নাশকতার দুই মামলায় খালেদার জামিন স্থগিত
প্রকাশ : ২৯ মে ২০১৮, ১৮:০৩
নাশকতার দুই মামলায় খালেদার জামিন স্থগিত
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

খালেদা জিয়াকে কুমিল্লায় নাশকতার দুই মামলায় হাই কোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করেছে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বিএনপির চেয়ারপারসনের জামিনে স্থগিতাদেশ দিয়ে মামলাটি পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান।


দুই মামলায় জামিন স্থগিতের পৃথক দুটি আবেদনের শুনানি আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে বৃহস্পতিবার হবে বলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানিয়েছেন।


চেম্বার আদালতে জামিন স্থগিতের আবেদনে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল নিজে। খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন খন্দকার মাহবুব হোসেন।


সোমবার বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাই কোর্ট বেঞ্চ কুমিল্লার নাশকতার দুই মামলায় খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দেয়। তবে নড়াইলের মানহানির মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ হয়েছে।


এই আদেশের দুই ঘণ্টার মধ্যে জামিন স্থগিত চেয়ে চেম্বার আদালতে যায় রাষ্ট্রপক্ষ। আদালত আবেদন শুনানির জন্য মঙ্গলবার দিন রাখেন। সেই শুনানি নিয়েই হাই কোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করে শুনানির জন্য আবেদন দুটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠান চেম্বার বিচারপতি।


চেম্বার আদালতের আদেশের পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি সরকারের সদিচ্ছার উপর নির্ভর করছে। সরকার চায় বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে, কারাগারে রেখে তারা নির্বিঘ্নে বাংলাদেশে বাকশাল কায়েম করবে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করবে। সেই স্বপ্ন কোনো দিনও সার্থক হবে না সেটা আমরা বিশ্বাস করি।


এ বক্তব্যে আপত্তি জানিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, সরকারের সদিচ্ছা না হলে খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন না, এ ধরনের বক্তব্য আদালত অবমাননাকর। কারণ এই দেশে আদালত আছে। আদালত জামিন দিচ্ছে, আবার জামিন স্থগিতও করছে। মামলায় তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে এবং এই যে সমস্ত তথ্য-উপাত্ত আছে তার উপর নির্ভর করেই তাদের বক্তব্য দিতে হবে, যুক্তিতর্ক করতে হবে। মুখরোচক বক্তব্য দিয়ে তাদের কোনো লাভ হবে না।


রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা বলেন, হাই কোর্ট খালেদা জিয়াকে দুটি মামলায় জামিন দিয়েছিল। এই জামিনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল আপিল বিভাগে যে প্রভিশনাল লিভ পিটিশন দায়ের করেছিলাম, সেটির উপর আজ শুনানি হয়েছে। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আগামী ৩১ তারিখে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির দিন ধার‌্য করেছে। সে অবধি হাই কোর্টের দেয়া জামিন আদেশের কার্যকারিতা স্থগিত রাখা হয়েছে।


বিবার্তা/রোকন/কাফী


>>কুমিল্লার দুই মামলায় ৬ মাসের জামিন পেলেন খালেদা জিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com