সিরাজগঞ্জে শাপলা শালুক কুড়িয়ে জীবন চলে ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর
প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৪৮
সিরাজগঞ্জে শাপলা শালুক কুড়িয়ে জীবন চলে ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বর্ষা মৌসুমে হাতে কাজ না থাকায় সিরাজগঞ্জের তাড়াশে শাপলা ফুলের শালুক কুড়িয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর নারী ও পুরুষেরা।


তাড়াশ উপজেলার সদর ইউনিয়নের মঙ্গলবাড়িয়া ও শোলাপাড়া মাঠে ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর নারী ও পুরুষরা দল বেঁধে শাপলা ফুলের শেকড়ে থাকা শালুক তুলছেন।


কালীচরণ সিং জানান, বর্ষা মৌসুমে তাদের কোনো কাজ না থাকায় সংসার চালাতে কষ্টসাধ্য হয়ে যায়। তার গ্রামের নারী ও পুরুষরা দল বেঁধে বর্ষার পানিতে মাঠে শাপলা ফুলের শালুক তুলে সিদ্ধ করে তা বাজারে বিক্রি করেন। প্রতিদিন ১০০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত শালুক বিক্রি করেন। এতে কোনো মতে তাদের জীবিকা নির্বাহ চলে।


অপর একজন নারী শুকলা মাহাতো জানান, তার সংসারে পাঁচজন সদস্য নিয়ে চলতে কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। সম্পদ বলতে চার শতক জায়গা ছাড়া কিছু নেই। তাই সংসারে হাল ধরতে শাপলা ফুলের শালুক তুলে তা বাজারে বিক্রি করেন। এতে যা পান তা দিয়ে কোনো মতে সংসার চলে।


তিনি আরো বলেন, সরকারিভাবে কতজনকে কত রকমের সাহায্য করে থাকেন। ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মানুষদের মধ্যে অনেকেই অনেক কিছু পেয়ে থাকলেও আমরা তা থেকে বঞ্চিত। তবে তৃণমুলে ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর মানুষদের সরকার যদি পুর্নবাসন করতেন তবে অন্তত ছেলে-মেয়েদের পড়ালেখা করাতে পারতাম।


এ ব্যাপারে তাড়াশ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শাহাদত হোসেন বলেন, ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর মানুষদের আসলে পরিবার-পরিজন নিয়ে সংসার চালানো কষ্টকর। তাই সরকার তাদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করে থাকেন। তাছাড়া উপজেলা পরিষদ ও আমাদের মাধ্যমে তাদের এককালীন অর্থ দেয়া হয়। শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি, সিএনজি অটোরিক্সা দেয়াসহ ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর মানুষদের বিভিন্ন বে-সরকারি সংস্থা ও স্থানীয় সরকার বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় এনে পুর্নবাসন করছেন।


বিবার্তা/রিয়াদ/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com