বশেমুরবিপ্রবিতে বিশ্ব ও জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত
প্রকাশ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:২৫
বশেমুরবিপ্রবিতে বিশ্ব ও জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত
বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পালিত হয়েছে ৩১তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস ও ২৪তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস-২০২২।


‘অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের জন্য পরিবর্তনমুখী পদক্ষেপ: প্রবেশগম্য ও সমতাভিত্তিক বিশ্ব বিনির্মাণে উদ্ভাবনের ভূমিকা’ শীর্ষক প্রতিপাদ্যে বশেমুরবিপ্রবি প্রতিবন্ধী কল্যাণ সোসাইটি ও ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের (পিডিএফ) উদ্যোগে দিবসটি পালিত হয়।


দিবসটি উদযাপন উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচীর আয়োজন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিজিক্যালি ডিজেবলড শিক্ষার্থীরা।


শনিবার (৩ নভেম্বর) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ৫০৭ নম্বর রুমে এক বিশেষ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।


ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোছা. সানজিদা পারভিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিডিএফের ডেপুটি টিম লিডার মো. মিছবাহুল আলম।


বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পিডিএফের সভাপতি তানভীর আহমেদ তন্ময়, পিডিএফের অপারেশন ইন্টার্ন আবরার জাহিন রাইন।


এছাড়াও সংগঠনের উপদেষ্টা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো: শফিকুল ইসলাম ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো: এমদাদুল হক।



ফিজিক্যালি ডিজেবলড আইন বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সুকান্ত বলেন, "আগে মানুষ প্রতিবন্ধীমূলক কথা বললে খারাপ লাগতো কিন্তু এখন আর কেউ এসব বলার সাহস পায়না। কারণ আমরা এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো প্লাটফর্মে লেখাপড়া করি আর এটা হয়েছে আমাদের জ্ঞান ও বুদ্ধিমত্তার দ্বারা। আমরা পিছিয়ে পড়া মানুষ থেকে হাজার কোটি গুন মেধাবী। আমরাও এখন সব পারি তাই এখন আর নিজেকে প্রতিবন্ধী বলে মনে করিনা"।


উপদেষ্টা মন্ডলীর বক্তব্যে এমদাদুল হক বলেন, "আমি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতি খুবই সহানুভূতিশীল। আমি প্রভোস্টে নিয়োগ হয়ে সর্বপ্রথমেই একজন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে সিট দিয়েছিলাম। এবং পরিকল্পনা আছে খুব দ্রুতই প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য হল এর নিচ তলায় ২ টা রুম বরাদ্দ রাখবো"।


উপদেষ্টা শফিকুল ইসলাম বলেন, "তোমরা আসলে পিছিয়ে নেই। অনেক প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে তোমরা বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে এসেছো। আমার বিশ্বাস আরো বড় পর্যায়ে যাবে। আমি সবসময় তোমাদের সাথে আছি। যেকোনো প্রয়োজনে আমাকে পাবা"।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে মিছবাহুল আলম বলেন, "আমাদের পিডিএফ এর মূল উদ্দেশ্য হলো প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের স্কিল ডেভেলপমেন্ট করে তাদের সক্ষমতা অনুযায়ী চাকরির ব্যবস্থা করা"।


অনুষ্ঠানে সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সানজিদা পারভিন বলেন, "প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের যেভাবে সুযোগ সুবিধা দেওয়া দরকার আমরা সেভাবে দিতে পারিনা। তবে এখন থেকে সকল সুযোগ সুবিধা আরো বাড়ানোর জন্য আমরা উপাচার্যের সাথে মিটিং করবো।" যোগ্যতা থাকলে তারাও যেন নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার সুযোগ পায় এমন মন্তব্যও করেন তিনি।


বিবার্তা/অহনা মজুমদার/বিএম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com