জনপ্রিয়রা ঢাবির নেতৃত্বে আসবে : ছাত্রলীগ
প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:২৫
জনপ্রিয়রা ঢাবির নেতৃত্বে আসবে : ছাত্রলীগ
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সমন্বিত ১৮ টি হল সম্মলনে শিক্ষার্থী ও কর্মীদের মাঝে যারা জনপ্রিয় তাদেরকে নেতৃত্ব আনা হবে। যাদের হাত ধরে ইতিবাচক পরিবর্তন আশা করা যায়।


শনিবার (২৯ জানুয়ারি) বেলা ১১ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন এটি বলেন।


সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল শাখা ছাত্রলীগের সমন্বিত বার্ষিক 'হল সম্মেলন ২০২২' এর সার্বিক বিষয়াবলীর উপর আলোকপাত করা হয়। এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন এবং হল সম্মেলনের আহবায়ক বরিকুল ইসলাম বাধন সহ বিভিন্ন হলের পদপ্রত্যাশী ও নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, আপোষহীন নেতৃত্ব যারা বদ্ধপরিকর ও রাজপথে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে সবসময় এগিয়ে থাকে তারাই নেতৃত্বের অবস্থানে আসতে পারবে। সাংগঠনিক অবকাঠামোগত নিয়মাবলি মেনে যারা নেতৃত্ব করতে চায় এবং দেশের জন্য নিবেদিত প্রাণ ছাত্রলীগ তাদেরকেই অগ্রাধিকার দিবে। এখানে কোনো অভিযুক্ত নেতাদের স্থান দেয়া হবে না, যাদের মাধ্যমে হলের বিভিন্ন পরিবর্তন আশা করা যায় তারাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে নেতৃত্ব দিবে।


এছাড়াও তিনি পদপ্রত্যাশীদের ক্ষেত্রে পারিবারিক ঐতিহ্যকে প্রাধান্য দেয়া হবে বলে জানান। তিনি বলেন, পারিবারিক ঐতিহ্যের মাধ্যমে গুণাবলি সম্বলিত নেতৃত্বের আশা করা যায়।


সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে যারা জনপ্রিয় এবং শিক্ষার্থীদের কল্যাণে যারা কাজ করতে বদ্ধ পরিকর তাদেরকে হলের নেতৃত্বে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। ইতোমধ্যেই আমরা ১৮ টি হলে কর্মী সভার মাধ্যমে পদপ্রত্যাশীদের উপর জরিপ করেছি এবং সিভি যাচাই-বাছাই করেছি।দ্বিতীয় অধিবেশনে আলোচনার মাধ্যমে কর্মীদের মাঝে জনপ্রিয় নেতাদের হলের নেতৃত্বে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। প্রার্থীর ক্ষেত্রে যদি নেতিবাচক কোনো অভিযোগ পাওয়া যায় তাকে কখনও নেতৃত্বে আসতে দেয়া হবে না।


আর যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ভিত্তিতে সাংগঠনিক নিয়মানুযায়ী রাজনৈতিক আচরণে প্রতিজ্ঞ হয় তাহলে বিশৃঙ্খলা হবে না।অন্যথায় যারা এর বিপরীতে অবস্থান করবপ তাদের জন্য সাংগঠনিক দায়ভার বহন করতে হবে। এখানে উড়ে এসে জুড়ে বসে কেউ নেতৃত্বে আাসতে পারবে না। প্রত্যাশার এই হল সম্মেলন বিশ্বের মহামারি পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় যথাসময়ে করতে পারিনি।


উল্লেখ্য, আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল শাখা ছাত্রলীগের সমন্বিত বার্ষিক 'হল সম্মেলন ২০২২' ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তন (টিএসসি) এ উদযাপন করা হবে। হল সম্মেলনের সার্বিক বিষয়াবলীর উপর আলোকপাত করার লক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলনে তারা এসব কথা বলেন।


বিবার্তা/সাইদুল/বিএম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com