মন্ত্রীর বাড়ির সৌন্দর্য রক্ষায় দোকান উচ্ছেদ!
প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৫৬
মন্ত্রীর বাড়ির সৌন্দর্য রক্ষায় দোকান উচ্ছেদ!
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

লক্ষ্মীপুরে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একে এম শাহজাহান কামালের বাড়ির সৌন্দর্য রক্ষায় বিনা নোটিশে তিনটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করা হয়েছে। রবিবার বিকালে হঠাৎ করেই শহরের চকবাজার এলাকায় জেলা পরিষদ থেকে বন্দোবস্ত নেওয়া দোকানগুলো গুড়িয়ে দেওয়া হয়।


সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শাজাহান আলি, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. সাব্বির রহমান সানি, জেলা পরিষদের লোকজন ও সদর থানা পুলিশ একদল শ্রমিক নিয়ে এই উচ্ছেদ অভিযান চালান। এ নিয়ে ব্যবসায়ীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।


ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, জেলা পরিষদ থেকে বন্দোবস্ত নিয়ে দীর্ঘ ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে শহরের মেইন রোডের পাশে এসব দোকান (চান্দিনা ভিটা) ভোগ দখল করে আসছেন তারা। বিকালে প্রশাসনের লোকজন গিয়ে তাদের দুই মিনিটের মধ্যে দোকানগুলো ছেড়ে দেওয়ার জন্য বলেন। ওই ব্যবসায়ীরা দোকানের মালামাল সরানোর সুযোগ পাননি। মুহুর্তেই প্রায় অর্ধশতাধিক শ্রমিক টিনের চালা খুলে সাইট ওয়াল গুড়িয়ে দেয়।


রাস্তা সম্প্রসারণের অজুহাতে মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সুবিধার জন্য তাদের উপর অবিচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন ক্ষতিগ্রস্থরা।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বণিক সমিতির এক নেতা বলেন, মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সুবিধার জন্য বন্দোবস্তকারীদের উচ্ছেদ করা ঠিক হয়নি। এতে আগামী সংসদ নির্বাচনের ভোটে প্রভাব পড়তে পারে।


এদিকে এ বিষয়ে জানতে চাইলে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভূমি কর্মকর্তা ক্যামেরার সামনে কোনো কথা বলতে রাজি হননি। তবে ভূমি কর্মকর্তা জানান, জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় দোকানগুলো উচ্ছেদ করা হয়েছে।


লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্রপাল বলেন, জেলা পরিষদ আমাদের কাছে উচ্ছেদ অভিযানের জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চাইলে আমরা ম্যাজিস্ট্রেট পাঠিয়েছি। নোটিশ দিয়েছে কি দেইনি তা জেলা পরিষদের এখতিয়ার।


উচ্ছেদ অভিযানকালে ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা জেলা পরিষদের সর্ভেয়ার মিজানুর রহমান গণমাধ্যমের সাথে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।ৱ


লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু দাউদ মো. গোলাম মোস্তফা বলেন, মন্ত্রীর বাড়ির সৌন্দর্য রক্ষা করতে নয়, রাস্তার সম্প্রসারণের জন্য দোকানগুলো ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। ওই জায়গাটি একসনা বন্দোবস্ত ছিল। তাদের মৌখিকভাবে বলা হয়েছে।


বিবার্তা/সুমন/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com