বরিশালে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
প্রকাশ : ২২ মার্চ ২০১৯, ২২:৩৫
বরিশালে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
ব‌রিশাল ব্যুরো
প্রিন্ট অ-অ+

বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কের গরিয়ারপাড়ের তেঁতুলতলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ জনে।


শুক্রবার গুরুতর আহত অবস্থায় সাত বছরের শিশু সন্তান তাঈমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে বিকেলে তার মৃত্যু হয়।


এর আগে দুপুর ১টার দিকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় একই সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত তাঈমের মা পারভীন (৩৫)।


শিশু তাঈম বাবুগঞ্জের মাধবপাশা এলাকার মোখলেস হাওলাদারের ছেলে বলে জানিয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল।


সকালে বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কের গরিয়ারপাড়ের তেঁতুলতলায় যাত্রীবাহী একটি মাহিন্দ্রাকে(থ্রি-হুইলার আলফা) বিপরীতমুখী একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে দুর্ঘটনা ঘটনাস্থলে একজন ও হাসপাতালে নেয়ার পরে আরো ৫ জনের মৃত্যু হয়। এছাড়া হাসপাতালে আহত ৫ জনকে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে দুপুরে শিশু তাঈমসহ ৩ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পাঠানো হয়।


নিহতেরা হলেন-ঝালকাঠি সদরের বাসিন্দা সুশান্ত হালদারের মেয়ে ও বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন কলেজের (বিএম) মাস্টার্সের গণিত প্রথম বর্ষের ছাত্রী শীলা হালদার(২৪), বাকেরগঞ্জের ইউনুস সিকদারের ছেলে ও নগরীর নথুল্লাবাদ এলাকার বাসিন্দা রংমিস্ত্রি মানিক সিকদার (৪০), নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডস্থ কাশিপুর এলাকার ইছাহাক আলীর ছেলে অটোরিকশাচালক খোকন হাওলাদার (৩৫), বরিশালের কাশিপুরের গণপাড়া এলাকার ইদ্রিস খানের ছেলে দুর্ঘটনা কবলিত মাহিন্দ্রাচালক সোহেল খান (২৫), বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশার সাগরপার এলাকার মোখলেস হাওলাদারের স্ত্রী পারভীন(৩৫) ও পিরোজপুর সদরের শাখায়েত সরদারের স্ত্রী মেহেরুন্নেছা (৫০)।


হতাহতদের উদ্ধারকারী ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার ইউনুস আলী জানান, মাহিন্দ্রাটি যাত্রী নিয়ে বানারীপাড়া থেকে বরিশালের উদ্দেশে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে গরিয়ারপাড় এলাকাধীন তেঁতুলতলা এলাকায় বানারীপাড়াগামী ‘দুর্জয় পরিবহন’নামের যাত্রীবাহী একটি বাস মাহিন্দ্রাকে ধাক্কা দেয়। এতে মাহিন্দ্রাটি দুমড়ে-মুচড়ে রাস্তার পাশে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই কলেজছাত্রী শীলার মৃত্যু হয়।


বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল দুর্ঘটনায় ৭ জনের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বাসচালককে আটক করা যায়নি। দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও মাহিন্দ্রা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।


এদিকে হতাহতদের খোঁজ খবর নিতে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোশারফ হোসেন, জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শেবাচিম হাসপাতালে যান। এসময় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০ হাজার টাকা করে ও নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়।


বিবার্তা/শান্ত/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com