বিয়েতে এসে লাশ হয়ে ফিরতে হলো মা-মেয়েকে
প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:৩৯
বিয়েতে এসে লাশ হয়ে ফিরতে হলো মা-মেয়েকে
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

দিপা রায় (৩৫) কিছুদিন আগে আত্মীয়র বিয়েতে হবিগঞ্জ থেকে স-পরিবারে মৌলভীবাজারে এসেছিলেন । গত ২২ জানুয়ারি বিয়ে শেষ হলেও সোমবার ছিলো বৌভাত। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পরিবারের সাথেই হবিগঞ্জে ফিরে যাওয়ার কথা ছিলো আজকালকের মধ্যেই।


কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস, মেয়েকে নিয়ে আর বাড়ি ফেরা হলোনা দিপা রায়ের। ভয়াবহ আগুন অকস্মাৎ মা-মেয়ের জীবন কেড়ে নেবে এটা হয়তো ভাবেননি দিপা রায়ের স্বামী সজল রায় এবং তার ছেলে|


মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে পিংকি সু স্টোরে লাগা আগুনে পুড়ে অন্যান্য স্বজনদের সাথে মারা গেছেন মা-মেয়ে দুজনই। বিয়ের আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তাদের এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না স্বজনদের কেউই।


পিংকি স্টোর নামের যেই দোকানটি থেকে ভয়াবহ আগুনের সূত্রপাত হয় সেই দোকানের উপরের বাসাতেই আত্মীয়দের সাথে তার এক ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে অবস্থান করছিলেন দিপা রায়। আগুন লাগার পর বাসার অন্যান্য সদস্যদের মতো দিপা রায়ও ছেলেমেয়েদের নিয়ে ওই বাসায় আটকা পড়েন। প্রাণ বাঁচাতে আরো অনেকের সাথে তার ছেলে বাসার বাইরে বেরিয়ে আসতে পারলেও ছোট মেয়ে বৈশাখীকে নিয়ে বের হতে পারেননি মা দিপা রায়। ফলে অন্য ৩ জনের সাথে মারা যান তারাও।


দিপা রায়ের আত্মীয় কল্প রায় জানান, কয়েকদিন আগেই আত্মীয়র বিয়েতে যোগ দিতে সপরিবারে মৌলভীবাজারে আসেন দিপা রায়। তার গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার উমেদনগরে। তার স্বামী সজল রায়। দিপা রায়ের আরো একজন ছেলে রয়েছে।


প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের সাইফুর রহমান রোডের পিংকি সু স্টোরে গ্যাসের লাইন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। দোকানের পেছনে বাসায় এ সময় আটকা পড়ে কয়েকজন।


দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস। অগ্নিকাণ্ডে আহতদের মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।


নিহতরা হলেন পিংকি সু স্টোরের মালিক সুভাষ রায় (৬৫), সুভাষ রায়ের মেয়ে প্রিয়া রায় (১৯), সুভাষ রায়ের ভাইয়ের স্ত্রী দিপ্তী রায় (৪৮), সুভাষ রায়ের শ্যালকের বউ দিপা রায় (৩৫), দিপা রায়ের মেয়েশিশু বৈশাখী রায় (৩)।


মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


বিবার্তা/জাই

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com