২০০ বছরের মধ্যে অন্য গ্রহে মানুষ, দাবি নাসার
প্রকাশ : ২৪ মে ২০২২, ০৬:৪১
২০০ বছরের মধ্যে অন্য গ্রহে মানুষ, দাবি নাসার
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

আগামী ২০০ বছরের মধ্যেই অন্য গ্রহে বসবাস শুরু করবে মানুষ। মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার জেট প্রপালশন ল্যাবরেটরির বিজ্ঞানী জোনাথন জিয়াংয়ের দাবি এরকমই।


১৯৬৪ সালে, সোভিয়েত জ্যোতির্বিজ্ঞানী নিকোলাই কার্দাশেভ বুদ্ধিমান প্রজাতির প্রযুক্তিগত সম্ভাবনা অনুমান করার জন্য একটি পরিমাপ প্রকল্পের কথা বলেছিলেন। এর পরে এটিকে কার্ল সেগান সংশোধন করেছিলেন। সেই পরিমাপ প্রকল্পের উপর ভিত্তি করে ও বর্তমান বৈশ্বিক অবস্থান নিয়ে গবেষণায় জিয়াং তাই মনে করছেন। ২০০ বছরের মধ্যে অন্য গ্রহে থাকবে পৃথিবীর মানুষ।


জোনাথন জিয়াং বলেন, পৃথিবী অন্ধকারে ঘেরা একটি ছোট জায়গা। পদার্থবিদ্যা সম্পর্কে আমাদের বর্তমান উপলব্ধি আমাদের বলছে যে, আমরা সীমিত সম্পদের সঙ্গে ছোট এই পাথরে আটকে রয়েছি। প্রায় ৬০ বছর আগে একজন সোভিয়েত জ্যোতির্বিদ কার্দাশেভ স্কেল সম্পর্কে বলেছিলেন। যেটিতে যে কোনও বুদ্ধিমান প্রজাতির প্রযুক্তিগত সক্ষমতা পরিমাপ করা যায়।


তিনি আরো বলছেন, আমরা যতদূর বিশ্বাস করি, আমরা একা। জীবন, এবং বিশেষ করে বুদ্ধিমান জীবন, অত্যন্ত বিরল বলে মনে হয়। তাই একটি সভ্যতা বিকাশের উচ্চ পর্যায়ে পৌঁছানোর আগে, সম্ভবত কিছু প্রক্রিয়া বুদ্ধিমান জীবনকে সরিয়ে দেয়। একটি প্রজাতি হিসাবে আমরা ইতিমধ্যেই আত্ম-ধ্বংস করতে সক্ষম এবং আমরা কার্দাশেভ স্কেলের শীর্ষে পৌঁছাতে পারিনি। মুষ্টিমেয় কয়েকটি দেশের পারমাণবিক ক্ষমতা রয়েছে এই গ্রহের প্রতিটি মানুষকে নিশ্চিহ্ন করার।


জিয়াং এও বলেছেন, আত্ম-ধ্বংস এড়ানোর একমাত্র উপায় হল আমাদের শক্তির ব্যবহারকে এমন জায়গায় বাড়ানো যেখানে আমরা একসঙ্গে অনেকগুলি বিশ্বে থাকতে পারি, এমনকি সেগুলি যদি সৌরজগতে থাকে তাও। একাধিক গ্রহে মানুষের উপস্থিতি আত্ম-ধ্বংসের বিরুদ্ধে একটি শক্তিশালী প্রতিরক্ষা হবে। কিন্তু সেই পরিস্থিতি পেতে হলে বিপুল পরিমাণ শক্তির প্রয়োজন।


বিবার্তা/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com