চোখ ওঠা; নেই ভাবনা জানুন প্রতিকার
প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:২৮
চোখ ওঠা; নেই ভাবনা জানুন প্রতিকার
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

হঠাৎ করেই বেড়েছে কনজাঙ্কটিভাইটিস বা চোখ ওঠা রোগের প্রাদুর্ভাব। চোখ উঠা (ইংরেজি: Conjunctivitis, কন্‌জাঙ্কটিভাইটিস) হচ্ছে চোখের ভাইরাসজনিত ইনফেকশন। সাধারণভাবে প্রচলিত কথা ‘চোখ ওঠা’ বলতে চোখ লাল হওয়া বুঝানো হয়ে থাকে। কিন্তু চোখ লাল হওয়া একটি উপসর্গ মাত্র। বিভিন্ন কারণে চোখ লাল হতে পারে। যেমন-জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হলে, এডিনো ভাইরাসজনিত কারণে, হারপিস সিমপ্লেক্স ভাইরাসজনিত কারণে, স্কেলেরার ইনফেকশনজনিত কারণে, ইউভিয়াল টিস্যু ইনফেকশনজনিত কারণ ইত্যাদি।


তবে ভাইরাস কেরাটাইটিস বা হারপেম সিমপেক্স ভাইরাসজনিত ইনফেকশনই মূলত ভাইরাসজনিত ইনফেকশন। এ ধরনের ইনফেকশনে সাধারণত এক চোখ আক্রান্ত হয়ে থাকে। পরবর্তীতে দুচোখেও হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। চোখে চুলকানির লক্ষণও প্রতীয়মান হয়।


কনজাঙ্কটিভাইটিস বা চোখ ওঠা বলতে চোখের কনজাঙ্কটিভার প্রদাহ বা ব্যথাকে বোঝায়। কনজাঙ্কটিভা হলো আমাদের চোখের পাতার নিচে থাকা ঝিল্লির মতো পাতলা পর্দা, যা চোখের সাদা অংশ এবং চক্ষুপল্লবের ভেতর ভাগকে ঢেকে রাখে। সাধারণত ছোট বাচ্চাদের মধ্যে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। তবে বড়রাও এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।


ইদানীং চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই। অত্যন্ত ছোঁয়াচে হওয়ায় রোগটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। অসংখ্য মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন এতে। তাই, চোখ ওঠা সম্পর্কে বিস্তারিত জানা এবং সতর্ক হওয়া আবশ্যিক হয়ে দাঁড়িয়েছে।


চোখ ওঠা রোগের প্রধান লক্ষণ ও উপসর্গ


# সংক্রমিত চোখের সাদা অংশটি গোলাপি বা লালচে হয়ে ওঠা
# চোখ দিয়ে পানি পড়া
# চোখে জ্বালা করা
# চুলকানির ভাব হওয়া
# চোখে অতিরিক্ত পিঁচুটি আসা
# চোখের পাতা ফুলে ওঠা
# অস্বস্তিবোধ হওয়া
# চোখের ভেতর কিছু রয়েছে এমনটা মনে হওয়া
# দেখতে অসুবিধা হওয়া
# আলোতে চোখ টনটন করা
# সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর চোখের পাতায় চটচটে পদার্থ লেগে থাকা


চোখ ওঠার কারণ


এই রোগের মূল কারণই হলো সংক্রমণ, অ্যালার্জি ও পরিবেশের যন্ত্রণা সৃষ্টিকারী পদার্থ (যেমন ধোঁয়া, বাতাস) ইত্যাদি।


ব্যাকটেরিয়ার কারণে চোখ ওঠা সমস্যা হতে পারে। এছাড়া ভাইরাস আক্রমণের কারণেও এটি হয়ে থাকে। বেশিরভাগ সময়ই ভাইরাসের কারণে চোখ ওঠে। স্ট্যাফাইলোকক্কাস, ক্ল্যামাইডিয়া ও গোনোকক্কাসের মতো ব্যাকটিরিয়া এবং ভাইরাসের কারণে এই সংক্রমণ হয়।


চোখ উঠলে বুঝবেন কীভাবে?


চোখ ওঠা সমস্যা দেখা দিলে চোখ অত্যাধিক লাল হয়ে যায়। কনজাঙ্কটিভার রক্তনালীগুলো প্রদাহর কারণে এমনটা হয়। এছাড়া ঘুম থেকে উঠলে চোখ আঠা আঠা লাগা, চোখে অস্বস্তি, চোখ চুলকানো এবং জ্বালাপোড়া করা, চোখের কোণায় ময়লা (যা কেতুর নামে প্রচলিত) জমা ইত্যাদি দেখা দিলে বুঝবেন চোখ উঠেছে।


আসুন জেনে নেই চোখ উঠলে কী করবেন


পানি নিয়ে সচেতনতা


আক্রান্ত চোখে নোংরা পানি, ধুলাবালি, দূষিত বাতাস যেন চোখে প্রবেশ না করে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এছাড়া সকালে ওঠার পর চোখে পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। অনেকে চোখে ওঠলে বারবার পানি দিয়ে পরিষ্কার করেন বা চোখে পানির ঝাপটা দেন। এটি মোটেই ঠিক নয়।


সানগ্লাস


আক্রান্ত চোখে নিয়ে বাইরে যাওয়ার সময় সানগ্লাস পরতে হবে। এটি রোদে চোখ জ্বলা কমাবে।


চোখ ওঠা ছোঁয়াচে রোগ


চোখ ওঠা ছোঁয়াচে রোগ, তাই যাদের চোখ ওঠেছে, তাদের সংস্পর্শ পরিহার করতে হবে। চোখ আক্রান্ত ব্যক্তির রুমাল, কাপড়চোপড়, তোয়ালে ব্যবহার করা যাবে না। এমনকি হ্যান্ডশেকের মাধ্যমেও অন্যরা আক্রান্ত হতে পারেন। এ জন্য হাত তাড়াতাড়ি ধুয়ে ফেলতে হবে। নোংরা হাত চোখে লাগানো যাবে না।


অ্যান্টিবায়োটিক ড্রপ


কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভাইরাসের আক্রমণের পর ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ ঘটে। এ জন্য দিনে তিন থেকে চারবার চোখের অ্যান্টিবায়োটিক ড্রপ ক্লোরামফেনিকল ব্যবহার করতে হবে। ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ না হলেও সেকেন্ডারি ইনফেকশন প্রতিরোধ করার জন্য এটি ব্যবহার করা যায়। চোখে চুলকানি থাকলে অ্যান্টিহিস্টামিন সেবন করতে হবে। এ ক্ষেত্র অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।


ডাক্তারের পরামর্শ


দৃষ্টি ঝাপসা হলে, চোখ খুব বেশি লাল হলে, খুব বেশি চুলকালে বা অতিরিক্ত ফুলে গেলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।


বিবার্তা/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com