৭ মার্চের ভাষণে উজ্বীবিত হয়ে বাঙ্গালি স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েছিলো; দৌলতপুরে এমপি বাদশাহ্
প্রকাশ : ০৭ মার্চ ২০২১, ২২:৪৩
৭ মার্চের ভাষণে উজ্বীবিত হয়ে বাঙ্গালি স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েছিলো; দৌলতপুরে এমপি বাদশাহ্
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণে বাঙ্গালী জাতি উজ্বীবিত হয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েছিলো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সশস্ত্র সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে দেশ স্বাধীন হয়েছে। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নিরস্ত্র জাতিকে সশস্ত্র জাতিতে রুপান্তিরিত করে পৃথিবীর একটি শক্তিসালী সামরিক বাহিনী ও ক্ষমতাসম্পন্ন একটি দেশকে পরাজিত করে সে দেশের সরকার ও সেনাবাহিনীকে পরাজিত করে অনুন্নত জাতিকে ৭ মার্চের বক্তৃতার মধ্য দিয়ে উজ্বীবিত করে এই দেশের স্বাধীনতা অর্জন যা ইতিহাসে এক বিরল ঘটনা। যা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বেই সফল হয়েছিল।


দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত ৭ মার্চের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এসব কথা বলেন।


তিনি বলেন, ৭ মার্চের বক্তব্য ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দিয়েছে। পৃথিবীর ইতিহাসে বিখ্যাত বক্তব্যের মধ্যে ৭ মার্চের ভাষণ অন্যতম। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের মধ্যে ২৪ বছরের শোষণ বঞ্চনার ইতিহাস, কিভাবে যুদ্ধ করতে হবে, কিভাবে যুদ্ধের পরও টিকে থাকতে হবে সব নির্দেশনা এই বক্তব্যে রয়েছে। উপস্থিতিদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, খালি মুখে জয় বাংলা বললে হবেনা, মুখে বঙ্গবন্ধু বললে হবেনা। বঙ্গবন্ধুর সত্যিকার আদর্শকে বুকে ধারণ করতে হবে, বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে শিক্ষা নিতে হবে। সত্যিকারে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষ হিসেবে আমরা নিজেকে গড়ে তুলতে পারি তা’হলেই শহীদের স্বপ্ন, ৭ মার্চের বক্তব্যর মধ্য দিয়ে স্বাধীন দেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন একটি আত্মমর্যাশীল জাতি হিসেবে বাঙ্গালী টিকে থাকবে, একটি স্বাধীন সার্বভৌম নাগরিক হিসেবে বঙ্গালী জাতি অর্থনৈতিকভাবে শক্তিসালী হয়ে টিকে থাকবে। এদেশের মানুষ অন্ন বস্ত্র শিক্ষা চিকিৎসা পাবে, দুখী মানুষও সে সুযোগ পাবে, নতুন প্রজন্মেরা গৌরবের সাথে এই পৃথিবীর দেশ মানচিত্রে এগিয়ে নিয়ে যাবে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ৭ মার্চের বক্তব্য তবেই বাস্তবায়ন হবে।


দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এজাজ আহমেদ মামুন। রোববার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ৭ মার্চের আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান সুমন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আলী, কাওছার আলী, আব্দুস সোবহান ও দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, দৌলতপুর প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আব্দুল মালেক।


এসময় দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্মসাধারণ সম্পাদক সরদার তৌহিদুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাক্কির আহমেদ, সোনালী খাতুন আলেয়া, জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল্লাহেল বাকী, মায়াবী রোমাঞ্চ মল্লিক, বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দ সহ আমন্ত্রিত ও স্থানীয় সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা পরিচালনা করেন প্রভাষক শরীফুল ইসলাম।


এর আগে সকাল ৯টায় দৌলতপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পন করে জাতির পিতার প্রদ্ধিা শ্রদ্ধা জানানো হয়। কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের এমপি আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশাহ্, দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এজাজ আহমেদ মামুনসহ বিভিন্ন সংগঠন ও দফতর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান। এরপর ১ মিনিট নীরবতা ও বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।


আলোচনা সভার পর ৭ মার্চের চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃত্তি ও বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের সভাপতি ও দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার। বিকেলে দৌলতপুর শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে সাধারণ সম্পাদক সরকার আমিরুল ইসলামের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে অনুষ্ঠিত হয় গীতি আলেখ্য ‘মরেও তুমি অমর হয়েছ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’।


বিবার্তা/শরীফুল/এসএ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com