কুষ্টিয়ায় মুড়িকাটা পেঁয়াজ পরিচর্যায় ব্যস্ত চাষীরা
প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৩৮
কুষ্টিয়ায় মুড়িকাটা পেঁয়াজ পরিচর্যায় ব্যস্ত চাষীরা
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

আগামজাতের চাষ করা মুড়িকাটা পেঁয়াজের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন কুষ্টিয়ার চাষীরা। ভোক্তা চাহিদা সম্পন্ন পেঁয়াজ চাষীদের অর্থকরী মসলা জাতীয় ফসল হওয়ায় পেঁয়াজ চাষ করে বছরের অর্থনৈতিক চাহিদা মিটিয়ে থাকেন তারা। বর্তমান বাজারে পেঁয়াজের দাম বেশী হওয়ায় লাভের আশায় কুষ্টিয়াসহ দৌলতপুরের চাষীরা পেঁয়াজ চাষ ও পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।


চলতি মৌসুমে কুষ্টিয়া জেলায় দুই হাজার ৫৫০ হেক্টর জমিতে মুড়িকাটা পেঁয়াজ চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ও বেশী দাম পাওয়ার আশায় এবছর পেঁয়াজ চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


মুড়িকাটা পেঁয়াজ সবচেয়ে চাষ হয়ে থাকে জেলার দৌলতপুরে। ইতোমধ্যে এক হাজার ৯৫০ হেক্টরের বেশী জমিতে মুড়িকাটা পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। ক’দিন পরেই স্বপ্নের অর্থকরী সোনালী ফসল পেঁয়াজ ঘরে তুলবেন চাষীরা। সে আশায় পেঁয়াজের পরিচর্যা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। এবছর বীজের দাম বেশী হওয়ায় প্রতি বিঘা জমিতে পেঁয়াজ চাষে চাষীদের প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা না হলে লাভের মুখ দেখবেন তারা।


দৌলতপুর উপজেলার স্বরুপপুর গ্রামের পেঁয়াজ চাষী নিজাম উদ্দিন জানান, এবছর মুড়িকাটা পেঁয়াজ বীজের দাম বেশী হওয়ায় পেঁয়াজ চাষে খরচ বেশী হচ্ছে। বাজারমূল্য ৫০টাকা কেজির কম হলে পিঁয়াজ চাষে লোকসান গুনতে হবে।


তবে পেঁয়াজ চাষে চাষীদের বীজ, সারসহ প্রয়োজনীয় প্রণোদনা ও পরামর্শ দেয়ায় পেঁয়াজ চাষ ভাল হয়েছে এবং ফলনও ভাল হবে এমন আশা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের। এমটাই জানিয়েছেন দৌলতপুর কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সজিব আল মারুফ। চড়ামূল্যের বাজারে চাষীদের উৎপাদিত নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসলে পেঁয়াজের উচ্চমূল্যের ঝাঁজ কমবে বলে মনে করেন এ অঞ্চলের কৃষকসহ সর্বসাধারণ।


বিবার্তা/শরীফুল/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com