এদেশে খালেদা জিয়ার থেকে গরিব আর কেউ নেই: গয়েশ্বর
প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪:৫৪
এদেশে খালেদা জিয়ার থেকে গরিব আর কেউ নেই: গয়েশ্বর
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, জিয়াউর রহমানের কিছু নেই, কিছু রেখে যায়নি। বাংলাদেশে খালেদা জিয়ার থেকে গরিব আর কেউ নেই। নিজের একটা বাড়ি নাই, ভাড়া বাড়িতে থাকে। প্রায় ভাড়া পরিশোধের নোটিশ আসে। খালেদা জিয়ার ব্যাংক একাউন্ট বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। তারপরও তিনি ব্যাংক থেকে ৫০ হাজার টাকার বেশি তুলতে পারে না। খালেদা জিয়ার মত একজন ব্যক্তির কিভাবে ৫০ হাজার টাকায় চলে? কিভাবে তার চিকিৎসা হয়?


বুধবার (২ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে গয়েশ্বর এসব কথা বলেন। রাজধানীর মোঘলটুলী এলাকায় শহীদ প্রসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করার প্রতিবাদে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল।


গয়েশ্বর বলেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান একটি ইতিহাস। আজ বিজয়ের মাসের দ্বিতীয় দিন। ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান। বাংলাদেশের মানুষ বিজয় দিবস উদযাপনের জন্য যার যার জায়গা থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছে। রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ৫০ বছরপূর্তি পালন করবেন।


সরকারের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, অযাচিতভাবে স্বাধীনতার চেতনায় তিনি বিশ্বাস করেন না, যিনি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেন না, তাকে স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী খেতাব দেয়ার কোন সুযোগ নাই। দশ মাস বয়স হলো করোনার। ১০ মাসের মধ্যে ১০ মিনিটের জন্যে প্রধানমন্ত্রী তার বাসভবন থেকে বের হন নাই। তার নিরাপত্তার স্বার্থে তিনি ঘরের বাইরে হন নাই কিন্তু ১৮ কোটি মানুষ তো নিরাপত্তার স্বার্থে ঘরে বসে থাকতে পারে নাই। আমাদের অনেক সিনিয়র নেতা করোনায় প্রাণ দিয়েছে। এখনো করোনায় ভুগছে।


গয়েশ্বর বলেন, আমিও যে কোনো সময় আক্রান্ত হতে পারি। নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে রাস্তায় নামতে হয় শেখ হাসিনার জন্য। করোনার মৃত্যুর চেয়ে যদি রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করতে যে মৃত্যু হয় তাহলে ৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে কোনো অবদান থেকে থাকে আমার-আমাদের তাহলে সেটা পরিপূর্ণ হবে। আজকে মৃত্যুর ভয় করে ঘরে বসে থাকতে পারি না। করোনার থেকেও মারাত্মক ভয়ানক আজকের সরকার। কারণ করোনার দল-মত জাতি বোঝো না। করোনা নিরপেক্ষ। দল-মত না বুঝেন আক্রমণ করে। কিন্তু হাসিনার দল বোঝে, মত বোঝে, জাত বোঝে, বংশ বোঝে। যাকে চায় তিনি তাকে আক্রমণ করে। এই ভয়াবহ করোনার হাত থেকে জাতিকে মুক্তি দিতে হবে।


বিএনপি এ নেতা বলেন, একটা বিখ্যাত গান- 'মানুষ মানুষের জন্য' কিন্তু আওয়ামী লীগ মানুষের জন্য না। আওয়ামী লীগ আওয়ামী লীগের জন্য। আর মানুষ মানুষের জন্য। অর্থাৎ আওয়ামী লীগকে মানুষের পর্যায়ে ধরা যায় না। আওয়ামী লীগ- আওয়ামী লীগের জন্য কাঁদে। আওয়ামী লীগ- আওয়ামী লীগের লুট করে, আওয়ামী লীগ- আওয়ামী লীগ চিনে কিন্তু সাধারণ মানুষ চেনে না।


জিয়াউর রহমানের নাম বুঝতে পারবেন না উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশের ১৮ কোটি মানুষের হৃদয়ের মানুষ জিয়াউর রহমান। আত্মার আত্মীয় জিয়াউর রহমান। তার নাম হৃদয়ে লেখা, কালিতে লেখা না। ইচ্ছা করলে মোছা যায় না। ইচ্ছা করলে ছেঁড়াও যায় না।


মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল প্রমুখ।


বিবার্তা/বিপ্লব/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com