ভাস্কর্যের বিরোধীতা বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা : ঢাবি নীল দল
প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:২২
ভাস্কর্যের বিরোধীতা বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা : ঢাবি নীল দল
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী চিহ্নিত ধর্মব্যবসায়ী গোষ্ঠী কর্তৃক ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননার প্রতিবাদে বিবৃতি দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আওয়ামী লীগ-সমর্থক শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল।


সংগঠনটির নেতারা বলছে, ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে অত্যন্ত সুকৌশলে বঙ্গবন্ধুকে অবজ্ঞা প্রদর্শন এবং বাংলাদেশের বর্তমান শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক পরিবেশকে বিঘ্নিত করা-ই তাদের মূল লক্ষ্য।


বুধবার (২ ডিসেম্বর) সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক ড. মো. আব্দুস ছামাদ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতি বলা হয়, সম্প্রতি রাজধানীর ধোলাইপাড়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণকে কেন্দ্র করে একটি ধর্ম ব্যবসায়ী সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ধর্মীয় উস্কানীমূলক এবং বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে অতীতের মত দেশকে অস্থিতিশীল করার হীন চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর প্রাক্কালে উগ্র মৌলবাদীদের এ ধরনের আস্ফালনের উদ্দেশ্য অত্যন্ত পরিস্কার। ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে অত্যন্ত সুকৌশলে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশর মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবজ্ঞা প্রদর্শন এবং বাংলাদেশের বর্তমান শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক পরিবেশকে বিঘ্নিত করা-ই তাদের মূল লক্ষ্য।


বিবৃতি আরো বলা হয়, ভাস্কর্য অত্যন্ত প্রাচীন শিল্পরীতি যা সভ্যতার প্রাথমিক যুগ থেকে চর্চিত হয়ে আসছে। বাংলাদেশেও মহান স্বাধীনতার ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে ধারণ করে বহু ভাস্কর্য ও ম্যুরাল নির্মিত হয়েছে। চলমান ও প্রতিষ্ঠিত একটি শিল্পরীতিকে মূর্তির সাথে তুলনা করে এদেশের ধর্মপ্রাণ মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টার পেছনে যে ধর্মীয় রাজনৈতিক গোষ্ঠীর হীন স্বার্থ নিহিত রয়েছে তা অনুমেয়। এ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হয় যে, আগামী প্রজন্মকে জাতির পিতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে না দেয়ার জন্য দেশবিরোধী মহল একটি গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এটি করতে যেয়ে যেভাবে হুমকি-ধামকি দেয়া হচ্ছে তাতে করে মহান মুক্তিযুদ্ধে তাদের বর্বরতার কদর্য চেহারাই জাতির সামনে পুনর্বার উন্মোচিত হয়েছে।


‘অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের ধারক ও বাহক বাংলাদেশের জনগণকে ধর্মীয় দোহাই দিয়ে পাকিস্তান শাসনামলে যেমন বোকা বানানো যায়নি, তেমনি ভবিষ্যতেও যাবে না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে নীতি ও আদর্শের ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে পাকিস্তানের কবল থেকে বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছিলেন সে রাষ্ট্রে পাকিস্তানী আদর্শের ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর আস্ফালন সহ্য করা হবে না। আমরা এ ধরনের হীন প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।’


বিবৃতিতে বলা হয়, শিক্ষক সমাজ অতীতেও এ ধরনের চক্রান্তের বিরুদ্ধে যেভাবে সোচ্চার থেকেছে, তেমনি বর্তমানেও তাদের চক্রান্তকে নস্যাৎ করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। একই সাথে আমরা এ ধরনের উগ্র মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী কর্তৃক ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে জাতির পিতাকে অবমাননার দায়ে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।


প্রসঙ্গত, সোমবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নীল দলে এক সাধারণ সভা বিজনেস ফ্যাকাল্টি অনুষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী চিহ্নিত ধর্মব্যবসায়ী মৌলবাদী ধর্মান্ধ গোষ্ঠী কর্তৃক ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননা করার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে এই বিবৃতি প্রদান করা হয়েছে।


বিবার্তা/রাসেল/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com