সিরাজগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ
প্রকাশ : ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৩২
সিরাজগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ
পুরনো ছবি
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার দারিয়াপুর মন্ডলপাড়া গ্রামে যৌতুকের দাবিতে মিতু আক্তার (২১) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শ্বশুরবাড়ির লোকজন সবাই পলাতক রয়েছে।


রবিবার ভোরে মিতুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উল্লাহপাড়া চরশ্রিপলগাতি গ্রামের গোলাম মোস্তফার মেয়ে এবং শাহজাদপুর দারিয়াপাড়া পুলিশ কনস্টেবল মনিরুলের স্ত্রী।


স্থানীয়রা জানান, মৃত গৃহবধূর শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে মাঝে মধ্যেই নির্যাতন করতো। তার স্বামী রাজশাহীতে পুলিশের চাকরি করে। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এরই এক পর্যায়ে গত শনিবার সন্ধ্যায় সে মিতুকে পিটিয়ে হত্যা করে ঘরে তালা দিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।


মিতু আক্তারের বাবা গোলাম মোস্তফা জানান, আড়াই বছর আগে শাহজাদপুর দারিয়াপুর মন্ডলপাড়া গ্রামের শওকত মন্ডলের ছেলে মনিরুলের সঙ্গে বিয়ে হয় মিতুর। বিয়ের সময় মেয়ের সুখের কথা ভেবে ১০ ভরি স্বর্ণের গয়না দেয়া হয় মিতুকে। এরপর বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবি করে আসছিল মিতুর শ্বশুর বাড়ির লোকজন। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় বাবার বাড়ি থেকে টাকা পয়সা আনার জন্য মিতুকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।


স্বামী মনিরুল বিয়ের পর থেকেই তার উপর নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিল। নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে বেশিরভাগ সময় মিতু বাবার বাড়িতে থাকতো। ঈদের ছুটিতে মনিরুল বাড়িতে আসলে মিতুর শ্বশুর তাকে নিয়ে যায়। গত শনিবার সন্ধ্যায় রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এর এক পর্যায়ে মিতুকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন পিটিয়ে হত্যা করে। যদিও সে ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার ব্যর্থ চেষ্টা করে।


মিতুর খালু মো. আব্দুর রশিদ জানান, মিতুর শ্বশুর বাড়ির লোকজন মেয়েকে নির্যাতন করতো। মেয়ের সুখের কথা ভেবে বিয়ের কথা গোপন রেখে মিতুর স্বামীকে পুলিশের চাকরি নিয়ে দেয়া হয়। চাকরি পাওয়ার পর মনিরুল বেশি একটা বাড়িতে আসতো না। বাড়িতে আসলে মিতুর ওপর অমানুষিক নির্যাতন চালাতো। স্ত্রীকে পছন্দ হয়নি সবার কাছে প্রচার করে।


শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খাজা গোলাম কিবরিয়া জানান, ঘটনার পর থেকে মৃত গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়িসহ বাড়ির সবাই পলাতক রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।


বিবার্তা/রানা/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com