ক্যাম্পাসগুলোতে ছাত্রলীগ ছাড়া অন্যকেউ স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না: খোকন
প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৩৫
ক্যাম্পাসগুলোতে ছাত্রলীগ ছাড়া অন্যকেউ স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না: খোকন
জাহিদ বিপ্লব
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেছেন, ক্যাম্পাসগুলোতে ক্ষমতাসীনদের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ছাড়া অন্যকোনো ক্রিয়াশীল ছাত্রসংগঠনকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেয়া হচ্ছে না। তিনি বলেন, সরকারদলীয় ছাত্রসংগঠন ছাড়া অন্যসকল ছাত্রসংগঠনের কণ্ঠরোধ করে দমিয়ে রাখার অপচেষ্টা করা হচ্ছে।


বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে ছাত্রদলের নয়াপল্টন কার্যালয়ে বিবার্তার সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব অভিযোগ করেন। সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেন বিবার্তার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জাহিদ বিপ্লব। বিবার্তা পাঠকদের কাছে সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হলো।


বিবার্তা: বিদ্যমান ছাত্র রাজনীতির প্রেক্ষাপট নিয়ে আপনার মূল্যায়ন কি?


ফজলুর রহমান খোকন: আসলে দেশ ও জনগণের মৌলিক অধিকার নিয়ে ছাত্রসমাজ সবসময়ই সোচ্চার ছিলো। কিন্তু বর্তমান সময়ে দেখতে পাচ্ছি দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ ক্যাম্পাসগুলোতে সরকারদলীয় ক্ষমতাসীনদের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ছাড়া অন্যকোনো ক্রিয়াশীল ছাত্রসংগঠনকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেয়া হচ্ছে না। এমনকি ছাত্রদের অধিকার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে ক্যাম্পাসে মিছিল সমাবেশ করলে ছাত্রলীগের হামলার শিকার হতে হচ্ছে। পুলিশ দিয়ে মামলা ও গ্রেফতার করানো হয়। মোট কথা হচ্ছে সরকার দলীয় ছাত্রসংগঠন ছাড়া অন্যসকল ছাত্রসংগঠনের কণ্ঠ রোধ করে দমিয়ে রাখার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। প্রতিবাদ করা ছাত্রদের মৌলিক অধিকার। যা থেকে দেশের ছাত্রসমাজ আজ বঞ্চিত।


বিবার্তা: রাজপথে ছাত্রদলের সক্রিয় অবস্থানে দেখা গেলেও বেগম জিয়ার মুক্তি দাবিতে সুনির্দিষ্ট কোনো কর্মসূচি নেই কেনো?


ফজলুর রহমান খোকন: আমরা সব অন্যায়ের বিরুদ্ধেই সোচ্চার থাকি। ছাত্রদের বিভিন্ন অধিকার নিয়ে কাজ করছি। বৃহস্পতিবারও শাবিপ্রবিতে সাধারণ ছাত্রদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাবি ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছি। আসলে যেহেতু ছাত্রদল বিএনপির সহযোগী সংগঠন, তাই বিএনপির বিভিন্ন জনসম্পৃক্ত কর্মসূচিতে আমরা অংশগ্রহণ করি এবং আমরা শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে নিজেরাও কর্মসূচি দিয়ে থাকি। এ সরকারের ছাত্রলীগের পেটোয়া বাহিনী ও পুলিশি হামলা, অত্যাচার-নিপিড়নের কারণে আমাদের কর্মসূচিগুলো হয়ত অনেক ক্ষেত্রে পুরোপুরি সফলতা পায় না। কিন্তু আমাদের মূল লক্ষ্য হলো দেশনেত্রী ও গণতন্ত্রের মা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং বর্তমান স্বৈরাচারী সরকারের পতন।



বিবার্তা: দীর্ঘদিন ছাত্রদলের নেতৃত্বে থাকার পরও কেনো রাজধানীর মূল ইউনিট কলেজগুলোর কমিটি করতে পারেননি?


ফজলুর রহমান খোকন: একথা সত্য, ঢাকা শহরের যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া অন্যগুলো করতে পারি নাই। আসলে আপনি জানেন যে, করোনা ভাইরাস ভয়াবহ রূপ নেয়ায় প্রায় দেড়বছর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিলো। এই ভাইরাসের প্রকোপ এখনো অব্যাহত রয়েছে। মূলত এই কারণেই এই কলেজগুলোর কমিটি করতে দেরি হচ্ছে। বর্তমানে রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কমিটি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে তা প্রকাশ করা হবে।


বিবার্তা: বর্তমান কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হলেও এখনো কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দিতে পারেননি। বিষয়টি কি আপনাদের ব্যর্থতা নয়?


ফজলুর রহমান খোকন: আসলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কমিটি সমাপ্ত না করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। একটার সাথে একটা সম্পৃক্ত। দীর্ঘদিন জেলার অন্তর্গত যেসব উপজেলা, পৌরকমিটিসহ কলেজ কমিটি ছিলো না, মূলত আমরা সেগুলোকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছি। তবে, এ কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়ার ক্ষেত্রে আমাদের চেষ্টার কমতি ছিলো না। আবার অনেক কিছু আমাদের হাতে থাকে না। এখন আমরা রাজধানীর অসমাপ্ত কলেজ ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়ার কাজ করছি। আশা করি অচিরেই তা সফলতার মুখ দেখতে পারবে।


বিবার্তা: আপনার দৃষ্টিতে এ কমিটির সফলতা কি?


ফজলুর রহমান খোকন: এ কমিটির প্রথম প্রাপ্তি হচ্ছে দীর্ঘদিন পর ঢাবি ক্যাম্পাসে নিজেদের অবস্থান সক্রিয় করেছি। পরপর তিনদফা এই ক্যাম্পাসে আমাদের ওপর হামলা করা হয়েছে। তারপরও ঘুরে দাড়িয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান করে নিয়েছি। প্রতিদিনই সভা-সমাবেশ হচ্ছে। সারাদেশে জেলার অধীনে থাকা কলেজ, পৌর, উপজেলার প্রায় ১৬শ কমিটি করেছি। বর্তমানে আমাদের সারাদেশে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের তত্বাবধানে থানা ও উপজেলার অন্তর্ভূক্ত ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের কাজও প্রায় ৬০ শতাংশ শেষ হয়েছে। আমরা যদি এই চলমান প্রক্রিয়া শেষ করতে পারি তাহলে প্রায় ৫ লক্ষাধিক শিক্ষার্থী ছাত্রদলে নতুন করে পদায়িত হবে এবং এর মাধ্যমে তৃণমূল ছাত্রদল আরো শক্তিশালী হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।



বিবার্তা: বর্তমান ছাত্রদলের কমিটির কারো কারো বিরুদ্ধে কমিটি বাণিজ্যসহ নানা অভিযোগ রয়েছে, এসবের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক কোনো ব্যবস্থা নেননি কেনো?


ফজলুর রহমান খোকন: আসলে বিভিন্ন জেলা, থানা ও পৌর কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে আমরাও কিছু অভিযোগ পেয়েছি এবং তা তদন্ত করেও দেখেছি। কিন্তু এর কোনো ভিত্তি খুঁজে পাইনি। শুধুমাত্র অভিযোগের ভিত্তিতেই কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া যায় না।


বিবার্তা: ছাত্রদলের অনেক জেলা নেতাদের অভিযোগ- জেলা বিএনপির নেতাদের বলয় থেকে বের হতে পারছে না ছাত্রদল?


ফজলুর রহমান খোকন: বিএনপি আমাদের ফাদার সংগঠন। কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে তারা আমাদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। আমরা তাদের পরামর্শ নিয়ে অপেক্ষাকৃত যোগ্য, ত্যাগীদের নিয়েই জেলাসহ ইউনিট কমিটির নেতৃত্ব নির্ধারণ করে থাকি।


বিবার্তা: রাজপথে আপনাদের ভবিষ্যৎ পদক্ষেপ কি?


ফজলুর রহমান খোকন: রাজপথে বেগম জিয়ার মুক্তি এবং এই স্বৈরাচারী সরকারের পতনের দাবিতে আমরাতো আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি। এই দুটি আন্দোলনে আরো কঠোর কর্মসূচি দেয়ার লক্ষ্যে ছাত্রদল সাংগঠনিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে। পাশাপাশি সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ের বিষয়গুলো নিয়েও কর্মসূচি দিবে।



বিবার্তা: ছাত্রদলের পরবর্তী কমিটি নিয়ে আপনার প্রত্যাশা কি?


ফজলুর রহমান খোকন: আপনারা জানেন, ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ কাউন্সিলে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে আমি সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি। এটা সম্ভব হয়েছে তারুণ্যের অহংকার দেশনায়ক তারেক রহমানের যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের ফলে। স্বচ্ছ ব্যালট এবং সকলের সামনে ফলাফল গননা করা হয়েছে। যেহেতু আমরা কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত কমিটি। সেহেতু আমাদের প্রত্যাশা থাকবে এবং দাবিও বলতে পারেন- পরবর্তী কমিটি যেনো কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত কমিটি আসে।


বিবার্তা: বিবার্তাকে সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।


ফজলুর রহমান খোকন: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের পক্ষ থেকেও আপনাকে এবং বিবার্তা পরিবারকে ধন্যবাদ।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জহিরুল হক হল ছাত্রদল নেতা ছিলেন ফজলুর রহমান খোকন। পরে ঢাবি ছাত্রদল থেকে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নেতৃত্বে আসেন খোকন। খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে অর্ধশতাধিক মামলার আসামি হোন। চারবার গ্রেফতার হয়ে প্রায় ৮ মাস কারাবরণ করেন ফজলুর রহমান খোকন।


বিবার্তা/বিপ্লব/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com