কোটি টাকার জমি দখলে নিতে ‘নাটকীয়’ মামলা
প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:৪৬
কোটি টাকার জমি দখলে নিতে ‘নাটকীয়’ মামলা
ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর সদস্যরা
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

লক্ষ্মীপুরে তিন পরিবারের প্রায় কোটি টাকার জমি দখলে নিতে ‘নাটকীয়’ মামলা করেছেন এক মতলববাজ চক্র। এ ঘটনায় সদর উপজেলার চরশাহীর নুরুল্যাপুর গ্রামের ওই পরিবারগুলোরসদস্যদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। মামলার হয়রানি থেকে মুক্তি পেতে সোমবার সকালে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবে একটি লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।


গত বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে শিমুল চক্রবর্তী একটি ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করেন। তিনি নিজেকে বিমানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত প্রতিনিধি (পিএস) দাবি করছেন। এ জন্য তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে রাজি হন না। এরআগেও ওই পরিবারগুলোকে কয়েকটি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে একই চক্রের স্বপন কুমার দাস ও তার ছেলে প্রদীপ কুমার দাস।


এরআগেও এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে গত ২৮ আগস্ট জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী নুরুল ইসলাম।


জানা গেছে, উপজেলার নুরুল্যাপুর গ্রামের মনোরঞ্জন দাস প্রায় ৪ বছর আগে সাড়ে ১৭ শতাংশ জমি নুরুল ইসলাম ও ২১ শতাংশ জমি আবদুল রশিদের কাছে বিক্রি করেন। তারা ওই জমিতে ঘর নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন। জমি কেনার পর থেকেই স্বপন কুমার দাসসহ একটি মতলববাজ চক্র তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। এছাড়া ওই চক্র মনোরঞ্জনের ৪৯ শতাংশ জমি দখলে নিতে লক্ষ্মীপুর জেলা আদালতে একটি মামলা করে। কিন্তু মামলার রায়ে মনোরঞ্জন জমির মালিক গণ্য হন। চক্রটি ওই রায়ের বিপক্ষে আপিল করেছে বলে প্রচার করছে।


অন্যদিকে ওই চক্রের সদস্য শিমুল চক্রবর্তী বিমানমন্ত্রীর সাবেক পিএস দাবি করে তিন পরিবারের সদস্যদেরকে হয়রানি করে আসছে। লোকজন দিয়ে পরিবারগুলোকে মিথ্যা মামলা ও হামলার হুমকি দিয়ে আসছে।


এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নুরুল ইসলাম বলেন, আমি মনোরঞ্জন দাস থেকে জমি কিনেছি। এরপর থেকেই স্বপন দাস বিভিন্ন ভাবে আমাকে নির্যাতন করে আসছে। সম্প্রতি আমার জমি দখলে নিতে স্বপন লোকজন নিয়ে আমাকে পিটিয়ে আহত করে। এসময় বাধা দিতে গেলে আমার পরিবারের সদস্যদেরকেও মারধর করে। এ ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে শিমুল চক্রবর্তী আমাদের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা করে।


মনোরঞ্জন দাস বলেন, চাকরির কারণে আমি লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বাঞ্চানগর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকি। মাঝে মধ্যে বাড়ি গেলে স্বপন ও তার ছেলে প্রদীপ আমাকে মারধরের হুমকি দেয়। তারা কয়েকবার আমি ও আমার ছেলে সুমন দাসের ওপর হামলা করে। এখন তারা জোরপূর্বক জমি দখলে নিতে লোকজন দিয়ে আমাকে হুমকি দিচ্ছে।


চরশাহী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলজার মোহাম্মদ বলেন, স্বপন জোর করে পরিবারগুলোর জমি দখলের চেষ্টা করছে। স্থানীয়ভাবে কয়েকবার বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করলেও স্বপন কোনো দলিলাদি দেখাতে পারেনি। তবুও তারা ওই জমিগুলো দখল করতে মামলা-হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।


বিবার্তা/সুমন/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com