কদর বাড়ছে সিলেটি সাতকরার
প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:৪৪
কদর বাড়ছে সিলেটি সাতকরার
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

সিলেট অঞ্চলে জনপ্রিয় এক ধরনের লেবুর নাম সাতকরা। এই অঞ্চলে খাবার তালিকায় এটি উল্লেখযোগ্য স্থান দখল করে নিয়েছে। বিশেষ করে প্রবাসে থাকা সিলেটীদের মধ্যে এর কদর আরো বেশি। মজার ব্যাপার হলো, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও গরুর মাংস দিয়ে সাতকরা খাওয়ার কথা অনেকবার বলেছেন। এর পর থেকে ওই ফলের কদর আরো বেড়ে গেছে। সাথে সাথে বেড়ে গেছে দামও।


সম্প্রতি সিলেটের বাজারগুলোতে ক্রেতা-বিক্রেতার সঙ্গে আলাপ করে এমনটাই জানা গেছে।


জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৩ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে সিলেট গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে প্রায় এক ঘণ্ট যাত্রাবিরতি এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সাক্ষাত দেন তিনি। পরে সিলেট আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘আমি গত ৩ অক্টোবর সিলেটে গিয়েছিলাম। সিলেটে গিয়েছি। কিন্তু গরুর মাংস আর সাতকরা খাওয়া হয়নি। এজন্য আমার আফসোস আছে। আমি আগামীতে সিলেট গেলে গরুর মাংস দিয়ে সাতকরা খেতে চাই।


প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের পর আওয়ামী লীগ নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে সাতকরা খাওয়ানোর জন্য ব্যগ্র হয়ে পড়েন। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে প্রধানমন্ত্রী আবার সিলেট সফরে যান। সেই সময় সিলেট সার্কিট হাউজে দুপুরের খাবার খেয়েছিলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর জন্য গরুর মাংসের সাথে সাতকরা রান্না করা হয়েছিল। এরপর থেকে সিলেটে সাতকরার কদর আরো বেড়ে যায়।


সিলেটীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, জাম্বুরার চেয়ে একটু ছোট সাইজের টক-মিষ্টি স্বাদের ওই ফলের আসল নাম ‘সাতকরা’ হলেও সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় একে ‘হাতকরা’ নামেই ডাকা হয়।


সিলেটের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা পর্যাপ্ত পরিমাণে সাতকরার মজুদ রেখেছেন। ছোট, মাঝারি ও বড় সাইজের সাতকরা বিক্রি হচ্ছে ভিন্ন ভিন্ন দামে। ছোট সাইজের সাতকরার হালি ১২০ থেকে ২০০ টাকা। মাঝারিগুলোর দাম হালিপ্রতি ২০০ থেকে ৩০০ টাকা। আর বড় সাইজের সাতকরার হালি ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে বর্তমানে সাতকরার ভরা মৌসুম থাকায় দাম কিছুটা কম বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা।


বন্দরবাজারের সাতকরা ব্যবসায়ী আবুল কালাম বিবার্তাকে জানান, তিনি দীর্ঘ দিন থেকে সাতকরা বিক্রি করছেন। সিলেটের বাজারে সাতকরার কদর অনেক বেশি। বিশেষ করে সিলেটের বেশিরভাগ লোকজন বিদেশে বসবাস করেন। তারা এ ফলটি খুব পছন্দ করেন। তাদের মাঝে বিক্রিও বেশি হয় ফলটি।


বর্তমানে ওই ফলের মৌসুম চলেছে জানিয়ে তিনি বলেন, এই সময়ে দাম একটু কম হয়। এখন ১২০ টাকা থেকে ৩০০ টাকার মধ্যে হালি বিক্রি করা হচ্ছে। তবে অন্য সময় এক হালি সাতকরা ৭০০ থেকে হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা হয়।


কথা হয় আমেরিকাপ্রবাসী নাজমা বেগমের সাথে। তিনি বিবার্তাকে জানান, সাতকরা তার খুব প্রিয় খাবার। ২০০৬ সালে তিনি আমেরিকায় গেছেন। সেই দেশে যাওয়ার পরও প্রতি বছর স্বজনদের মাধ্যমে তিনি সাতকরা বিদেশে নিয়ে যান।


শুধু নাজমা বেগমই নন, এভাবে সিলেটের বেশিরভাগ প্রবাসীই সাতকরা বিদেশে নিয়ে যান। এছাড়াও দেশে যারা থাকেন তারাও নিয়মিত এ ফল রান্না করে খেয়ে থাকেন বলে জানিয়েছেন সোহেল আহমেদ নামের এক জন।


সিলেট নগরীর দরগাহ গেইট এলাকার বাসিন্দা সোহেল বলেন, গরুর গোশতের পাশাপাশি ছোট মাছ ও কচু শাক দিয়েও সাতকরা খাওয়া যায়। বর্তমানে সিলেটের বাজারে কাচের বোতলে সাতকরার আচারও পাওয়া যায়। সিলেটে আসা অন্য জেলা লোকজনের কাছে কাঁচা সাতকরার চেয়ে আচারের কদরই বেশি।


তিনি আরো জানান, বর্তমানে সিলেটের জৈন্তাপুর, বিয়ানীবাজার, গোলাপগঞ্জ, ছাতক, বড়লেখা, শ্রীমঙ্গল, কুলাউড়া, কমলগঞ্জ এবং টিলা এলাকায় সাতকরার গাছ দেখা যায়। তবে সবচেয়ে বেশি সাতকরা চাষ হয় সিলেটের পাহাড়ী এলাকায়। সিলেটের জৈন্তাপুর ও গোয়াইনঘাট এলাকার মাটি সাতকরা চাষের জন্য সবচেয়ে উপযোগী।


সাতকরার রেসিপি


উপকরণ : গরুর মাংস ১ কেজি, সাতকরা ফালি করা ৪/৫ টুকরো, লবণ আন্দাজমতো, আদাবাটা ১ টেবিল-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, কাটা পেঁয়াজ ২ কাপ, হলুদের গুঁড়া ১/২ চা-চামচ, মরিচের গুঁড়া ঝাল অনুযায়ী, জিরার গুঁড়া ১/২ চা-চামচ, তেজপাতা ২টি, গরম মসলা (এলাচ, দারুচিনি) ৩/৪ টি, সয়াবিন তেল ৩/৪ কাপ, গোল মরিচ ৭/৮ টি, কাঁচামরিচ ৪/৫ টি।


প্রণালি : প্রথমে মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। তারপর সাতকরা, কাঁচামরিচ ও গোলমরিচ বাদে সব উপকরণ দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে কিছু সময় রেখে দিন। তারপর মাখানো মাংস চুলায় বসিয়ে দিন কড়া আঁচে। গোশতের পানি বের হয়ে গেলে ঢাকনা দিয়ে কম আঁচে রাখুন, যাতে গোশত সেদ্ধ হয়ে যায় এবং মাঝেমধ্যে নেড়ে দিন। একটি সাতকরাকে ফালি ফালি করে কেটে নিন। মাংস ৭০ ভাগ সিদ্ধ হয়ে গেলে সাতকরা দিন। রান্না হয়ে এলে কাঁচামরিচ ও গোলমরিচ দিয়ে কিছুসময় রেখে নামিয়ে নিন। ভাত, পোলাও বা খিচুড়ি দিয়েও খেতে পারেন।


খেয়াল রাখবেন : সাতকরা কেনার সময় পাতলা দেখে কিনবেন। পাতলা সাতকরা তেতো হয় না। আর তেতো সাতকরা হলে একটি ডেকচিতে পানি ফুটিয়ে তাতে সাতকরা দিয়ে ২/১ টা বলক উঠলে পানি ঝরিয়ে নেবেন।


বিবার্তা/খলিল/হুমায়ুন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com