ফিটনেসহীন গাড়ির তালিকা একমাসের মধ্যে দাখিলের নির্দেশ
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০১৯, ১৩:৩৮
ফিটনেসহীন গাড়ির তালিকা একমাসের মধ্যে দাখিলের নির্দেশ
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

নিবন্ধন আছে কিন্তু ফিটনেসবিহীন ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৯ গাড়ির মালিক ও চালকের নাম-ঠিকানাসহ তালিকা এক মাসের মধ্যে দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।


নিবন্ধন নেয়া ফিটনেসহীন গাড়ি ও লাইসেন্স নিয়ে নবায়ন না করা চালকের বিরুদ্ধে আইন অনুসারে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) কী ব্যবস্থা নিয়েছে তাও এক মাসের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।


বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান ও বিআরটিএ’র সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালককে এ আদেশ পালন করতে বলা হয়েছে।


বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক মাহবুব-ই-রাব্বানীর উপস্থিতিতে বিচারপতি মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেয়।


আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিনউদ্দিন মানিক। বিআরটিএর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মঈন ফিরোজী ও রাফিউল ইসলাম। আদালতের তলবে হাজির হন বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক রাব্বানী।


২৩ মার্চ একটি ইংরেজি দৈনিক এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করলে অ্যাডভোকেট সৈয়দ মামুন মাহবুব বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন। এরপর আদালত রুলসহ আদেশ দেন।


রুলে ফিটনেসবিহীন গাড়ি, রেজিস্ট্রেশনবিহীন গাড়ি ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর বিষয়ে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং সংবিধানের ৩২ ধারার আলোকে জীবন বাঁচানোর অধিকার বাস্তবায়নে কেন মোটর ভেহিক্যাল আইন, ১৯৮৩ এর বিধানসমূহ সঠিকভাবে পালনের জন্য নির্দেশনা দেয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়।


বিআরটিএর চেয়ারম্যান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ট্রাফিক পুলিশের ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের ডিসি এবং বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক মাহবুব-ই-রাব্বানীক এ তথ্য জানাতে নির্দেশ দেয়া হয়।


ওই দিন বিআরটিএর সড়ক নিরাপত্তা বিভাগের পরিচালককে আদালতে হাজির থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়। ওই আদেশ অনুযায়ী সোমবার বিআরটিএর পক্ষ থেকে একটি ও পুলিশের পক্ষ থেকে আরেকটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়।


আদেশের পর ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিনউদ্দিন মানিক বলেন, ঢাকাসহ সারা দেশে লাইসেন্স নিয়ে ফিটনেস নবায়ন না করা গাড়ি এবং লাইসেন্স নিয়ে নবায়ন না করা চালকের বিস্তারিত তথ্য জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।


একইসাথে সারাদেশে থাকা রেজিস্ট্রেশনধারী ফিটনেসহীন ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৯ গাড়ি এবং লাইসেন্স নিয়ে নবায়ন না করা চালকের বিরুদ্ধে আইন অনুসারে বিআরটিএ কি ব্যবস্থা নিয়েছে তাও এক মাসের মধ্যে জানাতে হবে।


আদালতে বিআরটিএর আইনজীবীরা জানান, সারা দেশে লাইসেন্স নিয়ে ফিটনেস নবায়ন না করা গাড়ির সংখ্যা ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৯ এবং ঢাকা শহরে ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩০৮টি। তবে বিআরটিএর লাইসেন্স ছাড়া গাড়ির সংখ্যা জানার সুযোগ নেই। এটি রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট কমিটি বলতে পারবে।


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com