দায় আমাদেরই
প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১৮
দায় আমাদেরই
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

অভিনন্দন দিয়েই শুরু করছি তোমাদের, প্রিয় ছোটবোনেরা। তোমরা জাতিকে শিরোপা জিতিয়ে যে উপহার দিয়েছো সেটার জন্য। ২০১৬ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য একই মাপের টুর্নামেন্টে তোমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলে অনূর্ধ্ব ১৯। ঠিক তখন তোমাদের ফুটবল দেখে, পায়ের শৈলী দেখে, তোমাদের মনোবল দেখে মনে হয়েছিল যে কোন ইউরোপিয়ান কাপের ফাইনাল দেখছি। প্রতিটা পাস, বডিল্যাঙ্গুয়েজ, ট্যাকটিকস, টেকনিক, স্টেন্থ সবকিছু মিলিয়ে এই কমেন্টি করলাম তোমরা ইউরোপীয় ফুটবল খেলেছিলে।


আজো যা দেখলাম, একই ধারা দেখলাম। প্রথম জীবনে ফুটবলার হতে চেয়েছিলাম, পারিনি, কিন্তু আজও ফুটবল ছাড়িনি। তাই ফুটবলের জ্ঞান কিছুটা আছে। গত পাঁচ বছরে বাংলাদেশের নারী ফুটবলে তোমাদের চেষ্টাটুকু তোমরা করে যাচ্ছো। কিন্তু আসলে আমরাই পারিনি। যদি পিছনের খবর গুলো দেখি, দেখা যায় যে তোমরা রিকশায় করে যাচ্ছো প্র্যাক্টিস করতে। খাবারও ঠিকমত খেতে পারছো না। বাল্যবিবাহের টানাটানিতে তোমরা রীতিমতো যুদ্ধ করছো। সমাজ-পরিবার তোমাদের পাশে নেই আর অন্যদিকে পুরুষ ফুটবলাররা একেকজন একেক সিজনে আয় করছে ৫০ থেকে ৭০ লক্ষ টাকা। সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র তোমাদের ক্ষেত্রে তাই বাধ্য হয়ে তোমরা ফুটবল ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছো। ৬ বছর আগে আমার মামা শফিকুল ইসলাম মানিক যিনি একজন বাংলাদেশের প্রতিথযশা ফুটবলার, তিনি বলেছিলেন যে এই মেয়েগুলো টুর্নামেন্ট জিতবে কিন্তু এরপর আর কিছুই করতে পারবে না।


আমি বিশ্বাস করিনি, কিন্তু বিশ্বাস করতে বাধ্য হয়েছি যখন এশিয়া কাপ গুলোতে দেখি আমরা মুখ থুবড়ে পড়ে যাই। উনি কেন বলেছিলেন গত ছয় বছরে সেটির প্রমাণ আমরা পেয়েছি। আমরা তোমাদেরকে ঠিকমতো নার্সিং করতে পারিনি। তোমাদেরকে ঠিকমত খাদ্য সরবরাহ করতে পারিনি, তোমাদেরকে ঠিকমতো বেতনভাতা দিতে পারিনি। তোমাদেরকে সুযোগ-সুবিধা দিতে পারিনি। তোমাদের পাশে দাঁড়াতে পারিনি এবং আমি এও জানি যে আমরা পারবো না। আমরা আজকে হাততালি দিব, কাল গিয়ে বারবার আমরা ক্রিকেট বা অন্য কিছুর পেছনে ঘুরব যেখানে আমরা বারবার গোঁত্তা খাবো। আমাদের ইচ্ছা আছে, কিন্তু কি একটা কারণে যেন আমরা ওখানেই শেষ হয়ে যাই। মনের ভিতরের গভীর কষ্ট থেকে নিজের আক্ষেপটুকু বললাম। তোমাদের পাশে সব সময় আছি যেভাবেই বলো।


শুভকামনা তোমাদের জন্য। তোমরা আজ যেভাবে বুক চিতিয়ে জাতিকে এই উপহারটুকু দিয়েছো, তোমরা দাঁড়িয়ে থাকবে এভাবেই, দেখবে সময় তোমাদের পক্ষেই থাকবে। শুভকামনা।


ডা. ফেরদৌস (এম বি বি এস, এম ডি, এফ এ সি পি, সভাপতি, শেখ রাসেল ফাউন্ডেশন, ইউএসএ)- এর ফেসবুক থেকে নেয়া


বিবার্তা/এমএইচ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com