বগুড়ায় পতিতালয়ে পুলিশের অভিযান, আটক ৭
প্রকাশ : ২১ জুন ২০১৮, ০১:২৬
বগুড়ায় পতিতালয়ে পুলিশের অভিযান, আটক ৭
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বগুড়ার শেরপুরে আবাসিক এলাকায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে দেহব্যবসা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। পৌর শহরসহ উপজেলার একাধিক এলাকার বাসা-বাড়িতে গড়ে তোলা হয়েছে ‘মিনি পতিতালয়’। মোটা অঙ্কের টাকার চুক্তিতে দিনে-রাতে চালানো হচ্ছে এসব অনৈতিক ব্যবসা। এমনকি ওইসব মিনি পতিতালয়ে মাদকদ্রব্য সরবরাহও করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।


পতিতালয়ের সন্ধান পেয়ে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। অভিযানের প্রথমদিন গত মঙ্গলবার (১৯ জুন) উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মদনপুর এলাকার একটি বাড়ি থেকে সাতজনকে আটক করা হয়েছে।


এরা হলো- উপজেলার মদনপুর গ্রামের মৃত মঞ্জুরুল ইসলামের স্ত্রী হালিমা বেওয়া ওরফে ন্যাড়ানি (৫২), তার বোন স্বামী পরিত্যক্তা শাহিদা খাতুন (৩৫), ধনকুন্ডি গ্রামের আবুল কাশেমের স্ত্রী রিক্তা খাতুন (২৮), সুত্রাপুর গ্রামের হাফিজার রহমান (৪০), ফজর আলী (৩০), মহিপুর নতুনপাড়া গ্রামের শাহ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২০) ও নন্দীগ্রাম উপজেলার রুপিহার গ্রামের সাগর মিয়া (২২)।


এ ঘটনায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে। আটক ৭ জনকে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ৬ জন পলাতক রয়েছে।


শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) বুলবুল ইসলাম এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মদনপুর গ্রামের ওই বাড়িতে দেহ ব্যবসা চালানো হচ্ছিল। স্থানীয় ও আশপাশের এলাকা থেকে মেয়েদের নিয়ে এসে জমজমাটভাবে চালানো হতো এই অনৈতিক কর্মকাণ্ড। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়।


বিবার্তা/নজরুল/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com