নবজাতকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেলেন মা
প্রকাশ : ২৮ মে ২০১৯, ১১:০৯
নবজাতকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেলেন মা
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চারদিনের নবজাতক কন্যা শিশুকে রেখে পালিয়ে গেছেন মা।


২১ মে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ওই শিশুটির জন্ম হয়। শিশুটি এখন হাসপাতালের নবজাতক ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।


হাসপাতালের নবজাতক ইউনিটের ইনচার্জ মাহফুজা বেগম বলেন, মানসুরা পরিচয়দানকারী প্রসূতি ওই নারী ২১ মে শেবাচিম হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি হন। এ সময় সঙ্গে তার কয়েকজন স্বজনও ছিলেন। প্রসবজনিত জটিলতা হওয়ায় ওই দিনই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি।


তিনি বলেন, জন্মের পর অসুস্থ থাকায় নবজাতককে হাসপাতালের নবজাতক ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। অপরদিকে মা গাইনি ওয়ার্ডে ছিলেন। কিন্তু রবিবার খবর নিয়ে জানা যায় যে মানসুরা নামের প্রসূতি গাইনি ওয়ার্ডে নেই। এরপর তাঁকে খুঁজে না পাওয়ায় বিষয়টি জানাজানি হয়।


মাহফুজা বেগম বলেন, মানসুরা নামের ওই নারী হাসপাতালে ভর্তির নথিতে তার গ্রামের বাড়ির ঠিকানা লিখেছিলেন বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার মীরগঞ্জ গ্রাম। তবে তার দেয়া ওই ঠিকানায় অনুসন্ধান করে এর অস্তিত্ব পায়নি হাসপাতালের সমাজসেবা অফিস। তবে রেজিস্ট্রারে ওই নারীর স্বামীর নাম উল্লেখ নেই। বাবার নামের জায়গায় লেখা আছে আহম্মেদ আলী। এতে ওই নারীর বয়স উল্লেখ করা হয়েছে ২১ বছর।


এ বিষয়ে শেবাচিমের সমাজসেবা কর্মকর্তা দিলরুবা আক্তার বলেন, হাসপাতালে ভর্তির কাগজপত্রে উল্লেখ করা ঠিকানা এবং মুঠোফোন নম্বরে যোগাযোগের চেষ্টা করে কাউকে পাওয়া যায়নি। তাই শিশুটিকে যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেলে সমাজসেবা অধিদফতর পরিচালিত বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ছোটমণি নিবাসে পাঠানো হবে। তবে নবজাতকটি এখনো অসুস্থ। এ জন্য তাকে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।


বিবার্তা/তাওহীদ/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com