কে হচ্ছেন যশোর-২ আসনের নৌকার মাঝি?
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৬:১৯
কে হচ্ছেন যশোর-২ আসনের নৌকার মাঝি?
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এখনো বাকি অনেক দিন। তবে এখনই নির্বাচনী হাওয়ায় জমে উঠেছে যশোর-২ আসনের নির্বাচনের মাঠ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন বাগিয়ে নিতে চালাচ্ছেন জোর লবিং এবং তদবির। সব সময়ই যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন কেন্দ্রের সাথে।


চৌগাছা-ঝিকরগাছা উপজেলা নিয়ে যশোর-২, জাতীয় সংসদের ৮৬ নির্বাচনী এলাকা। দুটি উপজেলা নিয়ে এ আসন গঠিত হওয়ার কারণে দুই এলাকা থেকেই রাজনীতিবিদরা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার প্রত্যাশা করে থাকেন। তবে কাকতালীয়ভাবেই হোক আর সাংগঠনিক কারণেই হোক, দেশ স্বাধীনের পর থেকে কোনো সময়ই চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। তবে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না কোনো এলাকার প্রার্থীরা।


যশোর-২ আসনের চলমান রাজনীতিতে পুনরায় নৌকার মাঝির দায়িত্ব পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন বর্তমান এমপি মনিরুল ইসলাম মনির। তবে তার বিরুদ্ধে তৃণমূল কর্মীদের সাথে যোগাযোগ না রাখার অভিযোগ রয়েছে। তাকে টেক্কা দিতে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক ছাত্র নেতা মো. আনোয়ার হোসেন। তৃণমূলেও জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন তিনি। এলাকায় বিভিন্ন সামজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণসহ দলীয় কর্মীদের পাশে দাড়ানোর কারণে যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছেন। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ওই আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে থাকলেও ওইবার মনোনয়ন পাননি তিনি।


গত বার মনোনয়ন না পেলেও আশাহত হননি যুবনেতা আনোয়ার হোসেন। কাজের ধারাবাহিকতা অব্যহত রেখে রাজনীতি চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ঈদ বা পুজা-পার্বণ সকল ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানেই সাহায্য সহযোগিতার মাধ্যমে সকলের পাশে থাকার চেষ্টা চালিয়ে যান।


হেফাজতের আন্দোলনে দমনে যশোরের চৌগাছা-ঝিকরগাছার মতো এলাকাতেও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে তা মোকাবেলা করেছেন। এছাড়া ওয়ান ইলেভেনের সময় ধানমন্ডির সুধাসদনে সার্বক্ষণিক ছিলেন এই আনোয়ার হোসেন। নেত্রী (শেখ হাসিনা)গ্রেপ্তারের পর জজ কোর্টে পড়ে থাকতেন, এছাড়া নিয়মিত নেত্রীর মুক্তি আন্দোলন, মানববন্ধন, স্বাক্ষর অভিযানে অংশ নিয়ে আওয়ামী রাজনীতির একজন পরীক্ষিত সৈনিক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন।


তৃণমূলে কথা বলে জানা যায়, চৌগাছা-ঝিকরগাছা আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে সার্বক্ষণিক মাঠে রয়েছেন আনোয়ার। সাধারণ মানুষের প্রতিনিধি হিসেবে ইতিমধ্যেই তিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। যে কোনো মানুষের আহ্বানে যে কোনো সময়ে ছুটে যান তিনি।


এ বিষয়ে গঙ্গানন্দপুর আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান বল্টু বিবার্তাকে বলেন, আনোয়ার হোসেন দীর্ঘ দিন ধরে তৃণমূলের কর্মীদের পাশে রয়েছেন। সুখে-দুঃখে মানুষের পাশে ছুটে যান। প্রার্থী হিসেবে তিনি তৃণমূলের হৃদয়কে স্পর্শ করেছেন।


এ বিষয়ে আরো কথা হয় বাকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমানের সাথে। তিনি বলেন, কে মনোনয়ন পাবে, আর কে পাবে না সেটা আমি বলতে পারবো না। নেত্রী যাকে মনোনয়ন দেবে তার পক্ষেই কাজ করবো।


কেন্দ্রের লবিং তদবিরে এগিয়ে থাকলেও তৃণমূলের আশা আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নে তেমন মনযোগী নন বেশিরভাগ প্রার্থী। এমনকি দলীয় সংসদ মনিরুল ইসলাম মনিরের বিরুদ্ধে চৌগাছা উপজেলায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, হামলা ও দলীয় নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলায় জড়ানোর অভিযোগে এনে সংবাদ সম্মেলনও করেছে চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ। ফলে চাপা ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে সেখানে।


তৃণমূলের অভিযোগের বিষয়ে যশোর-২ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম মনির মুঠোফোনে ফোন করলে তিনি কেটে দেন। পরবর্তীতে নিউজের বিষয়ে কথা বলতে চাই এমন একটি ক্ষুদে বার্তা তার মুঠোফোনে পাঠানো হলেও তিনি কোনো প্রতি উত্তর করেনি।


বিবার্তা/ওরিন/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com