পীরগঞ্জে জোরপূর্বক যানবাহন থেকে চাঁদা উত্তোলন
প্রকাশ : ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১২:৫৫
পীরগঞ্জে জোরপূর্বক যানবাহন থেকে চাঁদা উত্তোলন
রংপুর ব্যুরো
প্রিন্ট অ-অ+

রংপুরের পীরগঞ্জ পৌর সদরে দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভা ও শ্রমিক সংগঠনের নামে চিহ্নিত কয়েকজন রশিদ দিয়ে রিকশা-ভ্যান, অটো, সিএনজি, ট্রাক্টর, ট্রলি, ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন থেকে জোরপূর্বক চাঁদা তুলছে। এ নিয়ে চাঁদা উত্তোলনকারীরা চালকদের সাথে প্রতিনিয়তই বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ছে। কোনোভাবেই বন্ধ করা যাচ্ছে চাঁদা উত্তোলন।


অভিযোগ ও ভুক্তভোগীদের সূত্রে জানা গেছে, পীরগঞ্জ পৌরসভার ভিতরে কোনো যানবাহন প্রবেশ কিংবা বাইরে গেলেই সেগুলোকে নির্দিষ্ট অংকের টাকা দিতে হয়। এ জন্য পৌরসভা এবং শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে চিহ্নিত কয়েকজন ব্যক্তি রয়েছে। প্রতিটি রিকশা, ভ্যান, অটো রিকশা, টেম্পু, মাহেন্দ্র, ট্রাক, বাসসহ অন্যান্য যানবাহন থেকে পৌরসভার নামে ছাপানো রশিদে ২০ টাকা হারে চাঁদা তোলা হচ্ছে। পাশাপাশি শ্রমিক সংগঠনও ২০ টাকা করে নিচ্ছে।


অপরদিকে প্রতিটি ট্রাক, ট্রাক্টর, মাহেন্দ্র গাড়িতে মালামাল উত্তোলন করলে লোড ভাড়া হিসেবে ৫০ টাকা করে জোরপূর্বক চাঁদা নেয়া হচ্ছে। ফলে চাঁদা উত্তোলনকারীদের সাথে প্রায়ই যানবাহনের চালকদের সাথে বাকবিতণ্ডা লেগেই থাকে।


অপরদিকে পৌর সদরে ভয়াবহ যানজট লেগে থাকছে। ভুক্তভোগী এক চালক নাম না প্রকাশের শর্তে অভিযোগ করে বলেন, আমরা দিনরাত পরিশ্রম করে আয় করছি। তা থেকে জোরপূর্বক পীরগঞ্জ পৌরসভা ও শ্রমিক সংগঠনের নামে ৪০ টাকা করে চাঁদা দিতে হচ্ছে। দিনে যতবার পীরগঞ্জ সদরে ঢুকি, ততবারই চাঁদা দিতে হয়। আমরা কি এ অত্যাচার থেকে রেহাই পাবো না?


পৌরসভার নামে চাঁদা উত্তোলনকারী গোলাপ মিয়া জানায়, আমাকে যেভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেভাবেই চাঁদা তুলছি। এতে অনেকের সাথে ঝগড়া লাগে। কিন্তু কি করবো? এতে আপনার ভাগ কেমন থাকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি শতকরা ২০ টাকা হারে কমিশন পাই।


পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানম বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


বিবার্তা/সোহেল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com