ফুলবাড়ীতে ঈদ শেষে কর্মক্ষেত্রে ফিরা মানুষের ভোগান্তি
প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৯, ১৬:১৪
ফুলবাড়ীতে ঈদ শেষে কর্মক্ষেত্রে ফিরা মানুষের ভোগান্তি
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে কর্মজীবী মানুষদের। সোমবার দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ঢাকাগামী কোট কাউন্টারে গিয়ে দেখা যায় কর্মস্থলে ফিরা মানুষের ভোগান্তি।


কর্মস্থলে ফিরা কর্মজীবী মানুষেরা জানায়, মূল দামের দ্বিগুণ টাকা দিয়েও পাওয়া যাচ্ছে না বাসের টিকিট, আর রেলের টিকিট পাওয়া মানে যেন সোনার হরিণ পাওয়ার মত।


তবে বাস কাউন্টারের ম্যানেজার অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার কথা অস্বীকার করেছেন।


হানিফ এন্টার প্রাইজের ম্যানেজার আজিজার রহমান বলেন, এই কাউন্টার থেকে প্রতিদিন দিন-রাত ২০টি বাস ছেড়ে যায়, ঈদ উপলক্ষে প্রতিদিনের জন্য আরো ৫টি বাস অতিরিক্ত নামানো হয়েছে, তবুও যাত্রী চাহিদা পূরণ করা যাচ্ছে না। একই অবস্থা, নাবীল, শ্যামলী, রাহবারসহ অন্যান্য বাস কাউন্টার গুলোতে। এতেই যাত্রীদের ভোগান্তী বাড়ছে বলে জানান তিনি।


বাস কাউন্টার গুলো জানায় পর্যায় ক্রমে ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসলেও ঈদের ছুটি শেষ হয় একই সাথে যার ফলে এই ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে।


এদিকে ফুলবাড়ী রেলওয়ে ষ্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, ১৩ তারিখ পর্যন্ত টেনের টিকিট আগাম বিক্রি হয়ে গেছে।


ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনের টিকিট মাস্টার সোহাগ বলেন, ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে যে পরিমাণ টিকিট বরাদ্ধ রয়েছে, চাহিদা রয়েছে তার দ্বিগুণ। ঈদ এসে এই চাহিদা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে, যার ফলে যাত্রীদের চাহিদা অনুযায়ী টিকিট দেয়া যাচ্ছে না।



এদিকে ফুলবাড়ী উপজেলার গুরুত্ব বিবেচনা করে ফুলবাড়ী রেলওয়ে ষ্টেশনের টিকিট বরাদ্ধ বৃদ্ধি করার দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সচেতন মহল।


ফুলবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিলটন বলেন, ফুলবাড়ী উপজেলাটি যেহেতু যোগাযোগের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা, সেহেতু এই ষ্টেশনে টিকিট বরাদ্ধ বৃদ্ধি করার জন্য দাবী জানান তিনি।


সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি বলেন, নিলফামারী জেলার সৈয়দপুরে ট্রেনের টিকিট বেশি বরাদ্ধ থাকলেও ফুলবাড়ীতে নেই। তাই তিনি ফুলবাড়ীর গুরুত্ব বিবেচনা করে রেলের টিকিট বৃদ্ধি করার আহবান জানান তিনি।


উল্লেখ্য, ফুলবাড়ী উপজেলাটি যোগাযোগের ক্ষেত্রে দিনাজপুর জেলার একটি অন্যতম উপজেলা। এই উপজেলা দিয়ে যাতায়াত করে ফুলবাড়ীসহ ফুলবাড়ী উপজেলার পার্শ্ববর্তী পার্বতীপুর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ, চিরিরবন্দরসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসীন্দারা। এছাড়া বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি, বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও মধ্যপাড়া কঠিনশীলা প্রকল্পর মত গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প, সেখানকার কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং উত্তরাঞ্চলের সর্ববৃহৎ বিনোদন কেন্দ্র স্বপ্নপুরীর দর্শনার্থীরা এই ফুলবাড়ী উপজেলা দিয়ে যাতায়াত করে। যার ফলে ফুলবাড়ী রেলওয়ে ষ্টেশন ও বাস কাউন্টার গুলোতে সারা বছরে যাত্রীদের ভিড় লেগে থাকে, ঈদের ছুটিতে এই ভিড় আরো ব্যপকভাবে বৃদ্ধিপায়।


বিবার্তা/মেহেদী/তাওহীদ/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com