রোগীর কিডনি গায়েবের ঘটনায় চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা
প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১২:৫৫
রোগীর কিডনি গায়েবের ঘটনায় চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

কিডনি অপসারণে এক নারীর মৃত্যুর ঘটনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (বিএসএমএমইউ) চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হয়েছে।


শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) নিহত রওশন আরার (৫৫) ছেলে চলচ্চিত্র পরিচালক মো. রফিক সিকদার বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় হত্যা মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নম্বর ৪৩।


মামলার আসামিরা হলো, হাসপাতালের ইউরোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল (৫৫), একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. ফারুক হোসেন (৪৮), চিকিৎসক মো. মোস্তফা কামাল (৪৬) ও চিকিৎসক আল মামুন (৩৩)। এছাড়া অজ্ঞাত আরো তিন-চার জনকে আসামি করা হয়েছে।


মামলার অভিযোগ পত্র থেকে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৩১ অক্টোবরে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওই নারীর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর দুই বছর পর ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসার পর শাহবাগ থানায় নিহতের ছেলে রফিক সিকদার মামলা করলেন।


শাহবাগ থানার ওসি মামুন অর রশীদ জানান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে রওশন আরার ময়নাতদন্ত করা হয়। ঢামেক থেকে সম্প্রতি ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এসেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী হত্যা মামলা নিয়েছি।


ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মৃত্যুর কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা উল্লেখ করেছেন, অল অরগান ড্যামেজ হওয়ার কারণে রওশন আরার মৃত্যু হয়েছে এবং তার দুটি কিডনিই সার্জিক্যালি অপসারণ করা হয়েছে।


২০১৮ সালের ৩১ অক্টোবর রওশন আরার মৃত্যুর একদিন পর ওই বছরের ১ নভেম্বর তার ছেলে রফিক সিকদার শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন। জিডি নম্বর-৫৩। এরপর শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) চম্পক মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান। ময়নাতদন্ত নম্বর ১৬৪৪/১৮।


বিবার্তা/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com