যশোরে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে তিনজনের মৃত্যু
প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:২৫
যশোরে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে তিনজনের মৃত্যু
যশোর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

যশোরে করোনা আক্রান্ত হয়ে একজন ও উপসর্গ নিয়ে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের রেডজোন ও আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ও বুধবার (২৬ জানুয়ারি) ভোরে এদের মৃত্যু হয়। এদের কেউই টিকা গ্রহণ করেননি।


মৃতরা হলেন, যশোর সদর উপজেলার নারাঙ্গালী গ্রামের কিনু বিশ্বাসের ছেলে কুদরতুল্লাহ (৭১) ও বাঘারপাড়া উপজেলার সুখদেবনগর গ্রামের রহমত মোল্লার ছেলে আব্দুর রহিম (৬৫) এবং ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের মহিউদ্দিনের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৫৫)।


এদিকে যশোরে নতুন করে আরো ২২৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।


যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল সূত্র জানায়, যশোর সদর উপজেলার নারাঙ্গালী গ্রামের কিনু বিশ্বাসের ছেলে কুদরতুল্লাহ করোনা উপসর্গ নিয়ে ১৫ জানুয়ারি হাসপাতালের ইয়েলো জোনে ভর্তি হন। পরে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসায় ১৭ জানুয়ারি তাকে করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত রেডজোনে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থা গুরুতর হলে ১৮ জানুয়ারি তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে তার মৃত্যু হয়।


এছাড়া যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার সুখদেবনগর গ্রামের রহমত মোল্লার ছেলে আব্দুর রহিম মঙ্গলবার সকালে করোনা উপসর্গ নিয়ে যশোর হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।


ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের মহিউদ্দিনের ছেলে তরিকুল ইসলাম করোনা উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার হাসপাতালের ইয়েলো জোনে ভর্তি হন। রাতে তার অবস্থা গুরুতর হলে হাইফ্লো অক্সিজেনের জন্য রেডজোনে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।


যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আখতারুজ্জামান জানান, হাসাপাতালের আইসিইউতে একজন করোনা রোগী এবং আইসিইউ ও রেডজোনে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে এখন যারা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন এদের অধিকাংশই টিকা গ্রহণ করেননি।


যশোরের সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মাসের শুরু থেকে যশোরে করোনা শনাক্তের হার প্রতিনিয়ত বাড়ছে। শনাক্তের হার ৫ শতাংশ থেকে বেড়ে প্রায় ৫০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। সর্বশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২২৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে পিসিআর টেস্টে শনাক্ত হয়েছে ১১৯ জন এবং র‌্যাপিড টেস্টে ১০৭ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ২৮৫ জন।


বিবার্তা/বিএম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com