এলিয়েন নিয়ন্ত্রণ করছে কি মহাকাশযান ভয়েজার ১?
প্রকাশ : ২০ মে ২০২২, ০৮:০১
এলিয়েন নিয়ন্ত্রণ করছে কি মহাকাশযান ভয়েজার ১?
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ভয়েজার ১ হল একটি ৭২২-কিলোগ্রাম (১,৫৯২ পা) স্পেস প্রোব। নাসা ১৯৭৭ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এটি মহাশূন্যে প্রেরণ করে সৌরজগতের বাইরের পরিবেশ সম্পর্কে জানার জন্য। ৪৫ বছর ধরে চালনা করা হচ্ছে এটি এবং ডিপ স্পেস নেটওয়ার্কের সাথে যোগাযোগ করে কমান্ড নেয়ার জন্য এবং তথ্য দেয়ার জন্য এটি কাজ করে যাচ্ছে। ২০১৪ সালের ১১ নভেম্বর এটি পৃথিবী থেকে আনুমানিক ১২ বিলিয়ন মাইল দূরত্ব অতিক্রম করে, এটিই পৃথিবী থেকে সবচেয়ে দূরবর্তী মহাকাশযান। সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা অদ্ভুত কিছু বিষয় লক্ষ্য করছেন। এই মহাকাশযানকে যা নিয়ন্ত্রণ করছে সেই অ্যাটিটিউড আর্টিকুলেশন অ্যান্ড কন্ট্রোল সিস্টেমে (এএসিএস) যে তথ্য আসছে, আর ভয়েজার আসলে যা করছে তা মিলছে না।


সৌরজগতের প্রান্তসীমা ছাড়িয়ে অসীমের পথে ছুটতে শুরু করা মহাকাশযান ভয়েজার ১— ১৯৭৭ সালে পৃথিবী থেকে যাত্রা শুরু করে সব মিলিয়ে ৪৫ বছর যাত্রা করেছে মহাকাশে। এই মহাকাশযান এখন পৃথিবী থেকে ২ হাজার ৩৩০ কোটি কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। পৃথিবী থেকে যাত্রা শুরুর পর ২০১৮ সালে এটি সৌরজগতের প্রান্তসীমা ছাড়িয়ে যায়। বিশাল এই পথ পাড়ি দিয়েও এখনও ঠিকঠাক কাজ করে যাচ্ছে এটি। নাসা থেকে বিজ্ঞানীরা যেসব কমান্ড দিচ্ছেন ভয়েজার সেটি গ্রহণ করছে ও সে অনুযায়ী কাজও করছে। এরপর তথ্য সংগ্রহ করে তা পৃথিবীতেও পাঠাচ্ছে।


ভয়েজার এখন ইন্টারস্টেলার পর্যায়ে রয়েছে। অর্থাৎ পৃথিবী থেকে ভয়েজার বা ভয়েজার থেকে পৃথিবীতে আলো যেতে সময় লাগে ২০ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট। ফলে ভয়েজার থেকে কোনো বার্তার আদান-প্রদানে দু’দিন সময় লাগে। ভয়েজার টিম এখনও পর্যন্ত বিশ্বাস করছে যে, এএসিএস ঠিকঠাক কাজ করছে। কিন্তু এর ডেটা রিডআউট বাস্তবসম্মত নয়। তবে এখনও পর্যন্ত একে সেফ মোডে নিয়ে নেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।আর ভয়েজারের সিগন্যাল আগের মতোই শক্তিশালী আছে। এর মানে হলো এর অ্যান্টেনা এখনও পৃথিবীর দিকেই মুখ করা আছে। ভয়েজার টিম এখন এটা বোঝার চেষ্টা করছে যে, ত্রুটিপূর্ণ যে ডেটা আসছে, তা এই ভয়েজার থেকেই আসছে না কি, অন্য কোনো সিস্টেমের জন্য এটা হচ্ছে। তবে এএসিএস এটুকু নিশ্চিত করেছে যে, ভয়েজারের হাই-গেইন অ্যান্টেনা এখনও পৃথিবীর দিকেই মুখ করা আছে, যাতে মহাকাশযানটি নাসাকে তথ্য দিতে পারে।


বিশ্বের বাইরে প্রাণের অস্তিত্ব আছে বলে বহু আগে থেকেই অনেক বিজ্ঞানী দাবি করেছেন আর এই দাবি নিয়ে অনেক বিতর্কও রয়েছে। বিশ্বের বাইরের এই বহির্জাগতিক প্রাণকে বলা হয় এলিয়েন। বিজ্ঞানীদের ধারণা অনুযায়ী এলিয়েন বলতে সেই জীবদের বোঝানো হয়, যাদের উদ্ভব এই পৃথিবীতে হয়নি বরং পৃথিবীর বাইরে মহাবিশ্বের অন্য কোথাও হয়েছে। এখন ভয়েজার ১ নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পাসগাপাশি উদ্বেগও বেড়ে যায়। তাহলে কি সত্যিই এলিয়েনের অস্তিত্ব আছে। এলিয়েনই ভয়েজার ১ নিয়ন্ত্রণ করছে? কল্পনাতীত কিছু ঘটতে চলেছে বিশ্ব ও মাহাবিশ্বে? ভয়েজারে করে সেসব এলিয়েন কি পৌঁছে যাবে পৃথিবীতে? নাকি বিষয়টা নিতান্তই সাদামাটা? আসলে এলিয়েন নয় ভয়েজার ১ এরই যান্ত্রিক গোলোযোগের ফলাফল এই পরিস্থিতি? এসব প্রশ্নের উত্তর এখনও অজানা। ধারণাও বাইরে।


এদিকে নাসা বলছে, যতক্ষণ না ঠিকমতো বোঝা যাচ্ছে যে আসলে কী ঘটছে, ততক্ষণ এটা বলা যাবে না যে, ভয়েজার সায়েন্স ডেটা সংগ্রহ করে পৃথিবীতে পাঠানোর যে কাজ করে যাচ্ছে এতে কোনো প্রভাব পড়বে কি না বা আর কতদিন ভয়েজার এ কাজ চালিয়ে যেতে পারবে।
ভয়েজার ১ ও ২-এর প্রজেক্ট ম্যানেজার সুজান ডড বলছেন, এ মহাকাশযানের বয়স এখন ৪৫ বছর। মিশন পরিকল্পনাকারীরা শুরুতে এর আয়ুষ্কাল নিয়ে যে ধারণা করেছিলেন এটা তার চেয়ে অনেক বেশি। এছাড়া আমরা এখন ইন্টারস্টেলার স্পেসে আছি, এমন হাই-রেডিয়েশন পরিবেশে এর আগে কোনো মহাকাশযান পৌঁছায়নি। তাই ইঞ্জিনিয়ারিং টিমের জন্য এটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। আমার বিশ্বাস এটা সমাধানের কোনো পথ থাকলে আমাদের টিম তা খুঁজে বের করবে।তিনি আরও বলেন, আর টিম যদি সমস্যার উৎস খুঁজে না পায় তবে এ পরিস্থিতির মধ্যেই কাজ চালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে মানিয়ে নেবেন তিনি। আর খুঁজে পেলে, সফটওয়্যারে কোনো পরিবর্তন এনে বা হার্ডওয়্যার সিস্টেমে পরিবর্তন এনে তার সমাধান আনা যাবে।বছরে এখন খুব কম শক্তি উৎপাদন করছে ভয়েজার। তাই এর সাবসিস্টেম ও হিটারগুলো আগেই বন্ধ হয়ে গেছে। এটা বন্ধ করা হয়েছে যাতে ক্রিটিক্যাল সিস্টেম ও সায়েন্স ইনস্ট্রুমেন্ট কাজ চালিয়ে যেতে পারে। ভয়েজার ১ নিয়ে রহস্যের অবসান তাহলে এখনি হচ্ছে না। অপেক্ষায় জানা যাবে আসলে বিষয়টি কী!


সূত্র : সিএনএন ও স্পেসডটকম


বিবার্তা/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com