জাতীয় সংসদ নির্বাচন: সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগকে কড়া বার্তা!
প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:২৯
জাতীয় সংসদ নির্বাচন: সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগকে কড়া বার্তা!
সোহেল আহমদ
প্রিন্ট অ-অ+

দেশবিরোধী অপতৎপরতায় লিপ্ত থাকার অভিযোগ এনে গেলো বছরে ইউরোপ প্রবাসী বেশ কয়েকজনের বাংলাদেশীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতারা। এছাড়া গুজব, অপপ্রচার রোধে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় থাকার পাশাপাশি দলীয় নানান কার্যক্রমও পরিচালনা করেছেন তারা। কিন্তু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের শাখাকে শুধু মামলা নয়, সংশ্লিষ্ট দেশের সরকার ও আইন প্রণেতাদের নিকট বিএনপি-জামায়াতের ‘অপকর্ম’ তুলে ধরতে আরো তৎপর হওয়ার জন্য কড়া বার্তা দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। তবে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, বিদেশে বসে অপপ্রচার করাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত কার্যক্রম চলছে। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দিকনির্দেশনায় এ গতি আরো বৃদ্ধি পাবে।


গেলো বছরের ৭ অক্টোবর দেশ বিরোধী চক্রান্তের অভিযোগ এনে সুইডেন প্রবাসী সাংবাদিক তাসনিম খলিলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলামসহ প্রবাস আওয়ামী লীগ নেতারা। এরপর ১০ ডিসেম্বর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে লেখক ও ফেসবুক অ্যাকটিভিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ এনে মামলা করা হয়। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি ও অস্ট্রিয়া প্রবাসী লেখক এম নজরুল ইসলাম, সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ কাশেম, সাধারণ সম্পাদক দিলওয়ার হোসেন কয়েছ ও সহ-সভাপতি মনজুরুল হাসান চৌধুরী সেলিম এ মামলা দায়ের করেন।


ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এধরণের পদক্ষেপ নেয়া হলেও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, শুধু মামলাই পর্যাপ্ত নয়। সম্প্রতি রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে সভা করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমদ ছাড়াও ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন, ফিনল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, গ্রীস, ডেনমার্ক ও অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


সভা সূত্রে জানা গেছে, ইউরোপের দেশগুলোতে হাজার হাজার আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী বসবাস করেন। যারা স্বাধীনতার চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করেন তাদের দিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে আওয়ামী লীগের শাখা কমিটি গঠন করা হয়। অথচ তাদের নাকের ডগায় বসে বিএনপি-জামায়াতপন্থী প্রবাসীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব ব্যবহার করে নিয়মিত দেশবিরোধী অপপ্রচার, বিভ্রান্তি ছড়িয়ে যাচ্ছেন। এসব অপপ্রচারের বিরুদ্ধে পদ পাওয়া বিভিন্ন দেশের শাখা কমিটির নেতারা কিছু ব্যবস্থা নিলেও যে পরিমাণ সোচ্চার হওয়া প্রয়োজন সেই পরিমাণ হচ্ছে না।



ইউরোপের শীর্ষ নেতাদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-জামায়াত দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করছে। দেশের বিরুদ্ধে প্রচারণা ও ষড়যন্ত্রের জন্য তারা সোশ্যাল প্লাটফর্ম বেছে নিয়েছে। বিদেশে বসেও তাদের নেতা-কর্মীরা দেশবিরোধী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া ইউরোপের বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশের মানবাধিকার নিয়ে প্রশ্ন তুলে। এসব ক্ষেত্রে প্রবাসী আওয়ামী লীগ কি করে? কোথায় প্রতিবাদ সভা? সেসব দেশের আইনপ্রণেতাদের নিকট কেন চিঠি যায় না? এমন প্রশ্ন রাখেন নেতারা।


সভা সূত্র জানায়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা বিদেশে দলাদলি, গ্রুপিং বাদ দিয়ে প্রতিটি দেশে একটি করে আওয়ামী লীগ শাখা রাখা ও দলের প্রবাসী নেতাদের আত্মসমালোচনা করার কথা জানান। সরকার সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা অপচেষ্টা কঠোরভাবে দমন করেছে। দেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন, অগ্রগতি হয়েছে। এসব বিষয় ছাড়াও বিদেশে বাংলাদেশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি তুলে ধরার কাজ করা, নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয় ফেসবুকে না এনে বিএনপি-জামায়াতের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে লেখালেখি করা এবং সাম্প্রদায়িক অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বিএনপি-জামায়াতের প্রকৃত চরিত্র সংশ্লিষ্ট দেশের আইন প্রণেতা ও সরকারের কাছে তুলে ধরার জন্য ইউরো নেতাদের প্রতি আহবান জানান। এছাড়াও ষড়যন্ত্রকারীদের পরাজিত করতে হলে অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকার নির্দেশনাও দেন তারা।


এসময় ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দকে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়, যে দেশে বসে অপপ্রচারকারীরা প্রচারণা চালাচ্ছে, সে দেশের আইন অনুযায়ী যে সমস্ত ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব তা করা হচ্ছে কি-না? সেখানকার আওয়ামী লীগ কি ব্যবস্থা নিচ্ছে? কোন দেশের কমিটি কোথায়, কি পদক্ষেপ নিয়েছে? তার রিপোর্ট জমা দিতে হবে। ইউরোপের এসব দেশের শাখা কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে এসব মূল্যায়ন করা হবে বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দেন নেতারা।


সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ সভাপতি এম নজরুল ইসলাম বিবার্তাকে বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্ব গড়ার স্বপ্ন দেখিয়েছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা আমাদের বেশকিছু নির্দেশনা দিয়েছেন। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন, অগ্রযাত্রা বিভিন্ন দেশের আইন প্রণেতা, সরকারের কাছে তুলে ধরার কথা বলেছেন। কোভিডের কারণে আমরা সম্মেলন করতে পারছি না। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে আমরা সম্মেলন শুরু করবো। মূল্যায়ন সবসময় কাজের ওপর হয়। এবার আমরা দেখে কমিটি গঠন করবো।



ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতারা অপপ্রচার রোধে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। এমন অভিযোগের বিষয়ে এম নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা ইতোমধ্যে এসব বিষয় নিয়ে কাজ করছি। কিছুদিন আগেও অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পিনাকী ভট্টাচার্য ও তাসনিম খলিল দুইজনই বিদেশে বসে বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতায় লিপ্ত আছেন। তারা প্রবাসে বসে বাংলাদেশ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধু পরিবারকে নিয়ে মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছেন। তারা বাংলাদেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে। আইনগতভাবে এসব অপপ্রচার বন্ধ হওয়া দরকার, এজন্য আমরা বিষয়গুলো সংশ্লিষ্ট দেশের আইনের দৃষ্টিতে এনেছি।


ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ কাশেম বিবার্তাকে বলেন, বিদেশে বসে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার মেনে নেয়া যায় না। ফ্রান্সে বসে পিনাকী ভট্টাচার্য ফেসবুক, ইউটিউবে অপপ্রচার অব্যাহত রেখেছে। একাত্তরের পরাজিত শক্তি ও তাদের দোসররা এসব কাজে মদদ দিচ্ছে। দেশের বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার বন্ধে আমরা মামলা করেছি। আমরা আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি।


সভায় অংশ নিয়েছিলেন আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য কামারুজ্জামান নান্না মিয়া। তিনি বিবার্তাকে বলেন, আমাদের আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগে কিছুটা সমস্যা ছিলো। আমরা এসব কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করছি। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমাদের বেশকিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সবাইকে নিয়ে বৈঠক করে আমরা সিদ্ধান্ত নিবো কিভাবে এসব নির্দেশনা বাস্তবায়ন করা যায়।


তিনি বলেন, সামনে আমাদের সম্মেলন হওয়ার কথা ছিলো। ওমিক্রন বেড়ে যাওয়ায় করতে পারছি না। নজরুল ভাই বলেছেন, পরিস্থিতির উন্নতি হলে দ্রুত সম্মেলন করা হবে। আমরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্দেশনা মেনেই সামনে এগিয়ে যাবো।


বিবার্তা/সোহেল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com