মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মুক্তবুদ্ধির বাংলাদেশ তৈরিতে বিবার্তা সহায়ক হোক: ড. মশিউর
প্রকাশ : ০২ আগস্ট ২০২২, ২০:৫৭
মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মুক্তবুদ্ধির বাংলাদেশ তৈরিতে বিবার্তা সহায়ক হোক: ড. মশিউর
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো.মশিউর রহমান বলেছেন, পদ্মা সেতুর চ্যালেঞ্জে যেমন আমরা বিজয়ী হয়েছি, বিশ্ব ব্যাংককে চ্যালেঞ্জ করতে পেরেছি সেই ধারাবাহিকতায় আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আগামী নির্বাচনকে ঘিরে যে সকল সংকট সামনে আসছে, ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল তৈরি হচ্ছে, সেই সব ছিন্ন করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মুক্তবুদ্ধির বাংলাদেশ তৈরি করি। এক্ষেত্রে বিবার্তা২৪ডটনেট তার অন্যতম সহায়ক হোক।


মঙ্গলবার (২ আগস্ট) অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিবার্তা২৪ডটনেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর বাংলামটরস্থ পদ্মা লাইফ টাওয়ারে প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।


তিনি বলেন, আগস্ট মাস শোকের মাস। এ মাসে আমরা সবাই শোকে আচ্ছন্ন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৫ আগস্টে হত্যার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে পাকিস্তানের পথে হাঁটার যে পথ সৃষ্টি হয়েছিল, সেই পথের পরে রক্তাক্ত পথ ধরে ধরে বাঙালি পদে পদে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জৈষ্ঠ্য কন্যা বাংলাদেশের তীরে না আসা পর্যন্ত দিক নির্দেশনাহীন বাঙালি জাতি প্রতিনিয়ত কুক্ষে থেকেছে। অতঃপর তার ফিরে আসার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অভিযাত্রা এবং ভাত ও ভোটের প্রতিষ্ঠার লড়াই শুরু হয়েছে।


সেই লড়াইয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা অনবরত পথ হেঁটেছে। তাঁর মধ্য দিয়ে মুক্তবুদ্ধি চর্চার সাহসী কিছু মানুষ তৈরি হয়েছে। আজকে যারা বিবার্তা২৪ডটনেট প্রতিষ্ঠা করেছে, তারা তাদেরই সৈনিক। আমি সেটা অকপটে স্বীকার করি, জানি এবং বিশ্বাস করি।


তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে যা কিছু করতে হবে, এদেশের সৃজনশীল যা কিছু হবে, সামাজিক -সাংস্কৃতিক আলোড়ন হবে, তার সবকিছু বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের সমর্থনে হতে হবে। এটি বাংলাদেশের বার্তা। আর এটি বাংলাদেশের আবশ্যক হওয়া বাঞ্ছনীয়।


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, বাংলাদেশের সামরিক শাসনের যাতাকল এবং অগণতান্ত্রিক পথে হাঁটার যে ইতিহাস, আমরা শুধু সেই ইতিহাস থেকে বিচ্যুত হতে চাই না, আগামী দিনে সেই পথে হাঁটার কোনো পথ রাখতে চাই না। আর সেটি করতে চাই না বলে আমাদের অনেককে বিবার্তা২৪ডটনেটের মতো সাহসী হয়ে কলম যোদ্ধা হয়ে আগাতে হবে। বিজ্ঞানে, সংস্কৃতিতে এবং জ্ঞান চর্চায় শুধু নয়। বঙ্গবন্ধুকন্যা মানবিক রাজনীতি প্রতিষ্ঠার যে বিরল দৃষ্টান্ত এই চ্যালেঞ্জের মধ্যে দেখিয়েছেন।


অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, আমি মনে করি বিবার্তা সৃজনশীলতা, লেখনি, মানবিকতা, সাহসিকতার সমন্বয় করে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেই পথে কেউ যেন বাঁধা হতে না পারে। যতই ক্রান্তিকাল আসুক, সংকট আসুক বিবার্তার মতো সাহসী হলে আমি মনে করি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের মানুষের একটি প্রিয় প্রাঙ্গণ এবং আশ্রয়ে পরিণত হবে বিবার্তা। আর সেটির মধ্য দিয়ে আগাতে পারলে আমরা একটি ভিন্নধর্মী সাংবাদিকতা, লেখনি সত্তা, কাব্য সত্তা, সৃজনশীলতার পথে হাঁটবো। মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ হোক। শেখ হাসিনার এই লড়াই মুক্তির পথের দিশারীতে পরিণত হোক। সে বাংলাদেশ সমুজ্জ্বল হোক। আজকের আগস্টের শোকের সময়ে, শোককে শক্তিতে পরিণত করার সময়ে আমাদের প্রতিজ্ঞা নিতে হবে।



জাগরণ টিভির প্রধান সম্পাদক এফএম শাহীন ও বিবার্তা২৪ডটনেটের সাহিত্য সম্পাদক সামিনা বিপাশার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জের উপাচার্য অধ্যাপক ড. জেড এম পারভেজ সাজ্জাদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর, আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, সাবেক সাংসদ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. জাহানারা আরজু, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি-(ডিআরইউ') সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম হাসিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভুঁইয়া, গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর, দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক (উপ-সচিব) ড. এম এম মাজেদুল ইসলাম, ন্যাপের মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মিতা রহমান, এনডিপির মহাসচিব মো. মঞ্জুনর হোসেন ঈসা, বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ছিলেন বিবার্তা২৪ডটনেটের সম্পাদক বাণী ইয়াসমিন হাসি প্রমুখ।


উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ২ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী বাণী ইয়াসমিন হাসি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ শেষ করে সম্পাদক হিসেবে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিবার্তা২৪ডটনেট প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর হাঁটি হাঁটি পা পা করে ১০ বছর অতিবাহিত করে এগারো বছরে পা দিয়েছে ‘সারাবেলা সব খবর’ স্লোগান ধারণ করা এই অনলাইন গণমাধ্যমটি।


বিবার্তা/রাসেল/জেএইচ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com