ঢাবির ৮ জনসহ বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিলেন ৪৩ সাতারু
প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৯:১৬
ঢাবির ৮ জনসহ বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিলেন ৪৩ সাতারু
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বঙ্গোপসাগরে বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিলেন দুই নারীসহ ৪৩ জন সাঁতারু। এতে বিদেশি সাতারুসহ এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক সাঁতারু অংশ নিয়েছেন।


সোমবার (৩০ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার শাহ্‌ পরীর দ্বীপ জেটি থেকে সাঁতার শুরু করেন সাঁতারুরারা।


এদিকে, ১৫তম এই আসরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সুইমিং টিমও অংশ নিয়েছে। আট সদস্যের এই দলে রয়েছেন মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম রাসেল, লেদার প্রোডাক্টস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. নাজমুল হোসাইন, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রওনক ইসলাম, সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী তানবীর-উল-ইসলাম, চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম তপু, আইন অনুষদের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. আবু বক্কর সিদ্দিক, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবাদুল ইসলাম এবং উর্দু বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. রেজাউল করিম।


বঙ্গোপসাগরের বাংলা চ্যানেলের ১৬ কিলোমিটার পথ সাঁতরে সাঁতারুদের পৌঁছাতে হবে সেন্ট মার্টিন দ্বীপের জেটিতে। ১৫তম বাংলা চ্যানেল সাঁতারের আয়োজক 'ষড়জ অ্যাডভেঞ্চার ও এক্সট্রিম বাংলা’।


'ষড়জ অ্যাডভেঞ্চার ও এক্সট্রিম বাংলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লিপটন সরকার জানান, প্রতি বছরের মতো এবারও বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। গত মার্চে এই প্রতিযোগিতা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে তখন আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। এবার চ্যানেল সাঁতারের আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনে এই আয়োজন করা হচ্ছে। সাঁতারুরা ফ্রি হ্যান্ড সুইমিং করবেন। নিরাপত্তার জন্য প্রত্যেক সাঁতারুর সঙ্গে একটি করে উদ্ধারকারী নৌকা থাকবে। এ ছাড়া থাকবে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের সার্ভিস বোট, জরুরি নৌকা ও ডুবুরিরা।


এবারের বাংলা চ্যানেল সাঁতারে বেশ কিছু রেকর্ড হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ৬৮ বছর বয়সী সাঁতারু ক্ষিতিন্দ্র চন্দ্র বৈষ্য এই সাঁতারে অংশ নিচ্ছেন। সফল হলে তিনিই হবেন বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া সবচেয়ে বয়স্ক সাঁতারু। এখন পর্যন্ত এ রেকর্ডের অধিকারী ঢাকার সাঁতারু মিজানুর রহমান। তিনি ২০১৯ সালে ৬৭ বছর বয়সে এই চ্যানেল পাড়ি দিয়েছিলেন। এবার তিনি অংশ নিচ্ছেন না।


২০০৬ সাল থেকে গত বছর পর্যন্ত টানা ১৪ বার এই চ্যানেল পাড়ি দেন লিপটন সরকার। এ বছর পাড়ি দিলে টানা ১৫ বারের রেকর্ড করবেন তিনি। এবারের ৪৩ সাঁতারুর মধ্যে ১ জন বিদেশি, ২ জন নারী ও ২ জন পুলিশ কর্মকর্তাও রয়েছেন। গত বছর ৩১ সাঁতারু বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেন।


এবারের বাংলা চ্যানেল সাঁতারের সহ-আয়োজক বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন ও পর্যটন বোর্ড। প্রধান পৃষ্ঠপোষক ফরচুন গ্রুপ, পৃষ্ঠপোষক ভিসা থিং ও এনসিসি ব্যাংক। অংশীদার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, স্টুডিও ঢাকা ও ষড়জ। রেসকিউ পার্টনার বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।


অ্যাডভেঞ্চার গুরুখ্যাত প্রয়াত কাজী হামিদুল হক সমুদ্র সাঁতারের উপযোগী বঙ্গোপসাগরের এই বাংলা চ্যানেল আবিষ্কার করেন। ২০০৬ সালে প্রথমবার বাংলা চ্যানেল সাঁতরে পাড়ি দেন লিপটন সরকার, ফজলুল কবীর ও সালমান সাঈদ।


বিবার্তা/রাসেল/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com