ই-ভিসা চালুর দাবি, পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে
প্রকাশ : ১৫ মে ২০২২, ১১:২১
ই-ভিসা চালুর দাবি, পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বাংলাদেশ ভ্রমণে বিশ্বব্যাপী পর্যটকদের আগ্রহ রয়েছে। কিন্তু ভিসা জটিলতাসহ নানা সমস্যার কারণে বাংলাদেশে আসতে অনীহা প্রকাশ করেন তারা। পর্যটন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, পর্যটন-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা অনেক দিন ধরেই বিদেশিদের জন্য ভিসার প্রক্রিয়া সহজ করার দাবি জানাচ্ছেন। ই-ভিসা চালু এখন সময়ের দাবি। ই-ভিসা দ্রুত বাস্তবায়ন কর‍া উচিত বলে মনে করেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা। এছাড়া পর্যটন, ভিসা এবং ভিসা ফি সম্পর্কে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ দূতাবাসে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দেওয়া আছে। এতে পর্যটকদের বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়।


পর্যটন খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, ভিসার ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়ে অনেক পর্যটকই আসতে চান না। সে কারণেই ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, ফিনল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, নিউজিল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, মিয়ানমার, ভিয়েতনাম, বাহরাইন ও লাওস এ সুবিধা চালু করেছে। এ সুবিধা চালু হলে একজন বিদেশি পর্যটক অনলাইনে প্রয়োজনীয় ফি দিয়ে তাঁর ছবি ও পাসপোর্ট আপলোড করে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাঁর ই-মেইলে পৌঁছে যাবে ‘ইলেকট্রনিক ট্রাভেল অথরাইজেশন’ (ইটিএ) কিংবা ই-ভিসা। এ ছাড়া মাল্টিপল ভিসা-সুবিধা থাকলে একজন পর্যটক ভারত, নেপাল ঘুরে বাংলাদেশ হয়ে যাওয়া-আসা করতে পারবেন।


বেশকিছু প্রতিকূলতার মধ্যে বড় বাধা হয়ে আছে বাংলাদেশের ভিসা পলিসি। এটি পর্যটনবান্ধব নয়। করোনার সময় বন্ধ করা হয়েছিল অন-অ্যারাইভাল ভিসা। এখনও সেটা বন্ধই আছে। বাংলাদেশে বছরে কতজন বিদেশি পর্যটক আসেন তার সঠিক পরিসংখ্যান নেই। পর্যটন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সারা বিশ্বে প্রতি বছর ১০০ কোটিরও বেশি পর্যটক ভ্রমণ করেন। সেখানে বাংলাদেশে বিদেশি পর্যটক হতে পারে বড়জোর বছরে ৩-৫ লাখ। করোনার পর সংখ্যাটা আরও কমেছে। যেখানে বিশ্বের অনেক দেশের অর্থনীতি পর্যটন খাতের ওপর ভর করে দাঁড়িয়ে গেছে, সেখানে পর্যটন সম্ভাবনা কাজে লাগাতে মোটামুটি ব্যর্থই আমরা। ধীর গতিতে হলেও ট্যুর অপারেটররা বিদেশি পর্যটক আনতে কাজ করছেন। দেশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি তুলে ধরতে সচেষ্ট তারা।


তবে বিদেশি পর্যটকরা বাংলাদেশে আসতে প্রথমেই যে বাধার মুখে পড়ছেন তা হলো ভিসা। ভিসার জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে তাদের। এতে অনেকেই বাংলাদেশে আসার আগ্রহ হারাচ্ছেন। বিশ্বের অনেক দেশে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় অন-অ্যারাইভাল ভিসা চালু হয়েছে। বাংলাদেশে এখনও হয়নি। ফলে বিদেশিদের ভিসা পেতে বাংলাদেশের দূতাবাস অথবা হাইকমিশনে যেতেই হবে। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জাবেদ আহমেদ বলেন, 'আমরা যদি ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করি তবে পর্যটন খাত অনেক দূর এগোবে। পর্যটন এগিয়ে গেলে বৈদেশিক মুদ্রা আসবে। কিন্তু আমাদের ভিসা পলিসি পর্যটনবান্ধব নয়। প্রায়ই ট্যুর অপারেটররা ভিসা সংক্রান্ত অভিযোগ নিয়ে আসেন। আমরাও সেগুলো নিয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোতে সুপারিশ করি।' ভারত, নেপাল, ভুটানসহ প্রতিবেশী দেশগুলোর জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা রাখা প্রয়োজন বলে মত সংশ্লিষ্টদের। একইসঙ্গে ই-ভিসা চালুরও দাবি তাদের। ভিসা সহজ হলেই বাড়বে পর্যটন।


বিবার্তা/এসবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com