ঘাঘট নদীর ভাঙনে আতঙ্কে সাদুল্যাপুরবাসী
প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:০২
ঘাঘট নদীর ভাঙনে আতঙ্কে সাদুল্যাপুরবাসী
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার পুরান লক্ষীপুর এলকায় ঘাঘট নদীর অব্যহত ভাঙ্গনে ঘরবাড়ি ছেড়ে যাচ্ছে মানুষ। ইতিমধ্যে ফসলি জমি, গাছপালা ও বসতবাড়ী নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। আরো প্রায় শতাধিক ঘরবাড়ি হুমকির মুখে।


সাদুল্যাপুর উপজেলা শহরস্থ ঘাঘট ব্রিজ থেকে কামারপাড়া ইউনিয়নের পুরান লক্ষীপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলীর বাড়ী হতে শহিদুল মেম্বরের বাড়ি পর্যন্ত নদী ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করেছে। এর ফলে আতঙ্কে রয়েছেন নদী তীরবর্তী মানুষ।


বুধবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা গেছে, ওই গ্রামের আব্দুর রশিদ ও রঞ্জু মিয়ার ৪টি ঘর নদীর পেটে চলে গেছে। তাদের অবশিষ্ট ইটের ঘরগুলোর ইট অন্যত্র সরিয়ে নিতে তা ভাঙা শুরু করেছেন।


এ ছাড়াও ওই এলাকার মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলীর বসতবাড়িটি চরম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে বাড়িটি নদীর পেটে চলে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগেও ঘাঘটের ভাঙ্গনে আনছার আলীর বাড়িটি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছিল বলে জানা গেছে।


কামারপাড়া ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম জানান, পুরান লক্ষীপুর এলাকাস্থ ঘাঘট নদীর ভাঙ্গন ঠেকাতে দীর্ঘদিন আগে লুপ কাটিংয়ের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডে আবেদন করেও কোনো ফল পাওয়া যায়নি।


ইউপি সদস্যা চায়না বেগম জানান, সাদুল্যাপুর উপজেলা শহরের সাথে একমাত্র যোগাযোগ রক্ষাকারী ঘাঘট তীরে এ রাস্তাটি। নিত্যদিন আমাদের এলাকার শতাধিক ছাত্রী/ছাত্রী সাদুল্যাপুর শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করেন। ঘাঘট নদীর ভাঙ্গনে রাস্তাটি বিভিন্ন স্থানে ভেঙ্গে যাওয়ায় চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।


কামারপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছামছুল হক মাষ্টার বলেন, এ বিষয়ে মাসিক সমন্বয় সভায় আলোচনা করা হয়েছে। গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্টরা জানান ওই এলাকায় ভাঙ্গন রোধে বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রহিমা খাতুন বলেন, এ বিষয়ে গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে এবং জেলার সভায় উপস্থাপন করা হয়েছে।


বিবার্তা/জাকির/সোহান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com