ঢাবি ছাত্রলীগের সম্মেলন শনিবার: উচ্ছ্বসিত নেতাকর্মীরা
প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৮
ঢাবি ছাত্রলীগের সম্মেলন শনিবার: উচ্ছ্বসিত নেতাকর্মীরা
সাইদুল কাদের ও মহিউদ্দিন রাসেল
প্রিন্ট অ-অ+

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নিউক্লিয়াস হিসেবে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্রলীগের সম্মেলন ৩ ডিসেম্বর (শনিবার) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে এ সম্মেলনকে ঘিরে উৎসবের আমেজ তৈরি হয়েছে। পদপ্রত্যাশীদের পদচারণায় মুখরিত এখন ঢাবি ক্যাম্পাস। কারা আসছেন নেতৃত্বে? কোন এলাকা পাচ্ছে প্রাধান্য? সংকটকালীন সময়ে কার কী অবদান? কার পারিবারিক ঐতিহ্য কী? এসব নানা আলোচনায় সরগরম ছাত্ররাজনীতির আতুঁড়ঘর হিসেবে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী মধুর ক্যান্টিন।


আগামীকাল বিকাল ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস।


এরআগে সোমবার (২১ নভেম্বর) বেলা ১২টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলন ৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।


এদিকে এই সম্মেলনকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ব্যয় সাশ্রয়ী সম্মেলন করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস।


১ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার মধুর ক্যান্টিনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ‘বার্ষিক সম্মেলন-২০২২’ এর সার্বিক বিষয়াবলীর ওপর আলোকপাত করার লক্ষ্যে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটি বলেছেন তিনি।


সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ৩ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনটি ব্যয় সংকোচনমূলক হবে। এতে করে পূর্ববর্তী সময়ে হওয়া কনসার্ট প্রোগ্রামটি হবে না। এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের দিকনির্দেশনা দেয়া হবে। এছাড়া এই সম্মেলনে দুর্ভিক্ষ মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বিভিন্ন নির্দেশনা দেশের কোনায় কোনায় পৌঁছে দেয়া হবে।


সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ২০১৮ সালের সম্মেলনে দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের অনুসরণে তাদের কমিটি সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে।


ঢাবি ছাত্রলীগের এই সংবাদ সম্মেলনের পর ২ ডিসেম্বর নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে নির্দেশনা দিয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে ছাত্রলীগের এই গুরুত্বপূর্ণ শাখা।



এতে বলা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার বার্ষিক সম্মেলন ২০২২ উপলক্ষ্যে যারা কোন প্রকার ব্যক্তিগত ব্যানার/ফেস্টুন ব্যবহার করেছেন, তাদেরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক পরিবেশ সমুন্নত রাখতে, সাংগঠনিক সৌন্দর্য ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে এবং পরিচ্ছন্ন ও নান্দনিক ক্যাম্পাসের স্বার্থে অনতিবিলম্বে সে সকল ব্যানার/ফেস্টুন সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেয়া হল।


সরেজমিনে ঢাবি ক্যাম্পাসে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনস্থ অপরাজেয় বাংলার সামনে গত বৃহস্পতিবার থেকে মঞ্চ প্রস্তুতির কাজ শুরু হয়। ঐতিহাসিক বটতলার সামনে সাদা কাপড়ে মোড়ানো বাঁশ দিয়ে স্তরে স্তরে ব্যারিকেট তৈরি করা হয়েছে। অপরাজেয় বাংলা ভাস্কর্যের সামনে মঞ্চ তৈরির কাজ প্রায় শেষের দিকে। প্রস্তুতি পর্বে দায়িত্বরত ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী জানান, 'প্রস্তুতির কাজ প্রায় শেষ হয়েছে। শুধু ব্যানার সেটিং করা বাকি। আর সেটিও শুক্রবার সন্ধ্যার মধ্যে শেষ হয়ে যাবে।'


সম্মেলনের সার্বিক প্রস্তুতির বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বিবার্তাকে বলেন, 'ব্যয় সাশ্রয়ী করতে অনাড়ম্বর সম্মেলনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে এইবার। ইতোমধ্যে অপরাজেয় বাংলার সামনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা যেন সুশৃঙ্খলভাবে সম্মেলনে অংশ নিতে পারেন সেই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এই সম্মেলনের মাধ্যমে তারা আবারও শপথ গ্রহণ করবেন যাতে আগামীতেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিজয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নির্ধারণ করবে৷ যারা সন্ত্রাসী ও খুনের রাজনীতি করে এবং জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক তাদের বিরুদ্ধে আমাদের সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।'


নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ন্যায় ঢাবি ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনকেও বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এমনকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরাসরি নেতা বাছাইয়ে নেতৃত্ব দিবেন।


এদিকে ঢাবি ছাত্রলীগের বিগত সম্মেলনগুলো বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, সম্মেলনে নেতৃত্ব নির্বাচনে কয়েকটি বিষয় দেখা হয়। তার মধ্যে- পারিবারিক পরিচিতি, নিয়মিত ছাত্রত্ব, সংগঠনের জন্য ত্যাগ ও এলাকা। নেতৃত্ব নির্বাচনে অন্যান্য যোগ্যতার পাশাপাশি এলাকার বিষয়টি বিশেষ প্রাধান্য পেয়ে আসছে। সেক্ষেত্রে দেশের বিভিন্ন বিভাগের পদপ্রত্যাশীরা আলোচনার কেন্দ্রে রয়েছে।



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলনের ইতিহাস থেকে জানা যায়, প্রতিবারই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালনকারীদের মধ্যে থেকে একজন শীর্ষ নেতৃত্বে আসছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস এ দায়িত্বে আসার আগে জগন্নাথ হল ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। তার আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্সও জিয়া হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। ফলে এবারও বিভিন্ন হলের নেতৃত্ব থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্ব আসার জোর সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনেকেও এখানের শীর্ষ নেতৃত্বে আসার বিষয়টি আলোচিত হচ্ছে।


আলোচনায় যারা:


মেহেদী হাসান শান্ত (সভাপতি, বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগ ও সাবেক জিএস, বঙ্গবন্ধু হল ছাত্র সংসদ), মাহবুবুর রহমান (সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগ), হাসিবুল হোসেন শান্ত (সাধারণ সম্পাদক , জিয়াউর রহমান হল ছাত্রলীগ ও সাবেক জিএস জিয়া হল ছাত্র সংসদ), ফাল্গুনী দাস তন্বী (উপ সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ও সাবেক এজিএস রোকেয়া হল ছাত্র সংসদ), খালিদ উর রহমান বাদল (শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক উপ সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ), জহিরুল ইসলাম (সাংগঠনিক সম্পাদক, ঢাবি ছাত্রলীগ),শহিদুল হক শিশির (সভাপতি,হাজী মুহম্মদ মুহসিন হল ছাত্রলীগ ও সাবেক ভিপি হাজী মুহম্মদ মুহসিন হল ছাত্র সংসদ),কাজল দাস (সভাপতি, জগন্নাথ হল ছাত্রলীগ ও সাবেক জিএস জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদ), অতনু বর্মণ (জগন্নাথ হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক), মো. মারিয়াম জাহান খান সোহান (সভাপতি,মাস্টার দা’ সূর্যসেন হল ছাত্রলীগ ও সাবেক ভিপি সূর্যসেন হল ছাত্র সংসদ), মো. রিয়াজুল ইসলাম ( স্যার এ এফ রহমান হল ছাত্রলীগের সভাপতি), সজীবুর রহমান সজীব ( সভাপতি, বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগ ও সাবেক ভিপি বিজয় একাত্তর হল ছাত্র সংসদ ), রুবেল হোসেন (সাধারণ সম্পাদক,শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রলীগ), রাজিয়া সুলতানা কথা (সভাপতি, বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হল ছাত্রলীগ), জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হল ছাত্রলীগের সভাপতি)।


বিবার্তা/সাইদুল/রাসেল/জেএইচ


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com