পাল্টে গেছে তিন মহাসড়কের চিত্র
প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:৫০
পাল্টে গেছে তিন মহাসড়কের চিত্র
গাজীপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

সড়ক দুর্ঘটনা ও যানজটের অন্যতম কারণ সড়ক-মহাসড়কে অনিয়ন্ত্রিতভাবে চলাচলরত অবৈধ লেগুনা, অটোরিকশা, ইজিবাইক, সিএনজি, নসিমন, করিমন ও ভডবডি। আর এসব পরিবহন মহাসড়ক থেকে অপসারণের জন্য দেশব্যাপী চলছে পুলিশের অভিযান।


এরই ধারাবাহিকতায় গত তিন দিনে সাভার ও গাজীপুরের গুরুত্বপূর্ণ তিন মহাসড়কে (নবীনগর-চন্দ্রা, ঢাকা-টাঙ্গাইল এবং ঢাকা-ময়মনসিংহ) অভিযান পরিচালনা করে আসছে পুলিশ। ফলে এই তিন মহাসড়কের চিত্র পাল্টে গেছে। মহাসড়কের বেশিরভাও স্থানেই নেই অবৈধ এসব যানবাহন। আর সাধারণ জনগণ সরকারের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে সেই সাথে গাজীপুরের নতুন পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারকে জানিয়েছে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন।


মহাসড়কে প্রতিদিন ভয়াবহ যানজট এবং দুর্ঘটনা ঘটছে। বিভিন্ন মহল থেকে একের পর এক এসব অবৈধ ও ফিটনেসবিহীন যানবাহন বন্ধের দাবি জানানো হয়। পরবর্তীতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী গাজীপুরে এসে এসব যানবাহন অপসারণের জন্য গাজীপুরের পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশনা প্রদান করেন। এর পরপরই গত ১ সেপ্টেম্বর গাজীপুরের নতুন পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার এসব যানবাহন না চালাতে পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করার নির্দেশনা জারি করেন।



সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখা গেছে, মহাসড়কের বেশির ভাগ স্থানেই নেই লেগুলা, ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা, করিমন, নসিমন ইত্যাদি অবৈধ যানবাহন। আগে যে সব স্থানে সবসময় ৫০-১০০টি অটোরিকশা দাঁড়িয়ে থাকতো সেখানে নেই একটি রিকশাও।


সাভারের নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক, গাজীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পয়ন্টে পয়ন্টে পুলিশের অবস্থানে মহাসড়কে উঠতে পারছে না এসব পরিবহন। ফলে মহাসড়কে এখন লেগুনা, অটোরিকশা, ইজিবাইক, সিএনজি, নসিমন ও করিমন নেই বললেই চলে।


তবে হঠাৎ বিপুল সংখ্যক এসব যানবাহন না থাকার কারণে দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে গাজীপুর ও সাভারে বসবাসকারীদের। বাসের জন্য যাত্রীদের বিভিন্ন স্ট্যান্ডে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। যানবাহন কম থাকার কারণে গণপরিবহনগুলো যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেছে বলে অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।



কয়েকজন বাস যাত্রীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, মহাসড়ক থেকে এসব যানবাহন অপসারণ করা হয়েছে এটা ভাল উদ্যোগ। তবে অবৈধ লেগুনা ও ব্যাটারিচালিত এসব যানবাহন বন্ধে খুশি হলেও যাত্রীসেবায় এর বিকল্প পরিবহন প্রত্যাশা করছেন।


গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন এবং গাজীপুরকে যানজটমুক্ত করতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অবৈধ যানবাহন বন্ধে পুলিশের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। নির্দেশনা অমান্য করে কেউ এসব যানবাহন মহাসড়কে চালানোর চেষ্টা করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


বিবার্তা/তুহিন/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com