পোশাকই এবার প্রতিবাদ—‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’
প্রকাশ : ২৮ মে ২০২২, ০৮:৪৮
পোশাকই এবার প্রতিবাদ—‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

নরসিংদীর রেলস্টেশন এলাকায় জিন্স ও টপস পরায় তরুণীকে মারধরের ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন সংগঠনের ২০ জন সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে এক মৌন প্রতিবাদ করেছেন গতকাল ২৭ মে, শুক্রবার। প্রতিবাদে এইযাত্রার নাম তাঁরা দিয়েছেন ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’।মূলত শান্তিপূর্ণভাবে জনপরিসরে শরীর ও পোশাকের স্বাধীনতার জায়গা পুনরুদ্ধারেই তাদের এ যাত্রা।


শুক্রবার (২৭ মে) সকালে ঢাকা থেকে দলটি নরসিংদী স্টেশনে যায় বলে জানিয়েছেন অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের সভাপতি তৃষিয়া নাশতারান। তিনি বলেন, “গত ১৮ মে নরসিংদী স্টেশনে একজন নারী পোশাকের কারণে কুৎসিত আক্রমণ ও সহিংসতার শিকার হন। আমরা তার পাশে দাঁড়াতে চেয়েছি। তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের প্রতিক্রিয়া হিসেবে আজ আমরা ২০ জন গিয়েছিলাম নরসিংদী স্টেশনে।” আরও বলেন, “আমরা জায়গাটা ও সেখানকার মানুষগুলোকে দেখতে গেছি, তাদের সঙ্গে মানবিক যোগাযোগ স্থাপন করতে গিয়েছি। আমাদের উদ্দেশ্য ছিল শান্তিপূর্ণভাবে জনপরিসরে শরীর ও পোশাকের স্বাধীনতার জায়গা রিক্লেইম করা। আমাদের বৈচিত্র্যময় শারীরিক উপস্থিতিই আমাদের বক্তব্য।”


অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের সভাপতি আরও বলেন, “পরিচয়ে আমরা মানুষ, নারীবাদী, শিল্পী, সংগঠক, নাট্যকর্মী, চলচ্চিত্র নির্মাতা, আলোকচিত্রী, গবেষক, উন্নয়নকর্মী, প্রকৌশলী এবং আরও অনেক কিছু।”


২০ জনের যে দলটি নরসিংদী রেলস্টেশনে গিয়েছিলেন, তারা হলেন- তৃষিয়া, সুরভী, এ্যানি, আনোয়ার, অর্ণব, নুভা, মম, অপরাজিতা, সামিহা, সানজানা, স্মিতা, লক্ষ্মী, অন্তরা, মিশু, প্রমি, জিসা, নিশা, বিজু, ইফফাত, নীল। তাঁরা কোন সংগঠনের সদস্য, জানতে চাইলে তৃষিয়া বলেন, “এখানে আমরা বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। আজকের প্রতিবাদটিতে যারা অংশগ্রহণ করেছেন, তারা অগ্নি ফাউন্ডেশনের নারীবাদী গ্রাসরুটস অর্গানাইজিং প্ল্যাটফর্ম মেয়ে নেটওয়ার্কের মাধ্যমে যুক্ত। অগ্নিযাত্রা অগ্নি আমাদের স্টোরিটেলিং প্রকল্প। আমাদের ঢাকা-নরসিংদী যাত্রা সেটারই একটা অংশ।”


“অশালীন পোশাক পরার অপবাদে” গত ১৮ মে বেলা ১১টার দিকে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে ঢাকা থেকে বেড়াতে আসা এক তরুণীকে লাঞ্ছিত করা হয়। ঘটনার একদিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর বিষয়টি সামনে আসে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, ওই তরুণীকে টানা-হেঁচড়া করছে এক নারী ও কয়েকজন যুবক। এক তরুণ মেয়েটিকে আগলে রাখার চেষ্টা করছে। এক পর্যায়ে কয়েকজন লোকের সহায়তায় মেয়েটি দৌড়ে স্টেশন মাস্টারের কক্ষে ঢুকে যান। এরপর ঘরের কলাপ্সিবল গেট টেনে দেয় এক লোক।


ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাতে রেলস্টেশন এলাকায় সদর থানা ও ডিবি পুলিশের চালানো যৌথ অভিযানে ইসমাইল হোসেন নামে এক যুবককে স্টেশন এলাকা থেকে আটক করা হয়। ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করার পর তা দেখে ইসমাইলকে আটক করে পুলিশ। পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাটি তদন্তে মাঠে নেমেছে।



নরসিংদী রেলস্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন মাস্টার এ টি এম মুছা জানান, 'শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে নামেন তরুণীরা। তখন আমি বসে ছিলাম রেল সিগন্যাল মাস্টারের কক্ষে। এ সময় তারা এসে জানান যে তারা বিভিন্ন সংগঠনের সদস্য। হেনস্তার ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে তারা এসেছেন। তারা ওই তরুণীর হেনস্তার ঘটনার বিষয়ে আমাদের সঙ্গে কথা বলেন। আমরা তাদের সঙ্গে ছবিও তুলেছি। স্টেশনে থাকা লোকজনদের সঙ্গে তারা কথা বলেন। আমিও বেশ কিছুক্ষণ সময় দিয়েছি।’ স্টেশন মাস্টার জানান, বেলা ১১টায় উপকূল ট্রেনে চড়ে ঢাকায় চলে যায় দলটি। ফেসবুক থেকে জানা গেছে, অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ নামে একটি সংগঠনের সভাপতি তৃষিয়া নাশতারানের উদ্যোগে ২০ জনের দলটি সেখানে ঘুরেছে। সঙ্গে কয়েকজন তরুণও ছিলেন।


ওই দলের সদস্য অপরাজিতা সংগীতা তার ফেসবুক আইডিতে দেয়া পোস্টে লিখেছেন, ‘নরসিংদী স্টেশনে একজন নারী পোশাকের কারণে কুৎসিত আক্রমণ ও সহিংসতার শিকার হন গত ১৮ মে। আমরা তার পাশে দাঁড়াতে চেয়েছি। তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের প্রতিক্রিয়া হিসেবে আজ (২৭ মে) আমরা ২০ জন গেছিলাম নরসিংদী স্টেশনে।'


যে পোশাক নিয়ে হেনস্তা করা হয়েছে নারীকে, সে পোশাককেই প্রতিবাদ হিসেবে বেছে নিয়েছে এবার নারীরা। রক্ষণশীল মানুষের চিন্তাধারা পরিবর্তনে এই মৌন প্রতিবাদ সফল হবে বলে মনে করছে প্রতিবাদী দলটি।


বিবার্তা/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com