তিন দল মিলেতো বৃহত্তর ঐক্য হবে না: মান্না
প্রকাশ : ১৯ মে ২০২২, ১৭:৪৮
তিন দল মিলেতো বৃহত্তর ঐক্য হবে না: মান্না
কিরণ শেখ
প্রিন্ট অ-অ+

মাহমুদুর রহমান মান্না। ১৯৭২ সালে চাকসুর জিএস নির্বাচিত হন। ১৯৭৩ সালে জাসদ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ১৯৭৬ সালে জাসদ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি। ১৯৭৯ সালে ডাকসুর ভিপি নির্বাচিত হন। ১৯৮০ সালে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ গঠনের অন্যতম উদ্যোক্তা। ১৯৮৩ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয় ছিলেন।


পরে ১৯৯১ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৯ সালে বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের পদ থেকে বাদ পড়েন মান্না। বর্তমানে তিনি নাগরিক ঐক্যের সভাপতি।


দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং বৃহত্তর ঐক্যসহ নানা বিষয়ে বিবার্তা২৪ডটনেটের সঙ্গে কথা হয় মাহমুদুর রহমান মান্নার। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন বিবার্তা প্রতিবেদক কিরণ শেখ।


বিবার্তা: বিএনপি যে বৃহত্তর ঐক্যের ডাক দিয়েছে, এই ঐক্য নিয়ে দলটি কি আপনাদের সাথে কোন কথা বলেছে?


মাহমুদুর রহমান মান্না: বিএনপি তো বৃহত্তর ঐক্যের কথা বহু আগে থেকেই বলছে। তাদের কর্মী সভায় এবং বড় সমাবেশগুলোতে বলেছে। আর আমার সাথে রোজারও আগে এবিষয়ে কথা বলেছেন। বাকিদের কথা আমি বলতে পারি না। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তবে সেই কথা উল্লেখ করার মতো কিছু হয়নি। এক পর্যায়ে উনি (খন্দকার মোশাররফ হোসেন) বললেন, এটা আসলে আপনাদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করছি। কথা আমরা পরে বলবো। এরপরে আর তারা কথা বলেননি। এর মধ্যেও কোন কথা হয়নি।


বিবার্তা: বিএনপি নেতৃত্বাধীন বৃহত্তর ঐক্য কি ‘নাগরিক ঐক্য’ থাকবে?


মাহমুদুর রহমান মান্না: বৃহত্তর ঐক্য যে করবে- কিসের ভিত্তিতে? সেটা দেখতে হবে। আর আমাদের সাথে ঐক্যটা চিন্তাগতভাবে হয়েছে যে, এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন নয়। কিন্তু এই সরকারটা চলে গেলে কি? সেই ব্যাপারে আমাদের নিজেদের মধ্যে কোন আলোচনাই হয়নি। কিছু আলোচনা হয়েছে, যেটা অমীমাংসিতই থেকেছে। আরো কথা হবে। যেমন ধরেন, এই সরকার চলে গেলে পরবর্তী নির্বাচন পর্যন্ত তো একটা অন্তবর্তীকালীন সরকার হবে। উনারা বলেন কেয়ারটেকার সরকার এবং তারা সময় নির্ধারণ করে দেন যে তাকে তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। কিন্তু গত নির্বাচনের সময় দুই বছর নিয়ে গেল! তাই আমাদের মনে হয় না, এসময়ের মধ্যে পারা যাবে। কারণ এসময় তো আগের চেয়ে বেশি সমস্যা হয়েছে। ফলে এসব ব্যাপারে নিষ্পত্তি না হলে কেউ বললেই যে চলে গেলাম, তা হবে না।


আমরা ৭ দল একটা আলোচনা করছি। আলোচনা করে একটা ন্যূনতম জায়গায় পৌঁছেছি যে, আমরা অন্তবর্তীকালীন সরকারকে বলবো যে- তাদের এই এই কাজ করতে হবে। যাতে করে একটা সত্যি সত্যি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়। কিন্তু আমরা কোন সময়সীমা বলবো না। এটা আমি বিএনপি কাছেও প্রস্তাব করেছিলাম। তবে উনারা এব্যাপারে কোন মন্তব্য করেননি। বলেছিলেন, ঈদের পরে কথা বলবেন। দেখি কবে কথা বলেন।


বিবার্তা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে ভোটে গিয়ে আপনারা সফলতা পাননি, এবার বৃহত্তর ঐক্য গঠনের কথা বলছেন- এবার কি আপনারা সফল হবেন?


মাহমুদুর রহমান মান্না: আওয়ামী লীগ এদেশের এখন একটা অপ্রিয় দল। এত বড় একটা দল। যারা স্বাধীনতা যুদ্ধে এক ধরণের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তাদেরকে মানুষ এখন পছন্দ করে না। ভোটে জিততে পারবে না। এটা তো ঐক্যফ্রন্টের সফলতা।



বিবার্তা: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এখন কোন কার্যক্রম নেই। ঐক্যফ্রন্ট আছে, না কি ভেঙে গেছে?


মাহমুদুর রহমান মান্না: ড. কামাল হোসেনের দল গণফোরাম ভেঙে গেছে। তিনি বয়সের কারণে কাজ করতে পারেন না। তারপরে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বেরিয়ে (ঐক্যফ্রন্ট) গেছেন। এখন বিএনপি, আমি আর জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব আছি। এটা মিলে তো একটা বৃহত্তর ঐক্য হবে না।


বিবার্তা: ঐক্যফ্রন্টকে আবারো গতিশীল ও সক্রিয় করার কি কোনো চিন্তা-ভাবনা আছে?


মাহমুদুর রহমান মান্না: ঐক্যফ্রন্টকে আবার চাঙ্গা করার কেউ চিন্তা করছেন বলে আমি জানি না।


বিবার্তা: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কিভাবে এবং কেমন হওয়া উচিত বলে আপনি মনে করেন?


মাহমুদুর রহমান মান্না: এই সরকার চলে যাবে। একটা অন্তবর্তীকালীন সরকার হবে। সেই সরকার দেশে একটা গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের বাস্তবিক পরিবেশন তৈরী করবে। সেই সময় নির্বাচন হবে।


বিবার্তা: ‘নাগরিক ঐক্য’ নিয়ে আপনার স্বপ্ন কী?


মাহমুদুর রহমান মান্না: নাগরিক ঐক্য একদিন ক্ষমতায় যাবে এবং দেশকে একটা কল্যাণকর রাষ্ট্রে প্রতিষ্ঠিত করবে।


বিবার্তা/কিরণ/রোমেল/এসএফ


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com