ক্ষেতলালে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ
প্রকাশ : ৩১ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৪৬
ক্ষেতলালে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ
জয়পুরহাট প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার ইকরগাড়া গ্রামে সরকারি খাস পুকুর পাড়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।


এলাকাবাসী জানায়, গত বুধবার সকালে উপজেলার ইকরগাড়া গ্রামে মৃত আজিজুল ইসলামে ছেলে নুরে আলম সিদ্দিকী পিন্সসহ অজ্ঞাত ১০ জন বড় কড়ই গাছ কেটে ফেলে। গাছটির অনুমানিক মূল্য ৮০ হাজার টাকা হবে। শুক্রবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, পুকুর পাড়ের পাশে ওই গাছটির কাটা এবং গোড়া খোড়া হয়েছে। ডালপালা কেটে নুরে আলম সিদ্দিকী পিন্সের বাড়ির সামনে রাখা হয়েছে।


স্থানীয়দের অভিযোগ, গাছ কাটার সময় তুলশিগঙ্গা ইউনিয়ন অফিসের তহশীলদার ইত্তাজুল ইসলাম গাছটি কাটা বন্ধ করে দেন। বর্তমানে গাছ কাটার কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও তারা গাছ কাটতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। প্রশাসনের সাথে আতাতও শুরু করেছে তারা। এজন্য জড়িতদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন।


অভিযুক্ত নুরে আলম সিদ্দিকী পিন্সে সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি বলেন, আমি সাধারণ কোনো ব্যক্তি না। আপনার কী করার আছে করেন।


তুলশিগঙ্গা ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান ফিতা মিয়া জানান, আমি জানতে পাড়ি এবং ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। তুলশিগঙ্গা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (তহশিলদার) কে খবর দেই । তবে গাছটি সরকারি জায়গায়।


তুলশিগঙ্গা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (তহশিলদার) ইত্তাজুল ইসলাম বলেন,‘গাছের অবস্থান সরকারি জায়গায়, তাই গাছ কাটা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে গত ৩০ আগষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি রির্পোট দাখিল করা হয়েছে।’


ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরাফাত রহমান জানান, গাছ কাটার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


বিবার্তা/শামীম/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com