কথা বলার চেষ্টা মিন্নির, মুখ চেপে ধরল পুলিশ
প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০১৯, ০৮:৪২
কথা বলার চেষ্টা মিন্নির, মুখ চেপে ধরল পুলিশ
বরগুনা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বরগুনার রিফাত হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি। শুক্রবার (১৯ জুলাই) বরগুনার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তিনি। পরে আদালত থেকে বের করে গাড়িতে তোলার সময় মিন্নি কিছু একটা বলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পাশে থাকা নারী পুলিশ সদস্য তার মুখ চেপে ধরেন। বিষয়টি এখন সর্বত্র নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।


এদিন দুপুর ২টার দিকে আদালতে তোলা হয় রিফাত শরীফর হত্যাকাণ্ডের ১ নম্বর সাক্ষী ও তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে। বিকেল ৫টা থেকে ৭টা পর্যন্ত আদালতে জবানবন্দি দেন তিনি।


এর আগে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে বরগুনার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণে আসেন মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর। সেখানে তিনি ‘নির্যাতন ও জোরজবরদস্তি’ করে তার মেয়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়া হয়েছে বলে দাবি করেন।


তিনি অভিযোগ করেন, ভয়ভীতি দেখিয়ে তার মেয়ের কাছ থেকে সাজানো জবানবন্দি আদায় করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তার মেয়ে কোনোভাবেই জড়িত নয়।


কিশোর বলেন, ঢাকা থেকে আইনজীবীরা আসবেন শুনে পুলিশ নির্যাতন করে তড়িঘড়ি আমার মেয়েকে দিয়ে মিথ্যা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করিয়েছে। এর মাধ্যমে প্রকৃত সত্যকে আড়াল করার চেষ্টা হয়েছে। আমি আইনি লড়াই করে সত্যটা বের করব ইনশাল্লাহ। আমার মেয়ে জীবনবাজি রেখে তার স্বামীকে রক্ষা করতে গেছে। এটাই তার অপরাধ? এসব কিছুই শম্ভু বাবুর (স্থানীয় সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু) খেলা। তার ছেলে সুনাম দেবনাথকে বাঁচাতে আমাদের বলি দেয়া হচ্ছে।


তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওসি মো. হুমায়ুন কবির বলেন, পাঁচ দিনের জন্য হেফাজতে নেয়া হলেও মিন্নির কাছে আমাদের যা জানার ছিল, তা জানা হয়ে গেছে। তাই শুক্রবারই তাকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে মিন্নি কী বলেছেন, সে সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না।


২৬ জুন প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যার সময় স্বামীকে বাঁচাতে মিন্নির চেষ্টারে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর ঘটনাটি আলোড়ন সৃষ্টি করে। পরদিন শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ ১২ জনকে আসামি করে মামলাটি করেন। তাতে মিন্নিকেই প্রধান সাক্ষী করা হয়।


এরপর (১৩ জুলাই) শনিবার মিন্নির শ্বশুর তার ছেলে রিফাত হত্যাকাণ্ডে মিন্নি জড়িত বলে এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি মিন্নিকে গ্রেফতারের দাবি করেন। এর থেকেই রিফাত হত্যা মামলাটি নতুন মোড় নেয়।



বিবার্তা/রবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com