জিহাদি বইসহ ‘আনসার আল ইসলাম’র দুই সদস্য গ্রেফতার
প্রকাশ : ১৪ জুন ২০২৪, ২১:৪০
জিহাদি বইসহ ‘আনসার আল ইসলাম’র দুই সদস্য গ্রেফতার
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানার শিকলবাহা ইউনিয়ন এলাকা থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ‘আনসার আল ইসলাম'র ২ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭। এসময় তাদের কাছ থেকে একাধিক জিহাদি বই উদ্ধারসহ অন্যান্য আলামত জব্দ করা হয়।


১৪ জুন, শুক্রবার দুপুর একটার দিকে শিকলবাহার একটি পরিত্যক্ত একতলা ঘর থেকে মিটিং করার সময় ‘শাহাদাত’ গ্রুপের এ দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।


গ্রেফতারকৃতরা হলেন- পঞ্চগড়ের ফজলুল হকের ছেলে মো. আসাদুজ্জামান আসিফ (২২) ও পাবনার ফরিদপুর এলাকার গোলাম মওলার ছেলে মোহাম্মদ আহাদ (২১)। এসময় র‍্যাবের উপস্তিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৫-৬ জন পালিয়ে যায়।


বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর জেষ্ঠ্য সহকারি পরিচালক (গণমাধ্যম) মোহাম্মদ শরিফ-উল আলম।


তিনি বলেন, গত ২৩ মে র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখা ও র‌্যাব-৩ এর একটি দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাজধানীর গুলিস্থান ও সাইনবোর্ড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আনসার আল ইসলাম এর ৩ জন শীর্ষস্থানীয় সদস্যকে গ্রেফতার করে।


যাদের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানে আনসার আল ইসলাম এর কার্যক্রম প্রায় স্তিমিত হয়ে পড়লে আনসার আল ইসলামের নামে নতুন সদস্য সংগ্রহ সহ কার্যক্রম পরিচালনা এবং চলমান রাখার জন্য তারা আনসার আল ইসলাম মতাদর্শী ‘শাহাদাত’ নামে নতুন একটি জঙ্গি সংগঠন তৈরি করে নতুন সদস্য সংগ্রহ সহ দাওয়াতী কার্যক্রম পরিচালনা করতে থাকে।


এই সংগঠনের সদস্য সংখ্যা শতাধিক। যোগাযোগের জন্য তারা ব্যবহার করে End To End Encrypted বিভিন্ন মেসেঞ্জার এবং মোবাইল অ্যাপ। ‘বিপ’ নামে একটি মোবাইল অ্যাপ তাদের কাছে বর্তমানে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যা প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।


তিনি আরো বলেন, পরে গোয়েন্দা নজরদারি এবং তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে জানা যায় ‘শাহাদাত’ গ্রুপটি সালাহউদ্দিন নামের এক প্রবাসীর মাধ্যমে পরিচালিত হয়। যিনি বর্তমানে বিদেশে অবস্থান করছে। এই গ্রুপের অন্যান্য সদস্যরা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব সদর দফতরের গোয়েন্দা শাখা ও র‌্যাব-৭ এর একটি টিম অভিযান চালিয়ে শিকলবাহা ওই দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে। ওই ঘর থেকে জব্দ করা হয় একাধিক জিহাদি বই এবং অন্যান্য আলামত। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে ৫-৬ জন পালিয়ে যায়।


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার ২ জন জানান, তারা ‘আনসার আল ইসলাম’ এর মতাদর্শে পরিচালিত নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘শাহাদাত’ গ্রুপের নামে সদস্য সংগ্রহ ও দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনা করছিল। যোগাযোগের জন্য নতুন গোপনীয় অ্যাপস ব্যবহার করতো এবং সংগঠনের সকল নির্দেশনা এই অ্যাপসের মাধ্যমে আদান-প্রদান করতো।


বিবার্তা/লিমন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

এফ হক টাওয়ার (লেভেল-৮)

১০৭, বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, ঢাকা- ১২০৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com