দুর্গাপুরে কাউসার হত্যা, ভাইস চেয়ারম্যানসহ ২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা
প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ১০:৫৭
দুর্গাপুরে কাউসার হত্যা, ভাইস চেয়ারম্যানসহ ২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা
দুর্গাপুর উপজেলার নবীন লীগের সভাপতি ও ছাত্রলীগ কর্মী কাউসার হত্যার প্রতিবাদ
দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

পূর্ববিরোধের জেরে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার নবীন লীগের সভাপতি ও ছাত্রলীগ কর্মী গ্যারেজ মালিক কাউসার হত্যাকাণ্ডে দুর্গাপুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান নিরা ওরফে সাদ্দাম আকুঞ্জি এবং জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ইমাম হোসেন আবু চাঁনসহ ২২ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।


বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতের বড় ভাই স্বপন তালুকদার বাদী হয়ে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৭-৮ জনকে আসামি করে থানায় মামলাটি করেন। এদিকে ঘটনার পরপরই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের হাতে আটক পাঁচজনকে আদালতে পাঠানো হয়।


কাওছার হত্যা মামলার আসামিরা হলো-
সাদ্দাম আকন্জি, সাধারণ সম্পাদক দুর্গাপুর উপজেলা যুবলীগ ও ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ। আবু চান, সহ-সভাপতি নেত্রকোনা জেলা বিএনপি। মেহেদি হাসান সাহস- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছাত্রদল দুর্গাপুর সুসং সরকারি কলেজ শাখা। (উপজেলা যুবদল সভাপতি মন্জুর ছেলে, দাদা ২-নং আসামি আবু চান, সহ-সভাপতি নেত্রকোনা জেলা বিএনপি। শামীম আহম্মেদ- ছাত্রদল দুর্গাপুর সুসং সরকারি কলেজ শাখা। পরশ মিয়া, ছাত্রদল দুর্গাপুর সুসং সরকারি কলেজ শাখা।


জানা যায়, দুর্গাপুরের সাবেক এমপি জালাল তালুকদারের ভাতিজা কাউসার তালুকদারের সাথে মাঝিয়াল গ্রামের মঞ্জুরুল হকের ছেলে সাবেক ছাত্রদল নেতা মেহেদি হাসন সাহসের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে সাহসের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী গত মঙ্গলবার রাতে পৌর শহরের দক্ষিণপাড়া মোড়ে কাউসারের গ্যারেজে ঢুকে হকিস্টিক দিয়ে বেদম মারপিট করে।


এ সময় কাউসার দৌড়ে বের হতে চাইলে মবিলের উপর পিছলে পড়ে যায় এবং সন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে মাথায় আঘাত লাগে। তার চিৎকার চেঁচামেচিতে আশপাশের মানুষ এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা কাউসারকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। পরে রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেলে মারা যান কাউসার।


এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিশ রাতেই সাহসের দাদা জেলা বিএনরি সহ-সভাপতি ইমাম হোসেন আবু চাঁন, চাচা জুলহাস ও ভাই পরশকে আটক করে। পরদিন বুধবার সকালে আরো দুজনকে আটক করা হয়। দিনভর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করে। বুধবার রাতে দুটি জানাযা শেষে কাউসারের দাফন সম্পন্ন হয়।


দুর্গাপুর থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান বলেন, আটকদের কোর্টে পাঠানো হয়েছে।


বিবার্তা/রবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com