‘প্রধানমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রী নিরাপত্তা থাকলেও জনগণের নেই’
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ২১:২৮
‘প্রধানমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রী নিরাপত্তা থাকলেও জনগণের নেই’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশের প্রধানমন্ত্রী নিজে অত্যন্ত সাবধানে আছেন তিনি ঘর থেকে বের হন না, ওবায়দুল কাদের সাহেব আরেকজন বড় মন্ত্রী তিনিও ঘরের মধ্যেই আছেন। তারা কিন্তু খুব নিরাপদে অবস্থান করছেন কিন্তু আমার আপনার কারো কোনো নিরাপত্তা নাই।


তিনি বলেন, আমাদের কারো করোনা হলে যে কোনো চিকিৎসা পাবো সেটার কোনো গ্যারান্টি নাই। আপনি হাসপাতালে যাবেন করোনার জন্য দরকার অক্সিজেন দরকার ভেন্টিলেটর কিন্তু আপনি আমি পাব না।


মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের সামনে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীরউত্তমের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এগ্রিকালচারিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর পক্ষ থেকে গবীর, অসহায় ও দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।


করোনার টিকা নিয়েও তেলেসমাতি জালজালিয়াতি চলেছে বলে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, ভারত থেকে সরকার টিকা নিবে। এই টিকাতে মানুষ বাঁচবে কি বাঁচবে না এই ব্যাপারে কেউ নিশ্চিত নয়।কিন্তু এই টিকা নিয়েও তেলেসমাতি ও জাল-জালিয়াতি চলছে। সরকারের যারা কর্তাব্যক্তি তারা বলছেন এক ধরনের কথা অন্যদিকে সরকার সমর্থক ব্যবসায়ীরা বলছেন অন্য ধরনের কথা।কোথাও কোথাও এই করোনার টিকা নিয়ে অনেকেই অসুস্থ হয়েছেন।


তিনি বলেন, 'আমরা এখানে যারা দাঁড়িয়ে আছি এদের মধ্যে যে কেউ যে কোনো সময় করেনায় আক্রান্ত হব আমরা কেউ জানিনা।গোটা বিশ্বে করোনা মহামারী চলছে কত ডাক্তার কত সাধারণ মানুষ এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলো এর কোনো চিকিৎসা নেই। এর জন্য যে টিকা নিয়ে আসা হয়েছে এটা এখনো শতকরা একশভাগ প্রমাণিত হয়নি। সরকারের প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে এদেশের মানুষকে নিরাপত্তা দেয়া কিন্তু সরকারের এ ব্যাপারে কোনো দায়িত্ব নেই দেশের মানুষ মরল কি বাঁচলো সেটি তারা দেখছে না।


দেশে একটি ভয়ের রাজত্ব কায়েম হয়েছে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন,' শুধু সরকারের বিরোধিতা করার কারণে ইলিয়াস আলী চৌধুরী আলম ছাত্রনেতা জনি সহ অসংখ্য নেতা-কর্মী গুম হয়েছে।চারিদিকে এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।এই পরিস্থিতির জন্য তো এদেশের মানুষ ১৯৭১ সালের যুদ্ধে জীবন দেয়নি?৯ লক্ষ শহীদের বিনিময়ে ২ লক্ষ মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে এই দেশ স্বাধীন হয়েছে এমনটি জন্য কি? আমাদের দেশের মানুষ আমাদের উপরে অত্যাচার করবে আমাদের কন্ঠের মধ্যে ফাঁসির দড়ি ঝুলিয়ে রাখবে এটা কখনোই কাম্য হতে পারে না


তিনি আরো বলেন, এখন কেউ কোনো কথা বলতে পারেনা।ভোটাররা তাদের ভোট দিতে পারে না, দিনের ভোট রাত্রে হয়। এই ভোট নিয়ে যে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে।


আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কৃষিবিদ রাশিদুল হাসান হারুনের সভাপতিত্বে এবং বিএনপির সহ- প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামিমুর রহমান শামিমের সঞ্চালনায় এসময় এ্যাবের মহাসচিব জিকে এম মোস্তাফিজুর রহমান,ড.শফিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


বিবার্তা/বিপ্লব/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com