আমীরাতে এক বাংলাদেশী নারীর ভাগ্যবদল
প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৮:১৫
আমীরাতে এক বাংলাদেশী নারীর ভাগ্যবদল
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

সংযুক্ত আরব আমীরাতে প্রায় ২০ বছর ধরে বাস করছেন এক বাংলাদেশী নারী। কিন্তু তিনি বা তাঁর পরিবারের কারোই কোনো পাসপোর্ট বা আইডি (পরিচয়পত্র) কিছুই ছিল না। ফলে বৈধভাবে তাদের দেশে ফেরার সুযোগ তো ছিলই না, এমনকী তাঁর ১৫ ও ১৬ বছর বয়সী দু' মেয়ের স্কুলে যাওয়ারও কোনো উপায় ছিল না।


সংযুক্ত আরব আমীরাতের জেনারেল ডাইরেক্টরেট অব রেসিডেন্সি অ্যান্ড ফরেইনার্স অ্যাফেয়ার্স (জিডিআরএফএ)-র কল্যাণে অবশেষে ৫৫ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশী নারী ও তাঁর কিশোরী কন্যাদের বৈধভাবে ওই দেশে সুযোগ হলো।


জিডিআরএফএ-র আগমন ও আবাসন পারমিট বিভাগের পরিচালক কর্নেল হাজীম বিন ফালাহ আল সুয়াইদি জানান, ওই নারী আমাদের কাছে এসে তার সমস্যার কথা জানান এবং আমাদের সাহায্য চান। বলেন, স্বামী তাকে ছেড়ে চলে গেছে অনেক দিন আগে। সে বেঁচে আছে কিনা, থাকলে কোথায় আছে, কেমন আছে কিছুই জানেন না তিনি। নারীটির এক বোন আমীরাতের এক ব্যক্তিকে বিয়ে করে এদেশের নাগরিকত্ব পেয়েছে। ওই বোনের সহায়তা নিয়েই অসহায় পরিবারটি এতদিন কোনোমতে বেঁচে রয়েছে। কিন্তু অবৈধ অভিবাসী হওয়ায় কর্তৃপক্ষের কাছে কোনো রকম সাহায্যও চাইতে পারছিলেন না। কারণ, অবৈধভাবে বসবাসের দায়ে আগে বিপুল অঙ্কের জরিমানা গুনতে হতো তাঁকে। সে টাকা কোথায় পেতেন তিনি!


এবার সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নিয়ে জিডিআরএফএ-র শরণাপন্ন হন তিনি। ভাগ্যবিড়ম্বিতা এ নারীর দুঃখের কথা শুনে জিডিআরএফএ কর্তৃপক্ষ সাধারণ ক্ষমার আওতায় ওই নারী ও তাঁর দু'মেয়ের ইলিগ্যাল স্ট্যাটাস সংশোধন করে দেন।


সবকিছু ঠিকঠাক হওয়ার পর স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে ওই নারী বলেন, সাধারণ ক্ষমা আমার দুই মেয়ের জীবন বদলে দিলো। এখন তারা তাদের জীবনের লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে যেতে পারবে। আমরা এখন এদেশে নির্ভয়ে থাকতে পারবো। সূত্র খালিজ টাইমস


বিবার্তা/হুমায়ুন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com