমকি।


এতে আরো বলা হয়েছে, মার্কিন সরকার সমর্থিত ইসরাইলের হাতে রয়েছে শত শত পরমাণু ওয়ারহেড যা আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক শান্তি এবং নিরাপত্তার জন্য মারাত্মক হুমকি। মধ্যপ্রাচ্যকে পরমাণু অস্ত্র মুক্ত করার ক্ষেত্রে ইসরাইল বড় বাধা।


পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটিতে সই করেনি ইসরাইল। পাশাপাশি তেল আবিব কখনো স্বীকার করে নি যে, তাদের কাছে পরমাণু ওয়ারহেড আছে; আবার অস্বীকারও করে নি। তবে বিভিন্ন সূত্র দাবি করেছে, ইসরাইলের হাতে ৩০০ থেকে ৪০০ পরমাণু ওয়ারহেড রয়েছে।


বিবার্তা/আবদাল

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com