আমাদের অপর্ণা দিদি
প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৫:১৮
আমাদের অপর্ণা দিদি
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

‘দেশ ও নারী সমাজ এগিয়ে না আসলে উন্নয়ন কিভাবে হবে আর দরজা জানালা বন্ধ করে বসে থাকার সময় এটা না, নারীদের গঠনমূলক রাজনৈতিক চর্চা এখন থেকেই শুরু করতে হবে।’ হোম ইকনোমিকস কলেজে প্রথম কোনো রাজনৈতিক সভায় ছাত্রলীগের সহসভাপতি হিসেবে Aparna Paul দিদি মেয়েদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন।
হোম ইকনোমিকস কলেজে গুটিকয়েক ছাত্রলীগ অনুসারী ছোট বোনদের সাথে নিয়ে ২০০৮ সালে প্রথমবার ১৫ আগস্টের আলোচনা সভা করি আমরা।
১৯৬১ সালের পর থেকে বিভিন্ন সরকারের সময় উন্নয়নমূলক যত কাজই হোক না কেন, কখনোই কোনো প্রশাসন ১৫ আগস্ট, ২৬ মার্চ, ২১ ফেব্রুয়ারি এখানে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেনি, আর যেভাবে পালিত হয়েছে তা ছিল প্রহসনের শামিল। দিদিকে এসব জানিয়ে শুরু করলাম কলেজ ছাত্রলীগে মেয়েদের অংশগ্রহণ বাড়ানোর কাজ! পরিবর্তিত হতে থাকল আমার চিন্তা চেতনা। সেই সাথে রাজনৈতিক চর্চা শুরু হলো আমার।
প্রিয় অপর্না দি’র হাত ধরে ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে পথচলা শুরু করেছিলাম, আজও চলছি। মূলত নারী নেতৃত্বে এবং ছাত্র রাজনীতির জগতে অপর্না দি’র ত্যাগ তিতিক্ষা এবং সংগ্রামের কথা জানে না এমন ছাত্রলীগ কর্মী খুব কমই আছে।
আজ যারা ছাত্র রাজনীতিতে আগ্রহী হয়েছেন এবং পরিচিতি পেয়েছেন তারা অনেকেই দিদির কর্মী ছিলেন। আমরা যখন সবাই প্রচারে ব্যতিব্যস্ত তখন, প্রচারের চেয়ে আর্দশিক রাজনীতিকেই প্রাধান্য দিতে দেখেছি দিদিকে। আওয়ামী লীগ যখন বিরোধীদলে ছিল ওই কঠিন সময়ে জেল জুলুমের শিকার দিদিকে আমরা রাজপথের নির্ভীক ছাত্র নেত্রী হিসেবেই দেখেছি; যা ওই সময়ের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্রছাত্রী সবারই জানা।
মাত্র ২য় বর্ষে বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হলের সেক্রেটারি হিসেবে ছাত্র রাজনীতিতে পদার্পণ করেন দিদি। এরপর রিপন ভাই ও রোটন ভাইয়ের সময় কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি হয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে অসাধারণ ভূমিকা রাখেন। এরপর থেকে দিদি বহির্বিশ্বে বাংলাদেশ ও দলের পক্ষে নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন নিজ মেধা গুণে। বর্তমানে তিনি কানাডা হাইকমিশনে কর্মরত আছেন।
আজকাল যখন গ্রুপিং রাজনীতিতে রাজনৈতিক সৌহার্দ্য আটকে যাচ্ছে সেখানে দিদি ওই সময় গ্রুপিংয়ের উর্ধ্বে উঠে রাজনৈতিক চর্চায় সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতেন। এখন বাংলাদেশ ছাত্রলীগে নারীর অংশগ্রহণ বেড়েছে, নারী নেতৃত্বে ছাত্রী বোনদের আগ্রহ বেড়েছে। এমন নারী ব্যক্তিত্বের সংগ্রামী রাজনৈতিক ইতিহাস সম্পর্কে কিছুটা হলেও অবগত হলে রাজনীতিতে মেধাবী মেয়েদের আগ্রহ বাড়বে।
জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার স্নেহধন্য প্রচারবিমুখ দিদিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছবিতে দেখে তাই সত্যিই খুব ভালো লেগেছে। দিদি আপনি হাজার বছর বেঁচে থাকুন এবং জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার পাশে আপনাকে সবসময়ই দেখতে চাই।
নারীর ক্ষমতায়নে দেশরত্ন শেখ হাসিনা সারা বিশ্বে এবং দক্ষিণ এশিয়ায় রোল মডেল। নারীর পদযাত্রায় এগিয়ে যাবে নবপ্রজন্ম। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ।
ফারজানা আক্তার সুপর্ণার ফেসবুক থেকে…
বিবার্তা/নিশি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com