‘বাবাজি ওজন মেপে যান’
প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:২৬
‘বাবাজি ওজন মেপে যান’
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ফজল মুন্সি। বয়স ৮০-৮৫’র কম হবে না। টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন জায়গায় প্রায়ই দেখা যায় একটি ওজন মাপার যন্ত্র নিয়ে বসে আছেন। বৃহস্পতিবার বেলা এগারোটার দিকে ফজল মুন্সির দেখা মিলল শহরের নিড়ালা মোড়ে। প্রতিদিনের মতো একই যন্ত্র নিয়ে বসে আছেন। পথচারীদের ডেকে বলছেন বাবাজি, ওজন মেপে যান। এই সময়ের মধ্যে ৮০-৯০ টাকা উপার্জন হয়েছে। ফজল মুন্সির চেয়ে অনেক কম বয়সি ব্যক্তিরা বসে আছেন ভিক্ষাবৃত্তির থলে নিয়ে। অথচ ৮৫ বছর বয়সি এই বৃদ্ধ এমন একটি পেশা বেছে নিয়ে সকলের দৃষ্টি কেড়েছেন।


কথা বলে জানা গেল, বৃদ্ধ বয়সে ফজল মুন্সির এমন পেশা বেছে নেয়ার গল্প। তার বাড়ি টাঙ্গাইল সদর উপজেলার কাকুয়া চরে। গত ৪০ বছর আগে তার একমাত্র ছেলে মনিরুলকে জন্ম দেয়ার সময় মারা যান তার স্ত্রী অর্থাৎ মনিরুলের মা। সময় পেরিয়ে মনিরুলের ঘরেও এখন দুই সন্তান। ছেলের দিকে তাকিয়ে ফজল মুন্সির দ্বিতীয় বিয়ে করাটা আর হয়ে উঠেনি। ছেলে ওয়ালটন কোম্পানীতে কাজ করলেও বাবার সাথে তেমন সম্পর্ক না থাকায় ছেলে মনিরুল তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে শহরের পশ্চিম আকুরটাকুর পাড়ায় আলাদা বাড়িতে থাকেন।


এদিকে বসতবাড়ি নদীগর্ভে চলে যাওয়ায় ফজল মুন্সির রাতের আশ্রয় পশ্চিম আকুরটাকুর পাড়া সংলগ্ন কাগমারা এলাকার একটি মসজিদে। বৃদ্ধ বয়স হলেও জোটেনি বয়স্ক ভাতা। এজন্যই এই বয়সে বেছে নিয়েছেন ওজন মাপার পেশা। এমনটাই জানালেন ফজল মুন্সি।


ফজল মুন্সি বলেন, আমার এই বয়সে অন্য কোনো কাজ করার শক্তি নেই। তাই ১ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে ওজন মাপার যন্ত্রটি কিনেছি। প্রতিদিন দুই আড়াইশ’ টাকা উপার্জন করি। তিন বেলা খাবার খাই হোটেলে। এতে একশ’ টাকা লেগে যায়। বাকি এক-দেড়শ’ টাকা ভবিষ্যতের জন্য প্রতিদিন জমা রাখি। রাত হলেই আশ্রই নেই মসজিদে।


যৌবনে স্ত্রী হারা, বৃদ্ধ বয়সে ছেলে থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া এমনকি ৮৫ বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা না পাওয়ায় রাস্তায়-রাস্তায় ওজন মেপে উপার্জন করছে এই বৃদ্ধ। এমন গল্প শুনে ব্যথিত হচ্ছে অনেকেই। বয়স্ক ভাতার জন্য সরকারের প্রতি আকুতি জানান।


টাঙ্গাইল সদর কাকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, ফজল মুন্সির বয়স্ক ভাতা না পাওয়ার বিষয়টি আমার জানা ছিল না। তাকে কাগজ পত্র নিয়ে আসতে বলেন। সে কাগজপত্র জমা দিলে দ্রুত তার বয়স্ক ভাতার ব্যবস্থা করে দেবো।


বিবার্তা/মোল্লা তোফাজ্জল/জাই


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com