শেষ টেস্টে শান্ত-মোস্তাফিজ নাকি বিজয়-শরিফুল
প্রকাশ : ২৩ জুন ২০২২, ২২:১৪
শেষ টেস্টে শান্ত-মোস্তাফিজ নাকি বিজয়-শরিফুল
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

অ্যান্টিগা টেস্টে ইনিংসে হারের দ্বারপ্রান্ত থেকে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটে ইনিংসে হার এড়িয়ে উল্টো লিড দেয় বাংলাদেশ। তাতে অবশ্য খুব একটা লাভও হয়নি। জয়ের জন্য ব্যাট করতে নামা উইন্ডিজের দ্রুত ৩ উইকেট নেওয়া গেলেও শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে জয় পায় স্বাগতিকরা।


অপেক্ষা এবার সেইন্ট লুসিয়া টেস্টের। আগামীকাল শুক্রবার (২৪ জুন) থেকে ড্যারেন স্যামি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ‘পদ্মা ব্রিজ-ড্রিম ফুলফিল্ড ফ্রেন্ডশিপ’ টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচ।


১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ প্রথম টেস্টে যে দল হিসেবে ভালো খেলতে পারেনি সেটি স্পষ্ট। টপ-অর্ডারের ব্যর্থতায় ভুগতে হয়েছে গোটা দলকে।


ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ছয়জন ব্যাটারের ‘ডাক’ বেশ প্রশ্নবিদ্ধ করেছে দলকে। এই ছয়জনে রয়েছেন মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক ও নুরুল হাসান সোহান।


তবে দ্বিতীয় ইনিংসে মাহমুদুল হাসান জয় ৪২ ও নুরুল হাসান ৬৪ রানের কার্যকর ইনিংস খেললেও ব্যর্থ হন নাজমুল হোসেন শান্ত (১৭) ও মুমিনুল হক (৪)।


প্রথম টেস্ট শেষে প্রশ্ন ওঠে মুমিনুলের একাদশে থাকা নিয়ে। অধিনায়কত্বে চাপে রান করতে ভুলে যাওয়া মুমিনুল ছেড়েছেন নেতৃত্বও। তাই এখনই হয়তো ছুড়ে ফেলা হবে না দল থেকে।


এ ক্ষেত্রে সেইন্ট লুসিয়া টেস্ট থেকে বাদ পড়তে পারেন নাজমুল হোসেন শান্ত। কেননা, টেস্ট দলের বাইরে থাকা এনামুল হক বিজয়কে হুট করেই দলে যোগ করা তারই ইঙ্গিত দেয়। ২০১৪ সালে সেন্ট লুসিয়ার এই মাঠেই সব শেষ টেস্ট খেলা বিজয় করেছিলেন ৯ আর শূন্য রান।


এদিকে অ্যান্টিগা টেস্ট দিয়ে দীর্ঘ ১৬ মাস পর সাদা পোশাকের লড়াইয়ে ফেরা মোস্তাফিজ খারাপ করেননি। প্রথম ইনিংসে ১৮ ওভারে (৭ মেডেন) ৩০ রান দিয়ে নেন ১টি উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ ওভারে ১ মেডেন নিলেও পাননি উইকেট। তবে টেস্ট ক্রিকেটে অনিয়মিত মোস্তাফিজের জন্য টানা দুটি ম্যাচ চাপ হয়ে যাবে কী না সেটিও দেখার বিষয়।


এক্ষেত্রে আরেক পেসার শরিফুল ইসলামকে হুট করেই দেশ থেকে উড়িয়ে নেয়া হয়েছে সেইন্ট লুসিয়ায়। তাই বলাই যায়, মোস্তাফিজকে টানা টেস্ট ম্যাচের ধকল না দিয়ে একাদশে যোগ করা হতে পারে শরিফুল ইসলামকে।


অ্যান্টিগা টেস্টে বেশ দুর্দান্ত ছিল বোলাররা। পেসার খালেদ আহমেদ নেন ২ ও ৩ উইকেট, এবাদত হোসেন নেন ২টি, সাকিব আল হাসান নেন ১টি ও মেহেদী হাসান মিরাজ নেন ৪ উইকেট।


সেইন্ট লুসিয়া টেস্টের সম্ভাব্য একাদশ: তামিম ইকবাল, মাহমুদুল হাসান জয়, এনামুল হক বিজয়, মুমিনুল হক, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নুরুল হাসান (উইকেট-রক্ষক), মেহেদী হাসান, শরিফুল ইসলাম, এবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদ।


বিবার্তা/এমএইচ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com