যে কারণে গম চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন সাতক্ষীরার কৃষকরা
প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:০৬
যে কারণে গম চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন সাতক্ষীরার কৃষকরা
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

গমচাষে কৃষকরা লাভবান হলেও বর্তমানে আগ্রহ হারাচ্ছে চাষিরা। এমনই চিত্র দেখা গেছে সাতক্ষীরা জেলার কৃষকদের মধ্যে। উৎপাদন খরচের তুলনায় মুনাফা না পাওয়ায় গম চাষে আগ্রহ হারিয়েছেন বলে জানা গেছে।


সাতক্ষীরা জেলা কৃষি অফিস সূত্র জানা যায়, গত বছর উপজেলায় ১ হাজার হেক্টর জমিতে গম চাষ হলেও সেটা এবার নেমে এসেছে ৮১০ হেক্টর। গত বছরের তুলনায় এবার গম চাষে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এর স্থলে বর্জন হয়েছে। জানা গেছে, সাতক্ষীরা জেলায় দিন দিন গমের চাষ ক্রমাগতভাবে কমে যাচ্ছে।


মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী থাকলেও উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি, এমনকি ফলন কম হওয়ার কারণে গম চাষে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন কৃষকরা। নানাবিধ কারনে এ জেলার গম চাষ হুমকির মুখে পড়েছে। বিগত দিনে জেলার গম চাষে কৃষকদের ব্যাপক আগ্রহ থাকলেও বর্তমান সময়ে গম চাষে কৃষকরা অনাগ্রহী। এ জেলার কৃষকরা মনে করেন গম চাষের চেয়ে অন্য ফসল চাষ করে তুলনামূলক ভাবে অনেক লাভবান হওয়া যায়। সে জন্য গমের পরিবর্তে অন্য ফসল চাষ করছেন।


কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সাতক্ষীরার তত্বাবায়নে গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের বারি গম-৩০ বারি মৌসুম -২০২১-২০২২ থাকলেও নিজ উদ্যোগে অন্য সব ফসলের মতো গম চাষ খুব কম হচ্ছে।


তালা উপজেলার গনেশপুর ব্লক কৃষাণি রানু বালা দাশ বলেন, আমাকে তালা উপজেলা কৃষি অফিস থেকে গমের বীজ ফ্রী দিয়েছে আমি ৩৩ শতক জমিতে কৃষি অফিসের পরামর্শ অনুযায়ী গম চাষ করেছি বর্তমানে আমার ফসলের অবস্থা খুব ভালো। আবহাওয়া স্বাভাবিক থাকলে ভালো ফলন পাবো।



সদর উপজেলার আগরদাড়ীর কৃষক মন্তাজ আলী জানান, সরকারি সহযোগিতা ১৫ শতক জমিতে গম চাষ করেছেন। জমিতে এসে ফসল দেখলে মনটা জুড়িয়ে যায়। আগামী বছরে আমি সরকারি সহযোগিতা পেলে আরো বেশী জমিতে গমের চাষ করবো।


এছাড়া অন্যান্য উপজেলার একাধিক কৃষক বলেন, সরকারী ভাবে আমার সহযোগিতা পেলে ধান চাষের পাশাপাশি গম চাষ করতে পারবো। ধান চাষের উপর কৃষকদের আগ্রহ ও ফলন বৃদ্ধি করতে যেমন বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে একই ভাবে কৃষকদের গম চাষের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করলে গম চাষের প্রতি আগ্রহী হবেন কৃষকরা।


দেবহাটা উপজেলার আব্দুল হাফিজ বলেন, অন্য ফসলের উন্নত মানের জাত ও বীজের গুনাগুণ, গুনাগত মান সম্পর্কে আমরা সহজে জানতে পারি কিন্তু গমের জাত ও বীজের গুনাগুণ সম্পর্কে আমরা কিছুই জানিনা। তবে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে আমাদের মাঝে প্রশিক্ষণ প্রদান করে গমের চাষ পদ্ধতি ও উন্নত জাতের বীজ সম্পর্কে অবগত করলে ভালো হবে।


এদিকে সাতক্ষীরা জেলায় সাধারণ, কাঞ্চন, আতবর, অগ্রণী, প্রতিভা, সৌরভ জাতের গম চাষ করা হয়। এ জেলার আবহাওয়া অনুযায়ী গমের চাষ করে কৃষকরা ভালো ফলন পেয়ে থাকেন।


সাতক্ষীরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম বলেন, গম চাষের উপযোগী জমিতে উচ্চ মূল্যের সবজি চাষ হওয়ায় গম চাষ কমে যাওয়ার একটি কারণ। তিনি আরো বলেন, কয়েকটি উপজেলায় গম চাষ কমে গেছে, প্রদর্শনী প্লাট করে কিছু কিছু চাষিদের সার ও গমের বীজ বিনামূল্যে প্রদান করা হয়েছে। তাছাড়া এ বছরে গম চাষের উপর কৃষকের প্রশিক্ষণ প্রদান করেছি। সরকারি সকল সুযোগ-সুবিধা, কৃষকদের মাঝে প্রদান করা হয়েছে।


বিবার্তা/সেলিম/বিএম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com