শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে কদমতলী থানা আ.লীগের আনন্দ মিছিল
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০২২, ২০:৫৬
শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে কদমতলী থানা আ.লীগের আনন্দ মিছিল
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অনেক ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল ছিন্ন করে ২৫ জুন, শনিবার পদ্মাসেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে কদমতলী থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আনন্দ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের বক্তব্যে সাবেক ছাত্রনেতা ড. মো. আওলাদ হোসেন বলেন, শেখ হাসিনার দৃঢ়তা এবং সাহসিকতার জন্যই বাঙালী জাতির আত্মমর্যাদার প্রতীক পদ্মাসেতু আজ বাস্তবতা।


তিনি বলেন, ১৯৭৪ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাপান সফরকালে উত্তরবঙ্গের সাথে রাজধানী ঢাকার সংযোগ স্থাপন করার জন্য যমুনা নদীর ওপর সেতু নির্মাণে অর্থায়নের জন্য অনুরোধ করেন। বঙ্গবন্ধু জীবিত থাকতে জাপানের অর্থায়নে ঐ সেতু নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালো রাতে ঘাতকের বুলেটে বঙ্গবন্ধু শহীদ হওয়ার পরে সেতু নির্মাণের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তিতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা পিতার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করেন। সেতুর নামকরণ করা হয় ‘বঙ্গবন্ধু সেতু’। এই সেতু নির্মাণে উত্তরবঙ্গের মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়েছে।


রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের সাথে সড়ক যোগাযোগ সহজতর করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন। বিশ্বব্যাংক এই সেতু নির্মাণে অর্থায়নের প্রতিশ্রুতি করলেও শুরুতেই দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রে বিশ্বব্যাংক প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে অর্থায়ন থেকে সরে দাঁড়ায়। জাতির পিতার কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ়তা ও সাহসিকতার সাথে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু নির্মাণের কথা ঘোষণা করেন। অত্যন্ত সফলভাবে পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়। আগামীকাল ২৫ জুন, শনিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাঙ্গালী জাতির আত্মমর্যাদার প্রতীক পদ্মাসেতু উদ্ধোধন করবেন।


আনন্দ মিছিল ও সমাবেশের প্রধান অতিথি ড. মো. আওলাদ হোসেন বলেন, ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে উত্তরবঙ্গের ন্যায় দক্ষিণবঙ্গের মানুষেরও অর্থনৈতিক উন্নয়ন হবে। সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হওয়ায় শিল্প এলাকা গড়ে উঠবে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। কৃষকের উৎপাদিত পণ্য দ্রুত রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বাজারজাত হবে। ফলে কৃষকরা পন্যের ন্যায্য মূল্য পাবেন। ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে উঠবে।


কদমতলী থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ নাছিম মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আনন্দ মিছিল ও সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন ৫৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত মুফতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহসভাপতি সৈয়দ আহমেদ, ঢাকা জেলা পরিষদের সাবেক নির্বাচিত সদস্য আলমগীর হোসেন, ৫৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের শামসুল আলম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌসী ইয়াসমিন পপি, শ্যামপুর থানা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শরীফ মোহাম্মদ শাহজাহান, কদমতলী থানা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ওমর ফারুক রাজু, ক্রীড়া সম্পাদক আমজাদ হোসেন মজনু, সদস্য রোকসানা বেগম পারুল, শহিদ মাহমুদ হেমী, কাজি জাহিদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শামীম আহমেদ, ৪৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দিলু, ৫১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মামুন, ৫২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর খান, সুলতান আহমেদ, ৫৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা আরিফ হোসেন, মোখলেসুর রহমান, জাকির হোসেন, আল ইসলাম, ৫৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা কামাল হাসান বাহাদুর, মাসুদুর রহমান, মাসুম, মো. হানিফ সরকার, জনি, আশিক আহমেদ, জাহাঙ্গীর খান, ৫৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা হামিদুল ইসলাম রনি, শাহজাহান বাদশা, মোহাম্মদ আলী, ইমাম হোসেন, সাহেব আলি, মাহবুব, ৫৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা মো. সোলায়মান, আলম মিয়া, দেলোয়ার হোসেন, প্রমুখ।


বিবার্তা/জেএইচ


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com