ডিএনসিসিতে এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ৭ লাখ টাকা জরিমানা
প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর ২০২২, ১৯:১৮
ডিএনসিসিতে এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ৭ লাখ টাকা জরিমানা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সপ্তাহব্যাপী বিশেষ মশক নিধন অভিযানের অংশ হিসেবে ৫ম দিনের অভিযানে এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ৮ মামলায় ৬ লাখ ৯৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়াও রাস্তা ও ফুটপাতে মালামাল রেখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় ৫ মামলায় সাড়ে ২১ টাকা জরিমানা আদায় করেন।


২৩ অক্টোম্বর, রবিবার বিকেলে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা মকবুল হোসাইন এসব তথ্য জানান।


মকবুল হোসেন বলেন, ডিএনসিসির ১০টি অঞ্চলে একযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালনা করা হবে।


মকবুল হোসেন জানান, ডিএনসিসির অঞ্চল-৪ এর আওতাধীন ১৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব কাফরুল এলাকায় আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবেদ আলী এই অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে প্রায় ৮০টি ভবন, স্থাপনা, জলাশয়, রেষ্টুরেন্ট ও দোকানপাট পরিদর্শন করা হয়েছে। ফুটপাত ও রাস্তায় মালামাল রেখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় ৪টি মামলায় ১১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। একটি বাড়িতে লার্ভা পওয়ায় ১টি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।


তিনি আরও বলেন, অঞ্চল-২ এর আওতাধীন মিরপুর মডেল থানা এলাকায় আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউর রহমান অভযান পরিচালনা করেন। অভিযানে লার্ভা পাওয়ায় ১টি মামলায় ১০ হাজার হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।


ডিএনসিসির অঞ্চল-৫ এর আওতাধীন মনসুরাবাদ হাউজিং এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বীর আহমেদ এডিস মশার প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে বিশেষ মশক নিধন অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। অভিযান প্রসঙ্গে তিনি জানান, অভিযানে তিনটি বাড়িতে এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ৩টি মামলায় ৬ লাখ জরিমানা আদায় করা হয়েছে।


অন্যদিকে অঞ্চল-১ এর আওতাধীন খিলক্ষেত এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জুলকার নায়ন অভিযান পরিচালনা করেন। তিনি বলেন, অভিযান পরিচালনার সময় বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবনে, ফাঁকা প্লট, ড্রেন ঝোপঝাঁড়ে কিউলেক্স মশক বিরোধী অভিযান ও সমন্বিততভাবে এডিশ বিরোধী অভিযানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৩টি মামলায় মোট ৮০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ফুটপাতে নির্মাণ সামগ্রী রেখে জনসাধারণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় অন্য ১টি মামলায় আরও ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।


অঞ্চল-৯ এর আওতাধীন সাতারকুল এলাকায় আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউল বাসেত অভিযান পরিচালনা করেন। এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ১টি মামলায় ৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয় এবং ১টি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।


এছাড়াও সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ডিএনসিসির দশটি অঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে লিফলেট বিতরণ করে এবং মাইকিং করে জনসাধারণকে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সচেতন করেন। ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকতা ব্রিগে. জেনা. মো. জোবায়দুর রহমান এবং উপ-প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকতা লে. কর্ণেল মো. গোলাম মোস্তফা সারওয়ার কয়েকটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন।


বিবার্তা/রিয়াদ/এসএফ


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com