লামায় বাড়ি পেয়ে খুশি মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলী
প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:১৭
লামায় বাড়ি পেয়ে খুশি মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলী
লামা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন বাজি রেখে দেশ, জাতি ও মানবকল্যাণে ঝাঁপিয়ে পড়া অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধার সম্মানার্থে ও কল্যাণে এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ‘বীর নিবাস’ নামের একটি লাল সবুজের বাড়ি পেলেন বান্দরবানের লামা উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলী।


শেষ বয়সে সরকারি বাড়ি পেয়ে এ মুক্তিযোদ্ধা এখন খুশি। দেশ স্বাধীনের পর রজ্জব আলী উপজেলার লামা সদর ইউনিয়নের পশ্চিম লাইনঝিরি গ্রামে পুর্নবাসিত হয়ে একটি বাঁশের ঝুপড়ি ঘরে স্ব-পরিবারে বাস করতেন। মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধনে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশল অধিদফতর ‘বীর নিবাস’ বাড়িটি নির্মাণ করে দিয়েছে।


সূত্র জানায়, ১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর দেশের সূর্য্য সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের, বিশেষ করে দরিদ্র ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবতে থাকেন। এ ধারাবাহিকতায় সরকার মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় গঠনসহ ধাপে ধাপে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানিবৃদ্ধি ও দুঃস্থ-যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন ব্যবস্থা গড়ে তোলার পরিকল্পনা হাতে নেন।


স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ‘বীর নিবাস’ নির্মাণ কাজ শুরু করে। বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষ এলজিইডি গত অর্থ বছরে সাড়ে নয় লাখ টাকা বাড়িটি নির্মাণের দরপত্র আহবান করেন। সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে রজ্জব আলীর বাড়ির নির্মাণ কাজ পান ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স মিল্টন ট্রেডার্স।


৫০০ বর্গফুটের বীর নিবাসে রয়েছে- দুইটি শয়নকক্ষ, একটি বসার কক্ষ, একটি রান্নাঘর, একটি বারান্দা, একটি টয়লেট ও একটি টিউবওয়েল এবং বাড়ির বাইরে একটি পাকা উঠান, একটি গোয়ালঘর ও একটি পোলট্রি শেড।


চলতি মাসে বীর নিবাসের কাজ শেষ হওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলীকে বাড়ির চাবি বুঝিয়ে দেন। এ সময় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মাহাবুবুর রহমান, এলজিইডির সার্ভেয়ার মো. জাকির হোসেন মোল্লা, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আবু সুফিয়ান, সমাজ সেবক নুরুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


সরেজমিনে লামা সদর ইউনিয়নের পশ্চিম লাইনঝিরি গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলীর বাড়িতে গেলে চোখে পড়ে সদ্য নির্মাণ কাজ শেষ হওয়া লাল-সবুজ রং করা ‘বীর নিবাস’।


এ মুক্তিযোদ্ধা বলেন, দীর্ঘ ভাঙ্গাচুড়া ঘরে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছিলাম। বাড়ি উপহার পাওয়ায় শেষ বয়সে হলেও তার দুঃখ-কষ্ট দূর হয়েছে। এখন আমি ভীষণ খুশি, পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ।


স্থানীয়রা জানায়, প্রায় ২০ বছর আগে মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলীর স্ত্রী মারা যান। এখন দুই ছেলে ও তিন মেয়ে নিয়ে তার সংসার। খেয়ে না খেয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন তিনি। তার এ খারাপ অবস্থা নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সচিত্র সংবাদও প্রকাশিত হয়।


প্রকাশিত সংবাদগুলো পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের নজর কাড়লে মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলীকে দালান ঘর নির্মাণ করে দেয়ার উদ্যোগ নেন।


এ বিষয়ে লামা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মাহাবুবুর রহমান জানায়, হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলীকে বীর নিবাস উপহারটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এজন্য আমরা মুক্তিযোদ্ধারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি চিরকৃতজ্ঞ।


বাড়ি উপহারের সত্যতা নিশ্চিত করে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এ ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের রেশন-ভাতা, সন্তানদের লেখাপড়া, চাকুরিসহ বিভিন্ন প্রকার আর্থিক সহযোগিতার পাশাপাশি বাড়িও উপহার দিচ্ছেন। এ প্রাপ্তিতে মুক্তিযোদ্ধা হেলু মিয়ার পর এবার রজ্জব আলীও একজন সৌভাগ্যবান।


তিনি আরও বলেন, উপজেলায় আরো অনেক অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে, আগামীতে তাদের জন্য বরাদ্দ পাওয়া সাপেক্ষে এ কর্মসূচির আওতায় ঘর নির্মাণ করে দেয়া হবে।


বিবার্তা/নুরুল/জাকিয়া


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com